BREAKING NEWS

৯ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘ঝাঁটা মেরে গ্রাম থেকে বের করে দেব’, বিজেপি কর্মীদের কড়া হুঁশিয়ারি তৃণমূল নেতার

Published by: Sayani Sen |    Posted: February 3, 2020 2:28 pm|    Updated: February 3, 2020 2:28 pm

TMC leader Debu Tudu threatens BJP workers in East Burdwan

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: ১০০ দিনের প্রকল্পে বরাদ্দ কমানো নিয়ে বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে বিপাকে তৃণমূল নেতা দেবু টুডু। পূর্ব বর্ধমানে দলীয় এক সভায় তিনি ঝাঁটা মেরে বিজেপি কর্মীদের গ্রাম থেকে তাড়ানোর নিদান দেন। জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর তথা জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডুর কুকথাকে হাতিয়ার করে আসরে নেমেছে বিরোধীরা। কুকথাই যেন রাজনৈতিক মহলে ট্র্যাডিশন হয়ে গিয়েছে বলেই দাবি অধিকাংশের।

দেবু টুডু বলেন, “শনিবার বাজেট হয়েছে। বিজেপির বন্ধুদের বলি বাজেট বোঝেন তো। তাহলে শুনুন, ১০০ দিনের কাজে ১৩ শতাংশ টাকা কমিয়ে দিয়েছে কেন্দ্র। বর্ধমানের মানুষ, দেওয়ানদিঘির মানুষ আর ১০০ দিনের কাজ পাবেন না। বিজেপির বন্ধুরা যারা কাজ করছিল তারাও পাবেন না ১০০ দিনের কাজ। যারা বিজেপি করো তারা শোনো ভাই ১০০ দিনের কাজ বন্ধ করে গ্রামে থাকা যাবে না। ওই গেরুয়া ঝান্ডা ধরে বিজেপি করা যাবে না। ঝাঁটা মেরে গ্রাম থেকে বের করে দেব। তোমরা বাঙালির পেটে লাথি মারবে, গরিব মানুষের পেটে লাথি মারবে, ১০০ দিনের প্রকল্পে ১৩ শতাংশ টাকা কমিয়ে দিয়ে আর এখানে বিজেপি জিন্দাবাদ বলবে ওটি হবে না। ওষুধ দেওয়া হবে। এখান থেকে ঝাঁটা মেরে তাড়িয়ে দেওয়া হবে।”

[আরও পড়ুন: পাঁচ বছরের রেকর্ড ভাঙল ফেব্রুয়ারির শীত, স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি নামল তাপমাত্রা]

বরাদ্দ কমানোর কারণ হিসেবে তৃণমূল নেতার দাবি, ১০০ দিনের কাজে গত পাঁচ বছর ধরে প্রথম পশ্চিমবঙ্গ। বর্ধমান জেলাও সেরা। তাই বিজেপির যন্ত্রণা হওয়ায় বরাদ্দ কমিয়ে দিয়েছে। বরাদ্দ কমিয়ে দেওয়ার অর্থ মানুষকে আর কাজ দেওয়া যাবে না। দেবু টুডু বলেন, “তাহলে বলুন গরিব খেটে খাওয়া মানুষ যাঁদের ১০০ দিনের কাজের উপর নির্ভর করে সংসার চলে, তাঁদের কীভাবে চলবে? পঞ্চায়েতের মাধ্যমে এই কাজ করে অর্থনীতির অনেক পরিবর্তন হয়েছে। মানুষকে ধারদেনা করতে হয় না। সেই কাজ বিজেপি বন্ধ করে দিচ্ছে। তাই বলছি যারা বিজেপি, বিজেপি করবে এভাবে মানুষের উপর অত্যাচার করছে। তাদের ওষুধ দেওয়া হবে।” তৃণমূল নেতার কুকথা প্রসঙ্গে যদিও জেলা বিজেপি সভাপতি সন্দীপ নন্দীর কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে