BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের ভারতসেরা বাংলা, গণ অভিযোগ ব্যবস্থায় স্কচ ফাউন্ডেশনের সর্বোচ্চ পুরস্কার মমতা প্রশাসনের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 31, 2020 9:50 pm|    Updated: July 31, 2020 9:55 pm

An Images

সন্দীপ চক্রবর্তী: রাজ্যের সাফল্যের মুকুটে আরও একটি পালক।
আবারও সেরা বাংলা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) গত বছর ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে যে গণ-অভিযোগ ব্যবস্থার সূচনা করেছিলেন, সেই ‘ই সমাধান’ এবার স্কচ ফাউন্ডেশনের সর্বোচ্চ পুরস্কার জিতল। দিল্লির অনুষ্ঠানে বাংলার জন্য ঘোষিত হল প্ল্যাটিনাম পুরস্কার। কোনও ক্ষেত্রে সেরা পুরস্কার হিসেবেই এটি বিবেচিত হয়।

নবান্নের এই অভিনব কার্যপদ্ধতির জন্য দিল্লি থেকে ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্ল্যাটিনাম আওয়ার্ড প্রাপ্তির কথা জানানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরকে। প্রকল্পটির নিয়ন্ত্রণ ও সমাধান করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকেই। এই পদ্ধতি সবে এক বছর আগে চালু হয়েছে। তবে এর মধ্যেই ৮.১৬ লক্ষ অভিযোগ জমা পড়েছিল। এর মধ্যে ৯৫ শতাংশের বেশি সমাধান করে ফেলেছে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে একদিনে করোনার বলি ৪৫ জন, মোট সংক্রমিতের সংখ্যা পেরল ৭০ হাজার]

দেশে বিভিন্ন সরকারের কাজের ক্ষেত্রে স্কচ ফাউন্ডেশন-এর (Skotch Foundation) পুরস্কারের স্বীকৃতির মূল্য রয়েছে। এবছর ৪ হাজারের বেশি মনোনয়ন জমা পড়েছিল। সব মিলিয়ে দশটি সিলভার, তিনটি গোল্ড আর একটি প্ল্যাটিনাম পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। আর সেই একটি সর্বোচ্চ পুরস্কারই এসেছে বাংলার ঝুলিতে। বৃহস্পতিবার স্কচ সামিট এই ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্যের অভিনব প্রকল্পের প্রশংসা করে বলা হয়েছে যে, কার্যকরী ম্যানেজমেন্ট ও মনিটরিংয়ের মাধ্যমে সুরাহা পেয়েছেন বহু মানুষ। উল্লেখ্য, যাঁরা মুখ্যমন্ত্রীকে নানা অভিযোগ জানিয়ে চিঠি লিখেছেন বা ই-মেল করেছেন, তার অন্তত ৯৫ শতাংশ ক্ষেত্রে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে নবান্ন সূত্রে জানানো হয়েছে। জন অভিযোগ সিস্টেমের এক বছর পূর্তিতে এই প্রসঙ্গে তথ্য জানায় নবান্ন। এর আগে ২০১৪ সালে আবগারি দফতরের ই-আবগারি ব্যবস্থা স্কচ ফাউন্ডেশনের প্ল্যাটিনাম পুরস্কার পেয়েছিল।

[আরও পড়ুন: ২ বিজেপি কর্মীর মৃত্যুতে সিবিআই তদন্তের দাবি, শাহের দরবারে সৌমিত্র ও নিশীথ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement