BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৭  রবিবার ১৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নাম না করে বিজেপি কর্মীদের ‘ঠেঙিয়ে পগারপার’ করার নিদান, ফের স্বমেজাজে অনুব্রত

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 1, 2021 9:29 pm|    Updated: January 1, 2021 9:29 pm

An Images

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: ফের স্বমেজাজে অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mandal)। নাম না করে বিজেপিকে ‘ঠেঙিয়ে পগারপার’ করার নিদান দিলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি। বীরভূমের নানুরের বাঁশাপাড়াতে মিলন মেলার অনুষ্ঠানে এসে দলীয় কর্মীদের এই নির্দেশ দেন তিনি। 

শুক্রবার বিকেলে নানুরের বাঁশাপাড়াতে মিলন মেলা অনুষ্ঠানে যোগ দেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলাপরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ করিম খান-সহ অন্যান্যরা। এদিন অনুব্রতকে রুপোর মুকুট পরিয়ে সংবর্ধনা দেন করিম খান। এপ্রসঙ্গে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “ওরা আমাকে ভালবাসে। আমার প্রতিটি মানুষের উপর আলাদা টান আছে। যারা আছে এখানে সবাই আমাকে শ্রদ্ধা করে। ভালবাসে। তাই মিলন মেলা হলে ওরা আমার জন্য রাখে।” বিধানসভা নির্বাচনে কী তৃণমূল নিজেদের দখলে রাখতে পারবে বাংলাকে, তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চলছে তুমুল চর্চা। সেই প্রসঙ্গ টেনে এদিন অনুব্রত মণ্ডলকে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করেন বিধানসভা নির্বাচনের পরেও কী রুপোর মুকুট মাথায় পরতে পারবে তৃণমূল? সে বিষয়ে আত্মপ্রত্যয়ী সুর বীরভূম দোর্দণ্ডপ্রতাপ তৃণমূল নেতার গলায়। তিনি বলেন, “নিশ্চয়ই জিততে পারবে। এরা যা বলে তাই হয়।”

[আরও পড়ুন: করোনার নয়া প্রজাতির হানার মাঝে সুখবর, নতুন বছরের শুরুতেই রাজ্যে কমল দৈনিক সংক্রমণ]

আর এরপরই বিস্ফোরক কথা বলে বসেন অনুূব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন, “সামনে ভোট আমি তো বলে দিলাম ঠেঙিয়ে পগারপার করে দিন। এটা আসলে গ্রামের ভাষা। রহিম চৌধুরী, স্বরাজ, কেরিম, বাপ্পাকে যদি কেউ খবর দেয় তবে বলবে ঠেঙিয়ে পগারপার করে দাও। সেটাই বললাম।” কিন্তু কাকে উদ্দেশ্য করে একথা বললেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি। সে বিষয়ে যদিও কারও নাম নিতে চাননি তিনি। তবে রাজনৈতিক মহলের মতে, বিধানসভা নির্বাচনের আগে শাসক-বিরোধীদের মধ্যে কথার ঝাঁজ ক্রমশ বাড়ছে। আর সেই সূত্র ধরে অনেকেই মনে করছেন অনুব্রত মণ্ডল কার্যত বিজেপি নেতা-কর্মীদেরই ঠেঙিয়ে পগারপার করার নির্দেশ দিয়েছেন বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: কনভয়ের মাঝে উলটো দিক থেকে ঢুকল গাড়ি, বড়সড় দুর্ঘটনা থেকে অল্পের জন্য রক্ষা বাবুলের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement