১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

Suvendu Adhikari: ডায়মন্ড হারবারে সভা বানচালের চেষ্টা, ভিডিও প্রকাশ করে সরব শুভেন্দু, পালটা কটাক্ষ তৃণমূলেরও

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 3, 2022 9:29 am|    Updated: December 3, 2022 9:47 am

TMC trying to stop Suvendu Adhikari's Diamond Harbour rally, alleges BJP । Sangbad Pratidin

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গড়ে আজ শুভেন্দু অধিকারীর সভা। তবে সভার আগেই ব্যাপক উত্তেজনা। সভা বানচালের চেষ্টার অভিযোগে সরব খোদ শুভেন্দু। টুইটে ভিডিও প্রকাশ করে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। যদিও সভা বানচালের চেষ্টার অভিযোগ অস্বীকার করেছে রাজ্যের শাসকদল।

শনিবার বেলা ১টা নাগাদ ডায়মন্ড হারবারের লাইট হাউস মাঠে শুভেন্দু অধিকারীর সভা করার কথা। প্রথমে সভা নিয়ে প্রশাসনিক জটিলতা তৈরি হয়। তবে পরে কলকাতা হাই কোর্টের সভার অনুমতি দেয়। তবে শুক্রবার রাতে শুভেন্দু অধিকারী টুইটে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন। তাঁর অভিযোগ, মঞ্চ বাঁধতে ডেকরেটরকে বাধা দেওয়া হয়েছে। আচমকাই রাতে মঞ্চের বাঁশ খুলে নেওয়া হয়। চেয়ারও সরিয়ে নেওয়া হয় বলেই অভিযোগ। সভা বানচালের চেষ্টার নেপথ্যে তৃণমূলের অঙ্গুলিহেলনকেই দায়ী করেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিজেপি বিধায়ক। টুইটে ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে রীতিমতো চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন শুভেন্দু।

[আরও পড়ুন: কাঁথিতে আজ মেগা ইভেন্ট, অভিষেকের সভা ঘিরে জমাট তৃণমূলের ঐক্য]

যদিও শুভেন্দুর অভিযোগ মানতে নারজ তৃণমূল। পালটা টুইটে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “অপদার্থদের কুনাট্য। ডেকরেটরের যদি নিজেদের সমস্যা থাকে, তারা যদি কাজ না করে, তৃণমূল কী করবে? শুভেন্দুরা নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে তৃণমূলের উপর দোষ দিচ্ছে। নিজেরা কাজ করাতে পারবে না, আর টুইটে দোষারোপ অন্যকে। এসব কুনাট্য চলবে না।”

তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের গলাতেও একই সুর। অভিযোগের বিরোধিতায় শুভেন্দু অধিকারীকে পালটা আক্রমণ করেছেন তিনি। 

দলের রাজ্য আইটি সেলের ইনচার্জ দেবাংশু ভট্টাচার্যও রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে একহাত নিয়েছেন। ডায়মন্ড হারবারের সাংসদের কাছ থেকে সহযোগিতা চাইতে পারেন বলেই শুভেন্দুকে পরামর্শও দিয়েছেন তিনি। 

শনিবার সকালে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় মঞ্চ বাঁধার কাজ শুরু হয়েছে। তবে নির্ধারিত সময়মতো দুপুর একটা সভামঞ্চ তৈরি করা যাবে কিনা, সেটাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ বিজেপির।

[আরও পড়ুন: ট্রাফিক আইন ভঙ্গের অভিযোগ, ১১ হাজার টাকা জরিমানা দিয়েও পুলিশকে হুঁশিয়ারি শুভেন্দুর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে