BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

৮ জুন থেকে খুলছে রাজ্যের পাঁচটি পর্যটন কেন্দ্র, জেনে নিন কী কী?

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 3, 2020 6:02 pm|    Updated: June 3, 2020 6:23 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহ রায়, শিলিগুড়ি: করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় প্রায় দু’মাসেরও বেশি সময় ধরে চলেছে লকডাউন। তাই বাড়ি থেকে বেরনোর কোনও উপায় ছিল না কারও। কিন্তু কথায় বলে, বাঙালির পায়ের তলায় সরষে। তাই তাঁরা কি আর বেড়াতে না গিয়ে বেশিদিন ঘরবন্দি থাকতে পারেন? ভ্রমণপিপাসু বাঙালির কথা মাথায় রেখে আনলক ওয়ানে শর্তসাপেক্ষে খুলছে পাঁচটি পর্যটন কেন্দ্রের দরজা। বুধবার সেকথাই ঘোষণা করলেন পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব।

বুধবার পর্যটন দপ্তরের শিলিগুড়ির কার্যালয় মৈনাক টুরিস্ট লজে সাংবাদিক বৈঠক করেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব। সেখানে এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন তিনি। গৌতম দেব বলেন, “ডায়মণ্ড হারবার, বিষ্ণুপুর, মাইথন, রাঙাবিতান ও ডুয়ার্সের টিলাবাড়ির দরজা আপাতত পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে। আগামী ৮ জুন থেকে এই পাঁচটি জায়গার টুরিস্ট লজগুলি অনলাইনে বুকিংও করতে পারবেন ভ্রমণপিপাসুরা। প্রথম ধাপে এই ৫টি পর্যটনকেন্দ্র খোলা হবে। আগামীতে আরও পর্যটনকেন্দ্র ধীরে ধীরে খোলা হবে।”

[আরও পড়ুন: ১ জুন থেকেই রাজস্থানে খুলছে কেল্লা-মহল, প্রথম সপ্তাহে লাগবে না প্রবেশ মূল্য]

করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে সুরক্ষাবিধি সকলকে মেনে চলতে হবে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, “পর্যটকরা চাইলেই আসতে পারবেন। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে সমস্ত পর্যটন কেন্দ্রগুলিতে কোভিড সুরক্ষাবিধি মেনে চলতে হবে। ঘুরতে আসা প্রতিটি পর্যটককে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। সঙ্গে রাখতে হবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। পর্যটকদের পাশাপাশি সমস্ত নির্দেশিকা মানতে হবে টুরিস্ট লজের কর্মীদেরও।”

স্কুল, কলেজের পাশাপাশি কিছু পর্যটন আবাসকেও কোয়ারেন্টাইন সেন্টার হিসেবে ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানান পর্যটন মন্ত্রী। তার মধ্যে রয়েছে শিলিগুড়ির মৈনাক টুরিস্ট লজ, রায়গঞ্জের দিনান্তে এবং জলদাপাড়ার অরণ্য টুরিস্ট লজ। প্রথম ধাপে পাঁচটি পর্যটন কেন্দ্র খোলায় খুশি পর্যটন সার্কিট। হিমালয়ান হসপিটালিটি অ্যান্ড ট্রাভেল ডেভলপমেন্ট নেটওয়ার্কের সভাপতি সম্রাট সান্যাল বলেন, “পরিস্থিতি বিচার করে আপাতত সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে ধীরে ধীরে বাকিগুলো খোলা হবে বলেও আমরা জানতে পেরেছি।”

[আরও পড়ুন: পর্যটকদের স্বাগত জানাতে তৈরি ইউরোপের প্রথম করোনা মুক্ত দেশ মন্টেনেগ্রো]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement