০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ভোটের নামে প্রহসন! এবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে ‘সায়েন্টিফিক রিগিং’-এর অভিযোগ দীপার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 1, 2019 9:43 am|    Updated: May 1, 2019 10:34 am

TMC indulging in scientific rigging, alleges Cong leader Dipa Dasmunshi

সন্দীপ মজুমদার, উলুবেড়িয়া: “প্রশাসনকে কাজে লাগিয়ে সারা বাংলায় সায়েন্টিফিক রিগিংয়ের পদ্ধতি গ্রহণ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যের মানুষ বুঝতে পারছেন রাজ্য সরকার কীভাবে পুলিশকে কাজে লাগিয়ে নির্বাচনে প্রহসন সৃষ্টি করছে। রাজ্যের পুলিশ এখন রক্ষকের জায়গায় ভক্ষকের ভূমিকা পালন করছে। রাজ্যের প্রতিটি থানা এখন তৃণমূল কংগ্রেসের পার্টি অফিসে পরিণত হয়েছে।” মঙ্গলবার উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী সোমা রানিশ্রী রায় এবং উলুবেড়িয়া পূর্ব বিধানসভা উপনির্বাচনের কংগ্রেস প্রার্থী আলম দেইয়ান শেখের সমর্থনে এক নির্বাচনী প্রচারে এসে এ কথা বলেন কংগ্রেস নেত্রী দীপা দাশমুন্সি।

[আরও পড়ুন:  ফাঁকা ক্লাসরুমে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় শিক্ষক-শিক্ষিকা, উত্তাল তেহট্টের স্কুল]

তিনি প্রশ্ন তোলেন, মা-মাটি-মানুষের সরকার যদি এতই উন্নয়ন করে থাকে, বিজেপির সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সারা দেশজুড়ে এতই লড়াই করে থাকে তাহলে তারা সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে কেন? কেন আইনশৃঙ্খলার উপরে এ রাজ্যের মানুষের আস্থা নেই? কেনই বা কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করাতে হচ্ছে? তাঁর দাবি, রায়গঞ্জের নির্বাচনের ক্ষেত্রেও তৃণমূলের সায়েন্টিফিক রিগিংয়ের অভিজ্ঞতা তাঁর হয়েছে। উলুবেড়িয়ার মানুষ যদি কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তাবেষ্টনীর মধ্যে ভোট দিতে পারেন তাহলে কংগ্রেস প্রার্থীদের জয় নিশ্চিত বলে তিনি দাবি করেন।

[আরও পড়ুন:  ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত পূর্ব বর্ধমানে, দিনভর তেতে রইল আউশগ্রাম]

এরপর কংগ্রেস নেত্রী সরব হন বিজেপির বিরুদ্ধেও। তিনি বলেন, “বিজেপির নির্বাচনী ইস্তাহারে কোনও লক্ষ্যের কথা বলা হয়নি। গত নির্বাচনে তাঁরা যে কালো টাকা ফিরিয়ে আনার কথা বলে ভোট চেয়েছিলেন এবারের নির্বাচনী ইস্তাহারে সেই কালো টাকার কোনও উল্লেখ নেই। সে জায়গায় রাম মন্দিরের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। বছরে দু’কোটি বেকার যুবককে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও সেই প্রতিশ্রুতি তাঁরা রক্ষা করেননি। কংগ্রেস বেকার যুবকদের কথা ভাবছে, এছাড়াও কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে ন্যায় প্রকল্পের মাধ্যমে গরিব পরিবারগুলিকে বছরে ৭২ হাজার টাকা, কর্মসংস্থান সুনিশ্চিত করা হবে।”এদিন উলুবেড়িয়া গঙ্গারামপুর থেকে উলুবেড়িয়া পূর্ব বিধানসভা উপনির্বাচনের কংগ্রেস প্রার্থী আলম দেইয়ান শেখের সঙ্গে দীপা
দাশমুন্সি এক রোড শোয়ে অংশ নেন। রোড শোটি উলুবেড়িয়া শহর ছেড়ে ফুলেশ্বর, চেঙ্গাইল হয়ে বাউড়িয়ায় পৌঁছয়।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে