BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার ‘চোর পেটানো’র নিদান, ফের বিতর্কে অনুব্রত মণ্ডল

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: April 17, 2019 8:50 pm|    Updated: April 17, 2019 8:50 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: লোকসভা ভোটে এবার কার্যত দলের কর্মীদের আইন হাতে তুলে নেওয়ার পরামর্শ দিলেন অনুব্রত মণ্ডল। তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতির নিদান, ‘সন্ধ্যায় আর রাত ১২টার পর এলাকায় চোর আসছে। তাদের ধরে ছেড়ে দেবেন না। মেরে হাত পা ভেঙে দিন। তাতে যা হওয়ার আমি দেখে নেব’। এদিকে বিজেপির বীরভূম জেলা সভাপতি রামকৃষ্ণ রায়ের পালটা হুঁশিয়ারি, ‘সারদা, নারদা-সহ সব চুরিতেই ওরা ওস্তাদ। অনুব্রত যে ভাষায় কথা বলছে, সেটা গুন্ডাদের ভাষা। আমরা ফের ওঁর নামে কমিশনে অভিযোগ জানাব।’ 

[ আরও পড়ুন: ঝাঁটা মেরে বিদায় করুন কেন্দ্রীয় বাহিনীকে, কর্মীদের পরামর্শ তৃণমূল বিধায়কের]

চতুর্থ দফায়, ২৯ এপ্রিল ভোট হবে বীরভূম জেলার দুটি লোকসভা কেন্দ্রে। সোমবার সাঁইথিয়া ওমরপুর, মঙ্গলবার কাঁকরতলা, এমনকী, বুধবার সকালেও দুবরাজপুরের পদুমায় সংঘর্ষে জড়িয়েছেন কংগ্রেস ও তৃণমূল সমর্থকরা। সংঘর্ষ হয়েছে রাতে, এলাকায় পতাকা লাগানো নিয়ে। তাহলে কি রাতে এলাকায় পতাকা নিয়ে ঢুকছে চোরের দল? বিষয়টি খোলসা করতে চাননি তৃণমূল কংগ্রেস বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন, গ্রামই হোক কিংবা শহর, রাতে চুরি করতে এলেই মেরে হাত-পা ভেঙে দেওয়া হবে। চুরি করার অধিকার কারও নেই। কে চুরি করতে আসছে, তা সকলেই জানেন। দু’একদিনের মধ্যে দেখতে পাবেন হাত-পায়ে ব্যান্ডেজ বেঁধে রোগীদের ভিড় জমে গিয়েছে হাসপাতালে। এমনকী, কেন্দ্রীয় বাহিনীও যদি নিরপেক্ষ না থাকে, তাহলে তাদের উচিত শিক্ষা দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে বীরভূমের এই দাপুটে তৃণমূল নেতা।

ছবি: শান্তনু দাস

[ আরও পড়ুন: ভোটের প্রচারে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিড-ডে মিলের ছবি পোস্ট, বিতর্কে তৃণমূল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement