৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo ফিরে দেখা ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ মাঘ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: হায়দরাবাদে পশু চিকিৎসককে গণধর্ষন ও পুড়িয়ে খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত চার যুবককে এনকাউন্টারের ঘটনাকে পূর্ণ সমর্থন করলেন অনুব্রত মণ্ডল। একটি সভা থেকে তৃণমূল জেলা সভাপতি দাবি করেন, যদি মৃত চারজনই ধর্ষণের মতো জঘন্য অপরাধে যুক্ত হয়ে থাকে। তবে তাদের গুলি করে হত্যা করে সঠিক কাজ করেছে পুলিশ।  

শনিবার বীরভূমের সাঁইথিয়ার বনগ্রামের তিলপাড়ায় ব্লক সভাপতি সাবের আলির ডাকা জনসভায় উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তাঁর হাত ধরে এদিন দেরিয়াপুর, বনগ্রাম, ফুলুর, হাতোড়া, হরিসরা-সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রচুর বিজেপি সমর্থক তৃণমূলে যোগদান করেন। তাঁদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অনুব্রত মণ্ডল। এ দিনের সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে হায়দরাবাদ প্রসঙ্গে পুলিশের ভূমিকাকে সাধুবাদ জানান অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন, ” যদি আদতে এই ৪ যুবক ধর্ষণের ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকে, তবে শাস্তি উপযুক্ত হয়েছে।” তবে তিনি স্পষ্ট ভাষায় বলেন যে, এই মতামত সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত। দলের সঙ্গে কোনওভাবেই তাঁর মতামতের কোনও যোগ নেই। 

anubrata-2
নতুন সদস্যদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন অনুব্রত মণ্ডল।

[আরও পড়ুন: গাড়ির সঙ্গে ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ, মুর্শিদাবাদে মৃত্যু শিলিগুড়ির বিজেপি জেলা সভাপতির]

এদিন সভা থেকে জোর গলায় তিনি বলেন, সারা দেশের তুলনায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমলে মানুষ অনেক সুখে আছেন। স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের জামা, জুতো, স্কুল, ব্যাগ থেকে ২ টাকা কেজি চাল প্রদানের প্রসঙ্গও তোলেন তিনি। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে একটি বৈঠকে বনগ্রামের এক প্রাক্তণ তৃণমূল নেতার ছেলের বিরুদ্ধে এফআইআর করার নির্দেশ দিয়েছিলেন অনুব্রত। কিন্তু দু’সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও তা হয়নি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সেই নির্দেশ দলের ছিল। তাই সেটা নিয়ে প্রকাশ্যে কিছু বলবেন না। তবে দলের বৈঠকে যেভাবে প্রকাশ্যে নেতারা সরব হচ্ছে, সে প্রসঙ্গে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, এটাই দলের গণতন্ত্র।

ছবি: সুশান্ত পাল

[আরও পড়ুন: গালিগালাজের প্রতিবাদ করায় অন্তঃসত্ত্বার পেটে লাথি, কাঠগড়ায় পড়শিরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং