২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ডোমজুড়ে রাজীবকে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান, রক্ষীদের লাঠিচার্জের জেরে চরম উত্তেজনা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 21, 2021 3:12 pm|    Updated: March 21, 2021 4:29 pm

An Images

ফাইল ছবি

অরিজিৎ গুপ্ত ও সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়: ডোমজুড়ের বাঁকড়ায় রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট প্রচার ঘিরে চরম উত্তেজনা ছড়াল। রবিবার বাঁকড়া ফাঁড়ি, জাপানি গেট, রাজীবপল্লি গ্যাস গোডাউন, জুগনু ক্লাবের সামনে দিয়ে দলীয় কর্মীদের নিয়ে প্রচারে বেরিয়েছিলেন ডোমজুড়ের বিজেপি প্রার্থী। সেখানে রাজীবকে কালো পতাকা দেখায় তৃণমূল কর্মী-সমর্থকরা। ওঠে ‘গো ব্যাক’ স্লোগানও। অভিযোগ, সেই সময়ই তাঁদের উপর লাঠিচার্জ করেন রাজীবের নিরাপত্তারক্ষীরা। এমনকী মহিলাদের উপরও গায়ে হাত তোলা হয় বলে অভিযোগ। এমন ঘটনাতেই এলাকাজুড়ে ছড়ায় চাঞ্চল্য। তবে রাজীবের দাবি, তৃণমূল কর্মীদের প্রতিবাদ থেকে ইট ছোঁড়া হয়। তার পালটা হিসেবেই বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেন নিরাপত্তারক্ষীরা।

রাজীব বলেন, “আজ যা হল, সেটা বাংলার শিক্ষা-সংস্কৃতি নয়। যে কোনও রাজনৈতিক দল নিজেদের কর্মসূচি পালন করতেই পারে। কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস যেভাবে সব মিছিল আটকাচ্ছে, আগামিদিনে জনতাই তার উত্তর দেবে। যারা রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গিয়েছে, ক্ষমতা হারানোর ভয় পাচ্ছে, যারা ভাবছে জনসমর্থন কমে গিয়েছে, তারাই এসব কাজ করছে।” তিনি এও বলেন, শান্তিপূর্ণভাবে কোনও মিছিল হলে লাঠিচার্জ হয় না। তৃণমূলকর্মীরা ভিড় থেকে ইট ছুঁড়েছিল। সেই জন্যই তাদের আটকানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ক্ষমতায় ফিরলে রাজ্যের কৃষকদের বছরে ১০ হাজার টাকা, মোদির কিষাণনিধির পালটা অভিষেকের]

উল্লেখ্য, সপ্তাহখানেক আগেই ডোমজুড় থেকে রাতে ফেরার সময় তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েছিলেন রাজীব। সেদিনও তাঁকে কালো পতাকা দেখানো হয়েছিল। সেবারও তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়া রাজীবের নিরাপত্তারক্ষীদের উপর লাঠিচার্জের অভিযোগ তোলেন বিক্ষোভকারীরা। ফলে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল গোটা এলাকা। এমনকী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ডোমজুড় থানাও ঘেরা করা হয়েছিল। যদিও সেবার কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি রাজীব।

এদিকে, প্রচারে বেরিয়ে প্রায় একই পরিস্থিতির সম্মুখীন জিতেন্দ্র তিওয়ারিও। তৃণমূলের বিক্ষোভের জেরে প্রচার বন্ধ করে এলাকা থেকে ফিরে যেতে বাধ্য হলেন বিজেপি প্রার্থী। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটে পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার লাউদোহার বনগ্রাম এলাকায়। প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর গতকালই প্রথম বিধানসভা কেন্দ্র এলাকায় আসেন জিতেন্দ্র। লাউদোহার মাঝিপাড়ায় দলের নির্বাচনী কার্যালয়ে কর্মীদের সঙ্গে পরিচয়পর্ব সেরে পাড়ি দেন বনগ্রামের উদ্দেশে। স্থানীয় ধর্মরাজ মন্দিরে প্রণাম করে দলীয় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে এলাকায় বের হন ভোট প্রচারে। সেই সময় এলাকায় তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তথা জিতেন্দ্র তিওয়ারির একসময়ের অনুগত ‘সেনাপতি’ সুজিত মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে মিছিল চলছিল। ওই মিছিল থেকেই জিতেন্দ্রকে কালো পতাকা দেখানোর পাশাপাশি ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দিতে থাকে তৃণমূল সমর্থকরা। মুহূর্তে এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে উত্তেজনা। জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে ‘বেইমান-বিশ্বাসঘাতক’ বলে কটূক্তি করে তৃণমূল সমর্থকরা। এমনকী জিতেন্দ্রকে এলাকা ছাড়তে হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেয় তারা। ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি সামাল দেয় পাণ্ডবেশ্বর থানার পুলিশবাহিনী।

[আরও পড়ুন: ‘আমি গাধা, বারবার ঠকে যাই’, কাঁথি উত্তরের সভায় আবেগপ্রবণ মমতা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement