BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যকে আর মুসুর ডাল পাঠাতে পারবে না নাফেড, জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সংস্থা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 10, 2020 6:40 pm|    Updated: May 10, 2020 6:40 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ভাল চাল-খারাপ চাল নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্যের দ্বন্দ্বের পর এবার নতুন বিতর্ক। রাজ্যকে আর মুসুর ডাল পাঠাতে পারবে না বলে জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সংস্থা নাফেড। মুসুরের বদলে দাবিমতো মুগ ডালও পাঠানো সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে তারা। কারণ হিসাবে তারা জানিয়েছে, মুগ ডাল মিলে ভাঙানোর পর্যাপ্ত কর্মী নেই। কেন্দ্র প্রথমে বলেছিল, ছোলার ডাল বা অরহর ডাল পাঠানো হবে। রাজ্য বলেছিল, এ রাজ্যের বেশিরভাগ মানুষ মুসুর বা মুগ ডাল খায়। তাই পাঠালে সেই ডাল দিক।

উল্লেখ্য, প্রথমে কয়েক দফায় সেই ডাল দিলেও আর তারা তা দিতে পারবে না বলে জানিয়েছে। প্রথম মাসে ১৪ হাজার মেট্রিক টন ডাল পাঠানোর কথা ছিল। কিন্তু প্রথমে ৪, পরে ৩ ও আরও পরে আরও ৩ হাজার মেট্রিক টন ডাল নাফেড পাঠিয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ অন্ন যোজনায় প্রতি মাসে মাথা পিছু ৫ কেজি চাল ও ১ কেজি ডাল দেওয়ার কথা ছিল কেন্দ্রের। তিন মাসের জন্য বিনামূল্যে এই চাল ডাল দেওয়ার কথা। কিন্তু কেন্দ্রের পাঠানো চালের গুণগত মান নিয়ে রাজ্য অসন্তোষ প্রকাশ করেছে। খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কিছুদিন আগে ডালের কথা কেন্দ্রকে জানিয়েছিলেন। কিন্তু প্রতিশ্রুতি দিয়েও এখন বেঁকে বসেছে কেন্দ্রীয় সংস্থা নাফেড। যা নিয়ে তরজা চরমে।

[আরও পড়ুন: রেলের দাবি মিথ্যা ও বিভ্রান্তিকর, পালটা টুইটে অভিযোগ রাজ্যের স্বরাষ্ট্রদপ্তরের]

এই প্রসঙ্গে কিছুদিন আগে কেন্দ্রীয় সরকারকে নিশানা করে তোপ দাগেন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি পূরণে ব‍্যর্থ। এইসময় মুখ‍্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়ানো উচিত ছিল। তা না করে বিজেপি-বাম রাজনীতি করছে। নোংরা রাজনীতি করছে।’ তাঁর অভিযোগ, ‘রাজ‍্যের মুসুর ডালের মাসিক চাহিদা ১৪,৪৫০ মেট্রিক টন। সেখানে নাফেড এনেছে ৪,২২৯ মেট্রিক টন।’ এবার আর মুসুর ডাল পাঠাতে পারবে না বেল জানিয়েই দিল কেন্দ্রীয় সংস্থা নাফেড।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement