২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘নিজের অভিযোগ হয় প্রমাণ করুন, নয়তো ক্ষমা চান’, অমিত শাহকে পালটা বিঁধলেন অভিষেক

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 9, 2020 4:08 pm|    Updated: May 9, 2020 4:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য তরজা চরমে। পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার জন্য ইতিমধ্যেই আটটি ট্রেন কেন্দ্রের কাছে চেয়েছে নবান্ন। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অমিত শাহের কড়া চিঠি নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য চাপানউতোর চরমে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কড়া ভাষায় চিঠি দিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে রাজ্যের বিরুদ্ধে অনীহার অভিযোগ তুলেছেন। তার পালটা জবাব এবার ছুঁড়ে দিলেন তৃণমূল নেতারা। সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে বিঁধলেন অমিত শাহকে। তোপ দাগলেন, ‘মিথ্যা বলছেন, প্রমাণ দিন নয়তো ক্ষমা চান।’

পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে অসহযোগিতার অভিযোগে সরব হয়েছে কেন্দ্র। শনিবার অমিত শাহ মুখ্যমন্ত্রীকে একটি চিঠি পাঠান। যেখানে তিনি সাফ জানিয়েছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শ্রমিকদের ফেরানোর ক্ষেত্রে কেন্দ্রকে সাহায্য করছেন না। তাঁর দাবি, পরিযায়ী শ্রমিকদের বাংলায় ফেরাতে রেল যে শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে, তার অনুমতি দিচ্ছেন না মুখ্যমন্ত্রী। ভিনরাজ্যে আটকে পড়া শ্রমিকদের সঙ্গে অন্যায় করা হচ্ছে বলেও চিঠিতে অভিযোগ জানান তিনি। শাহ জানান, এখনও পর্যন্ত বিভিন্ন রাজ্যে কাজ করতে এসে লকডাউনের জেরে আটকে পড়া দু’লক্ষেরও বেশি শ্রমিককে বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্র। কিন্তু মমতার সরকারের তরফে এ বিষয়ে সহযোগিতা মিলছে না। রীতিমতো হুঁশিয়ারির সুরেই শাহ বলেন, এভাবে অসহযোগিতা করলে শ্রমিকদেরই ভবিষ্যতে সমস্যায় পড়তে হবে।

[আরও পড়ুন: পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে সহযোগিতা করছে না রাজ্য, মমতাকে কড়া চিঠি অমিত শাহর]

এরই পালটা টুইটারে অমিত শাহকে একহাত নিয়েছেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘নিজের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ একজন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এত সপ্তাহ পর মুখ খুললেন, তাও মিথ্যা প্রচারে! উনি ওই মানুষদের সম্পর্কে বলছেন, যাঁদেরকে ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিয়েছে অমিত শাহের সরকারই। অমিত শাহ নিজের অভিযোগ হয় প্রমাণ করুন, নয়তো ক্ষমা চান।’ পাশাপাশি, তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েনও কটাক্ষ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। বলেছেন, ‘এতদিনে ঘুম থেকে উঠলেন অমিত শাহ। কোনও পরিযায়ী শ্রমিকের জন্য কিছু করেছেন এতদিন! এই প্রশ্নের উত্তর দিন আগে। আপনি তো গভীর ঘুমে ছিলেন! এখন কেন সমস্যা তৈরি করছেন! আপনার চিঠির জন্য ক্ষমা চান।’

[আরও পড়ুন: ঔরঙ্গাবাদ ঘটনার হাতছানি, চালকের চেষ্টায় বড়সড় ট্রেন দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পরিযায়ী শ্রমিকদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement