১৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ঘাসফুল না পদ্ম, এবারের ভোটে কার দখলে বালুরঘাট? শুরু হিসেবনিকেশ

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 18, 2019 8:45 pm|    Updated: April 18, 2019 8:45 pm

Which party is going to win in Balurghat? Speculation emerged

রাজা দাস, বালুরঘাট: বালুরঘাট লোকসভা আসনটি দখল করতে এবার বাম ভোট ব্যাংকের দিকে তাকিয়ে প্রধান দুই প্রতিপক্ষ বিজেপি এবং তৃণমূল। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের নিরিখে বালুরঘাট লোকসভায় এবার লড়াই ঘাসফুল বনাম পদ্মফুল। স্বাভাবিকভাবেই ২০১৪ লোকসভায় দ্বিতীয় স্থানে থাকা বামেদের জায়গা এবার নেমে তৃতীয় হবে বলেই মনে করছে সকলে।

পরিসংখ্যান বলছে, গতবার বালুরঘাট লোকসভা আসনে তৃণমূল প্রার্থী ভোট পেয়েছিলেন ৪ লক্ষ ৯ হাজার ৬৪১টি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বামেরা পায় ৩ লক্ষ ২ হাজার ৬৭৭টি ভোট। সেবার তৃতীয় স্থানে থাকা বিজেপি ভোট পায় ২ লক্ষ ২৪ হাজার ১৪টি এবং চতুর্থ স্থানে থাকা কংগ্রেসের ভোট ছিল ৮০ হাজার ৭১৫টি। কিন্তু বামেদের সেই ভোট কমতে থাকে অকল্পনীয়ভাবে। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে জেলা পরিষদ, পঞ্চায়েত সমিতি তো নয়ই, একটি গ্রাম পঞ্চায়েতও বামেরা দখল করতে পারেনি এককভাবে। তবে বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েত এককভাবে দখল করে বিজেপি। স্বাভাবিকভাবেই এবার লোকসভা ভোটে বামেদের সেই ভোট কতটা কেটে নিজেদের দিকে যাবে, তার দিকেই তাকিয়ে বিজেপি। আবার বামেরা আগেরবারের লোকসভা ভোট কতটা ধরে রাখবে সেদিকে নজর তৃণমূলের।

[ আরও পড়ুন: ভোটপ্রচারের মঞ্চে গান শোনালেন নুসরত, দেখুন ভিডিও ]

পাশাপাশি কংগ্রেসের সুইং করা ভোট কার দিকে যাবে তা নিয়ে গোদের উপড় বিষফোঁড়া তৈরি হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির। কেননা গতবার লোকসভায় হেভিওয়েট ওমপ্রকাশ মিশ্র প্রার্থী হওয়াতেই ৮০ হাজার ৭১৫ ভোট কংগ্রেসের ঝুলিতে এসেছিল বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। সেকথা অকপটে স্বীকার করেছেন জেলা কংগ্রেসের কার্যকরী সভাপতি অঞ্জন চৌধুরী। স্বাভাবিকভাবে কংগ্রেসের ৫০ শতাংশ ভোট সুইং করবে বলে ধারণা তৃণমূল ও বিজেপির। সেই ভোট কার ঝুলিতে যাবে, তাও যথেষ্ট চিন্তায় রেখেছে ঘাসফুল ও গেরুয়া শিবিরকে।

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপি সভাপতি শুভেন্দু সরকার বলেন, “বামেরা খুব বেশি হলে ১ লক্ষ ভোট টানবে। কেননা এখানে বামেরা নিশ্চিহ্নর দিকে। গত পঞ্চায়েত নির্বাচন সেটাই প্রমাণ করেছে। সব ভোট বিজেপিতে আসবে।” দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, “বামেদের ভোট একটা ফ্যাক্টর। তবে তৃণমূলের নিজস্ব ভোট ব্যাংক সেই ফ্যাক্টরকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে। এখানে আমাদের প্রার্থী সর্বোচ্চ ভোটে লিড দেবে।” এখন বালুরঘাট কার দখলে যাবে,তা জানতে ২৩ মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে৷

[ আরও পড়ুন: হাতির ভয়ে সকালেই বুথে, ভোটের পর চা-বিস্কুট-খিচুড়ি পেয়ে খুশি বনবসতিবাসী ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement