BREAKING NEWS

১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

২৪ ঘণ্টায় টেস্টিং কমায় রাজ্যে কমল করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, নিম্নমুখী সুস্থতার হার

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 22, 2021 7:31 pm|    Updated: March 22, 2021 7:49 pm

West Bengal reports more 368 COVID-19 cases in last 24 hours | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের বিভিন্ন রাজ্যে আগের তুলনায় অনেকটাই কমেছে করোনা টেস্টিং। দিন কয়েক আগেই এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। সোমবার সেই ছবিটাই ধরা পড়ল রাজ্যের করোনা বুলেটিনে। গতকালের তুলনায় অনেকখানি কমল করোনা টেস্টিং। আর তার জেরেই কমল আক্রান্তের সংখ্যাও। নিম্নমুখী সুস্থতার হারও।

এদিন স্বাস্থ্যদপ্তরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার (Corona virus) কবলে পড়েছেন ৩৬৮ জন। যার মধ্যে শহর কলকাতায় একদিকে আক্রান্ত ১২৮ জন। প্রত্যাশিতভাবেই দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। একদিনে সেখানে ৭৯ জনের শরীরে মারণ ভাইরাসের হদিশ মিলেছে। ফলে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা হল ৫ লক্ষ ৮০ হাজার ৯৯৯ জন। উদ্বেগ বাড়িয়ে ফের বাড়ল রাজ্যের অ্যাকটিভ কেসও। বর্তমানে করোনায় চিকিৎসাধীন ৩ হাজার ৫৭৪। এই ভাইরাস এখনও কেড়ে চলেছে মানুষের প্রাণও। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় করোনার বলি দু’জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে কোভিড-১৯-এ প্রাণ হারিয়েছেন ১০ হাজার ৩০৮ জন। 

[আরও পড়ুন: ‘মা-বোনেদের দু’পায়ের ভরসাতেই লড়ব’, অসুস্থতা সত্ত্বেও হার মানতে নারাজ মমতা]

তবে করোনা ভাইরাস সঙ্গে লড়াইয়ে ভরসা জোগাচ্ছেন কোভিডজয়ীরাই। গত ২৪ ঘণ্টাতেই যেমন সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৯৬ জন। এ নিয়ে মোট ৫ লক্ষ ৬৭ হাজার ১১৭ জন করোনাজয়ী। সুস্থতার হার অবশ্য গতকালের তুলনায় সামান্য কম। বর্তমানে ৯৭.৬১ শতাংশ মানুষ মারণ ভাইরাস থেকে মুক্ত। দেশজুড়ে টিকাকরণের পাশাপাশি চলছে টেস্টিংও। ব্যতিক্রমী নয় বাংলায়। কিন্তু স্বাস্থ্যদপ্তরের বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা অনেকটাই কমেছে। একদিনে করোনা টেস্ট হয়েছে ১৬ হাজার ৮ জনের। এখনও পর্যন্ত মোট ৮৯ লক্ষ ৭৪ হাজার ৬৬৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে রাজ্যে।

গত কয়েকদিন ধরেই দেশজুড়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। এমন পরিস্থিতিতে প্রত্যেককে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। সংক্রমণ ঠেকাতে এখনও মাস্ক পরা কিংবা স্যানিটাইজার ব্যবহারের মতো অভ্যাসগুলি চালু রাখার কথাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

[আরও পড়ুন: কর্মসংস্থানের চাহিদা মেটাতে সক্ষম যুবশ্রী? ভোটবাক্সে কতটা সুবিধা পাবে তৃণমূল?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে