২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মন্তব্য বিকৃত করে মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে টুইট! বাবুলকে আইনি নোটিস পাঠালেন অভিষেক

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 19, 2020 10:29 pm|    Updated: September 19, 2020 11:29 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্তব্য বিকৃত করে অপমানের অভিযোগে আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে আইনি নোটিস পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। শুধু তাঁকেই নয়, ওই টুইটের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও (Mamata Banerjee) অপমান করা হয়েছে বলেই অভিযোগ তাঁর। অবিলম্বে ওই টুইট ডিলিট এবং ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন অভিষেক।

ঘটনার সূত্রপাত মহালয়ার সকালে। ওইদিন অভিষেক সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি বক্তব্য রাখেন। তাতে তাঁকে বলতে শোনা যায়, “আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর অমানবিক এবং অক্লান্ত পরিশ্রমে, বাংলার নিজস্ব মস্তিষ্কপ্রসূত কর্মকাণ্ডে রাজ্যের উন্নয়নে গতি এসেছে।” ‘অমানবিক’ শব্দটি নিয়ে শুরু হয় আলোচনা। বাবুলও (Babul Supriyo) এই শব্দের কারণেই মশকরা করে পালটা টুইট করেন। তিনি তাতে লেখেন, “মুখ ফসকে সত্যি কথাটা বেরিয়ে গিয়েছে। অমানবিক মুখ্যমন্ত্রী। আমি একটুও আশ্চর্য হইনি যে এটা পোস্ট করা ভিডিওতে রয়ে গিয়েছে। কারণ যাঁরা এটা শুট করেছে তারাও ‘অমানবিক মুখ্যমন্ত্রী’ দিদির অমানবিক তৃণমূলী দুষ্কর্মে এতটাই লিপ্ত যে ভুল করে ‘বেরিয়ে’ যাওয়া এই সত্যটা ওরা ধরতেই পারেনি।”

[আরও পড়ুন: করোনা আবহে শুশুনিয়ার পাথরশিল্পীর ৬ মাসের অক্লান্ত পরিশ্রমে তৈরি হচ্ছে ‘ওজনদার দুর্গা’]

বাবুলের এই টুইটের তীব্র বিরোধিতা করেছেন অভিষেক। সে কারণেই বাবুলকে সোজা আইনি নোটিস (Legal Notice) পাঠিয়েছেন তিনি। অভিষেকের দাবি, ‘অমানবিক’ শব্দটি তিনি ব্যবহার করেননি। বাবুল সুপ্রিয় তাঁকে এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অপমান করার জন্য এহেন ‘মিথ্যে’ টুইট করেছেন। যার ফলে অপমানিত বোধ করছেন তিনি। অবিলম্বে ওই টুইটটি ডিলিট এবং ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ।

[আরও পড়ুন: সামান্য বচসা, বর্ধমান মেডিক্যালের নিরাপত্তারক্ষীর লাঠির ঘায়ে মাথা ফাটল রোগীর আত্মীয়ের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement