৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

শুভদীপ রায় নন্দী, শিলিগুড়ি:  সরকারি প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষিকাকে কুপ্রস্তাব দেওয়া এবং মানসিক অত্যাচার চালানোর অভিযোগ৷ কাঠগড়ায় শিলিগুড়ি পুরনিগমের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর রঞ্জন শীল শর্মা৷ যিনি আবার ওই একই স্কুলের টিচার ইনচার্জও বটে৷ এই মর্মে ইতিমধ্যে শিলিগুড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ওই শিক্ষিকা৷ অভিযুক্তের তালিকায় নাম রয়েছে স্কুলের আরও বেশ কয়েকজন শিক্ষক ও শিক্ষিকারও৷

[ আরও পড়ুন: নির্বাচনের পর বছর পার, অবশেষে পোলেরহাট পঞ্চায়েতে বোর্ড গড়ল তৃণমূল ]

জানা গিয়েছে, অনেক দিন ধরেই শিলিগুড়ির সুভাষপল্লি নেতাজি জিএসএফপি প্রাইমারি স্কুলে শিক্ষকতা করছেন অভিযোগকারিনী শিক্ষিকা৷ তাঁর দাবি, ২০১৭-তে তাঁকে কুপ্রস্তাব দেন শিলিগুড়ি পুরনিগমের ৩৭ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলর রঞ্জন শীল শর্মা৷ সেই প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায়, তাঁকে গালিগালাজ করা হয়৷ এরপর শুরু হয় মানসিক অত্যাচার৷ একই স্কুলের টিচার ইনচার্জ হওয়ায়, নিজের প্রভাব খাটাতে থাকেন অভিযুক্ত৷ অন্যান্য শিক্ষকরাও তাঁকে হেনস্তা করেন বলে অভিযোগ৷ অভিযোগকারিনী জানিয়েছেন, রঞ্জন শীল শর্মার ইন্ধনে সম্প্রতি ক্লাসরুমে ঢুকে তাঁর উপর মানসিক অত্যাচার চালান সহ-শিক্ষিকা রাকা দে, সোমা বিশ্বাস এবং সহ-শিক্ষক গৌরব রায়৷ সেই অত্যাচারের ফলেই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি৷  ভরতি হতে হয়েছে শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে৷ যেখানে এখনও চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: পূর্ব মেদিনীপুরে তৃণমূল কর্মীকে পিটিয়ে খুন, চাঞ্চল্য ভগবানপুরে ]

সূত্রের খবর, হাসপাতালে ভরতির পরই পুলিশের দ্বারস্থ হন অভিযোগকারিনীর বাড়ির লোকেরা৷ পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছেন শিক্ষিকাও৷ অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ৷ যদিও শিক্ষিকার সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্তরা৷ অভিযোগকারিনীর বিরুদ্ধে পালটা স্কুলে অনিয়ম ও পরিবেশ নষ্ট করার অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা৷ আদালতে যাওয়ার  হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রঞ্জন শীল শর্মা—সহ অভিযুক্ত শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং