BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত ৩,৬০০, অনেকটা কমল RT-PCR টেস্টের খরচ

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 27, 2022 7:22 pm|    Updated: January 27, 2022 7:36 pm

West Bengal reports 3,608 new corona cases and 36 deaths in last 24 hours | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে বাংলা। নতুন বছরে কড়া বিধিনিষেধ জারি করে অনেকটাই কমেছে সংক্রমণ। একলাফে বেশ খানিকটা কমল অ্যাকটিভ কেসও। তবে এখনও চিন্তায় রাখছে রাজ্যের মৃত্যুর হার। উদ্বেগ বাড়াচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনার কোভিড গ্রাফ। তবে এর মধ্যেই স্বস্তির খবর দিল রাজ্য সরকার। জানানো হল, এখন থেকে আরটিপিসিআর টেস্টে খরচ হবে অনেকটাই কম।  

বৃহস্পতিবার রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত ৩৬০৮ জন। যার মধ্যে শহর কলকাতাতেই সংক্রমিত ৪২৩ জন। তবে সংক্রমণ ও মৃত্যুর নিরিখে এদিন তিলোত্তমাকে পিছনে ফেলে দিয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। সেখানে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৫২৪ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১১ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। হাওড়া ও হুগলিতে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত যথাক্রমে ১২২ ও ১৩৩ জন। উত্তরের জেলা জলপাইগুড়ি একদিনে সংক্রমিত ৩২২ জন। ফলে রাজ্যে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হল ১৯ লক্ষ ৮২ হাজার ৮৬২ জন। বর্তমানে রাজ্যের পজিটিভিটি রেট ৯.০২ শতাংশ। 

[আরও পড়ুন: আচমকা বোমা বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল গঙ্গার ঘাট, হালিশহরে এক কিশোরের মৃত্যু, আহত কয়েকজন]

এদিকে একদিনে ভাইরাসের বলি ৩৬ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ২০ হাজার ৪৮১ জনের মৃত্যু হয়েছে কোভিড-১৯-এ। যার মধ্যে শুধুমাত্র উত্তর ২৪ পরগনাতেই মৃত্যু হয়েছে ১৪ জনের। কলকাতায় প্রাণ হারিয়েছেন ৮ জন।

তবে করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে আশার আলো দেখাচ্ছেন কোভিডজয়ীরা। গত ২৪ ঘণ্টাতেই যেমন সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৫,২১৬ জন। এ নিয়ে মোট ১৯ লক্ষ ৬ হাজার ৬৫৬ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে সুস্থতার হার ৯৬.১৬ শতাংশ। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন ৫৫ হাজার ৭২৫ জন। করোনা রোগী চিহ্নিত করতে চলছে টেস্টিংও। রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪০ হাজার ১৯ জনের। নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে, আগে আরটি-পিসিআর টেস্টের জন্য ৯৫০ টাকা খরচ হত। এবার তা কমে ৫০০ টাকা করা হল। করোনার উপসর্গ থাকলে যাতে টেস্টিং করাতে পিছপা না হন সাধারণ মানুষ, সেই কারণেই এই উদ্যোগ।

[আরও পড়ুন: টানাপোড়েন অব্যাহত বিজেপিতে, দায়িত্ব পেয়েই উত্তর কলকাতার সহ-সভাপতি পদে ইস্তফা নেত্রীর]  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে