২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

রাজ কুমার, আলিপুরদুয়ার:  উপযুক্ত চিকিৎসা নয়, পুজার্চনাতেই সুস্থ হয়ে উঠবে সাপ। এই চিন্তাভাবনাতেই অসুস্থ সাপকে পুজো করলেন গ্রামবাসীরা। আলিপুরদুয়ারে প্রকট কুসংস্কারের ছায়া। খবর জানাজানি হতেই বনদপ্তরের কর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। তবে অসুস্থ সাপকে উদ্ধারে বাধা পান তাঁরা। গ্রামবাসীদের বিক্ষোভে রীতিমতো পিছু হটে যান বনকর্মীরা। বেশ কিছুক্ষণ পর পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের ধস্তাধস্তিতে সাপটিকে উদ্ধার করা যায়। আপাতত চিকিৎসা চলছে সাপটির। সুস্থ হলেই ওই সাপটিকে ছেড়ে দেওয়া হবে জঙ্গলে।

বুধবার বিকালের দিকে একটি সাপকে অসুস্থ অবস্থায় বনের মধ্যে পড়ে থাকতে দেখেন কর্মীরা। গ্রামবাসীরা বিষধর ওই সাপটিকে উদ্ধার করেন। লোকমুখে প্রচার হয়ে যায় ওই সাপটি আদতে ভগবানের দূত। মা মনসা ভেবেই তাকে পুজার্চনা করতে শুরু করেন স্থানীয়রা। উদ্ধারের সময়ই অসুস্থ হয়ে পড়েছিল সাপটি। তার উপর আবারও পুজার্চনার চোটে আরও অসুস্থ হয়ে পড়ে সাপটি। খবর পান বনকর্মীরা। তাই তড়িঘড়ি ওই বিষধর সরীসৃপটিকে উদ্ধারে ঘটনাস্থলে ছুটে যান বনকর্মীরা। তবে তাতে বাধা দেন স্থানীয়রা। পুজার্চনা শেষ হওয়ার আগে সাপকে ছাড়া যাবে না বলেই সাফ জানিয়ে দেন তাঁরা। বাধ্য হয়ে স্থানীয়দের বিক্ষোভে পিছু হঠেন বনকর্মীরা। ফিরে যান তাঁরা।

[আরও পড়ুন: ভরসা দিলীপের বচন! গোল্ড লোন চাইতে গরু নিয়ে হাজির কৃষক]

বৃহস্পতিবার সকালে ফের ঘটনাস্থলে যান বনকর্মীরা। তবে এদিন সকালের ছবিটাও ছিল একইরকম। আবার সাপ উদ্ধারে গিয়ে বাধা পান তাঁরা। এবার ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিশাল পুলিশবাহিনী। বেশ কিছুক্ষণ গ্রামবাসীরা পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখায়। পরে যদিও পুলিশি তৎপরতায় বিক্ষোভকারীদের ঘটনাস্থল থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। সাপটিকে উদ্ধার করেন বনকর্মীরা। জলদাপাড়া ডিএফও বলেন, “প্রথমদিন সাপটিকে উদ্ধার করতে পারেননি বনকর্মীরা। তবে পরেরদিন আমরা অসুস্থ সাপটিকে উদ্ধার করি। আপাতত সাপটির চিকিৎসা চলছে। সাপটির আপাতত চিকিৎসা চলছে। সুস্থ হলেই জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হবে।”  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং