BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চিকিৎসা মিলবে, কিন্তু পড়শি রাজ্যের কোভিড কেস বাংলায় কাউন্ট হবে না: মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 25, 2020 3:43 pm|    Updated: August 25, 2020 3:48 pm

Won't count corona victims of neighboring states: Mamata Banerjee

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারচুয়াল প্রশাসনিক বৈঠক থেকে মঙ্গলবার পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমানের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। প্রশ্ন করলেন, “কেন এত বেশি সংক্রমণ?” পাশাপাশি সাফ জানিয়ে দিলেন, পড়শি রাজ্যের করোনা রোগীরা চিকিৎসা পাবেন ঠিকই, কিন্তু বাংলার কেস হিসেবে কাউন্ট করা হবে না তাঁদের।

মার্চ থেকেই করোনা (Coronavirus) আতঙ্কে কাঁটা রাজ্যবাসী। ইতিমধ্যেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৪০ হাজারের গণ্ডি পেরিয়েছে। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার ভারচুয়াল প্রশাসনিক বৈঠক থেকে বর্ধমানের অবস্থা নিয়ে উৎকন্ঠা প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রশ্ন করেন, “পূর্ব বর্ধমানে এত বেশি সংক্রমণ কেন?” পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার ওসি-সহ ১৬ জন পুলিশ আধিকারিক ও কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয় নিয়ে আলোচনার সময় পরামর্শ দিলেন পুলিশ কর্মীদের বারাক ভাগ করে দেওয়ার। যাতে সামাজিক দূরত্ব মানা সহজ হয়। তবে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন সেখানকার সুস্থতার হার নিয়ে। 

[আরও পড়ুন: জানলা ভেঙে বধূর পেটে লাথি, ৩ মাসের শিশুকেও খুনের চেষ্টার অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে]

এরপরই পশ্চিম বর্ধমানের ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের পিছনে শিল্প-কারখানার ভূমিকা রয়েছে কি না, তা নিয়ে আলোচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী। এপ্রসঙ্গে জেলাশাসক জানান, ওই জেলার কোভিড হাসপাতালগুলিতে (Covid Hospital) ভিনরাজ্যের বহু রোগীও আসছেন। তখনই মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মানবিকতার খাতিরে ভিনরাজ্যের রোগীদের অবশ্যই চিকিৎসা দেওয়া হবে। কিন্তু তাঁদের বাংলার কেসের মধ্যে কাউন্ট করা যাবে না।” প্রত্যেকের আসল ঠিকানা হাসপাতালের নথিতে যাতে থাকে, সে বিষয়ে নজর দেওয়ার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, শেষ ১৫ দিনে করোনা সংক্রমণ একধাক্কায় অনেকখানি বেড়েছে পূর্ব বর্ধমানে। একদিনে খণ্ডঘোষ থানার ওসি-সহ ১৬ জন পুলিশ আধিকারিক ও কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছে, স্বাভাবিকভাবেই যা উদ্বেগ বাড়িয়েছে জেলাবাসীর।  

[আরও পড়ুন: সাক্ষাৎ ঈশ্বর, সিজারের পর সদ্যোজাতকে বাঁচাতে ডাক্তার নিজেই ছুটলেন হাসপাতালে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে