BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

নববর্ষে মোদি ক্যালেন্ডার-লাড্ডু হাতে জনসংযোগের ভাবনা বিজেপির

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 9, 2019 12:09 pm|    Updated: April 17, 2019 4:00 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: পয়লা বৈশাখ মানে নতুন জামা। মিষ্টি মুখ। মন্দিরে মন্দিরে হালখাতা পুজো করার ভিড়। বাঙালির এই উৎসবের দিনটিকে হাতছাড়া করতে নারাজ বিজেপি। তাই নববর্ষের প্রথম সকালে ভোটারদের কাছে পৌঁছতে তৎপর গেরুয়া শিবির। পয়লা বৈশাখের সকালে বাড়ি বাড়ি মোদির ছবি দেওয়া ক্যালেন্ডার আর মিষ্টির বাক্স নিয়ে হাজির হবে টিম নমো। মহল্লায় মহল্লায় চলবে লাড্ডু বিলি। আর বিজেপির যুব কর্মীরা নমোর টি-শার্ট এবং মহিলারা নমো শাড়ি পরে প্রচার সারবেন নববর্ষের সকালে। কোথাও আবার প্রবীণ ভোটারদের আর্শীবাদ নিতে বাড়ি বাড়ি যাবেন প্রার্থীরা।

[ আরও পড়ুন: পানীয় জলের সমস্যার সমাধান নেই, প্রতিবাদে ভোট বয়কটের ডাক জামুরিয়াবাসীর]

পয়লা বৈশাখের আগেই রাজ্যে প্রথম দফার ভোট হয়ে যাচ্ছে। ১১ এপ্রিল আলিপুরদুয়ার ও কোচবিহারের ভোটপর্ব শেষ হয়ে যাবে। ফলে বাকি ৪০টি লোকসভা কেন্দ্রেই দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে নববর্ষের দিন বিভিন্নভাবে জনসংযোগে নামছে বিজেপি। সকাল থেকে রাত চলবে প্রচার। বিভিন্ন জেলার পার্টি কর্মীরা তো বটেই প্রার্থীরাও ওইদিন সকাল থেকেই পথে। উলুবেড়িয়ায় ভোটারদের বাড়ি বাড়ি নরেন্দ্র মোদির ছবি দেওয়া ক্যালেন্ডার আর হাতে মিষ্টির প্যাকেট নিয়ে পৌঁছে যাবেন এলাকার বিজেপি কর্মীরা। হাওড়া গ্রামীণ জেলা সভাপতি অনুপম মল্লিক জানালেন, উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী জয় বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোট দেওয়ার আবেদন জানিয়ে প্রচারপত্রও তুলে দেওয়া হবে ভোটারদের হাতে। এছাড়া নরেন্দ্র মোদির ছবি দেওয়া শাড়ি ও টি-শার্ট নিয়ে আসা হচ্ছে। দলের মহিলা ও যুব কর্মীদের হাতে ওইদিন তুলে দেওয়া হবে যথাক্রমে শাড়ি ও টি-শার্ট।

[ আরও পড়ুন: ‘জামাই’ কটাক্ষের জবাব প্রচারে, সমাবেশ থেকেই তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ আলুওয়ালিয়ার]

দক্ষিণ কলকাতা জেলা বিজেপি অবশ্য ওইদিন একটু অন্যরকমভাবে জনসংযোগ করবে। দক্ষিণ কলকাতা লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থী চন্দ্র বসু নববর্ষের সকালে তাঁর কেন্দ্রের মধ্যে বসবাসকারী প্রবীণ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি যাবেন। প্রণাম করে তাঁদের আশীর্বাদ নেবেন তিনি। দক্ষিণ কলকাতা জেলা বিজেপির সহসভাপতি নীতীন প্যাটেলের বক্তব্য, ওইদিন গরিব শিশুদেরও মিস্টি খাওয়াবেন প্রার্থী। দলের দক্ষিণ ২৪পরগনা (পূর্ব) জেলার সভাপতি সুনীপ দাসের কথায়, পয়লা বৈশাখের সকালে আমরা মহল্লায় মহল্লায় যাব। জনবহুল এলাকা মূলত বাজারে গিয়ে সেখানে সাধারণ নাগরিকদের লাড্ডু খাইয়ে মিষ্টি মুখ করাব। এছাড়াও, বিভিন্ন লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপি প্রার্থীরা গ্রিটিংস কার্ডও তুলে দেবেন ভোটারদের হাতে। তাতে নতুন বছরের শুভেচ্ছা যেমন থাকবে পাশাপাশি থাকবে পদ্ম ফুল প্রতীকে ভোট দেওয়ার আবেদনও। দলের তরফে আবেদনপত্র দেওয়া হবে ভোটারদের হাতে। জয়ী হলে এলাকার জন্য কী কী উন্নয়নের কাজ করবেন প্রার্থী সেই প্রতিশ্রুতিপত্রও ওইদিন দেওয়া হবে বাড়ি বাড়ি। এছাড়াও, আবেদনপত্রে থাকবে কেন্দ্রে কেন আবার বিজেপি সরকার দরকার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement