BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ন্যূনতম স্নাতক হলেই মিলতে পারে রাজ্য সরকারি চাকরি, জেনে নিন আবেদনের খুঁটিনাটি

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 16, 2020 3:46 pm|    Updated: October 16, 2020 3:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একাধিক শূন্যপদে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করল বীরভূম জেলা স্বাস্থ্য এবং পরিবার কল্যাণ সমিতি। আপাতত চুক্তিভিত্তিতে কর্মী নিয়োগ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীকে আগামী ১০ নভেম্বরের মধ্যে আবেদন করতে হবে। আবেদনের আগে জেনে নিন সমস্ত খুঁটিনাটি।

আইসিটিসি ল্যাব টেকনিশিয়ান
শূন্যপদ: ২টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. আগ্রহী প্রার্থীকে স্নাতক হতে হবে।
২. এক বছরের অভিজ্ঞতা-সহ মেডিক্যাল ল্যাবরেটরি টেকনোলজিতে স্নাতক অথবা ২বছরের অভিজ্ঞতা-সহ ডিপ্লোমা হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
৩. কম্পিউটারে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৬০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৩ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

ব্লাড ব্যাংক ল্যাব টেকনিশিয়ান
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. ন্যূনতম উচ্চমাধ্যমিক পাশ হতেই হবে।
২. ২ বছরের অভিজ্ঞতা-সহ মেডিক্যাল ল্যাবরেটরি টেকনোলজিতে ডিগ্রি অথবা ৩ বছরের অভিজ্ঞতা-সহ ডিপ্লোমা হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
৩. কম্পিউটারে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৬০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৩ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

আইসিটিসি কাউন্সেলর
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. সাইকোলজি/সোশ্যাল ওয়ার্ক/সোশিওলজি/অ্যানথ্রোপলজি/হিউম্যান ডেভেলপমেন্টে স্নাতকোত্তর/ডিপ্লোমা থাকতে হবে। অথবা নার্সিংয়ে ন্যূনতম এক বছরের স্নাতকোত্তর/ডিপ্লোমা হতে হবে। কিংবা এইচআইভি/এইডস রোগীদের নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
২. কম্পিউটারে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৬০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।

ডিস্ট্রিক্ট কনসালট্যান্ট – কোয়ালিটি অ্যাসিওরেন্স
শূন্যপদ: ১টি
শিক্ষাগত যোগ্যতা:
এমবিবিএস/ডেন্টাল/আয়ুশ/ নার্সিংয়ে স্নাতক-সহ হসপিটাল ম্যানেজমেন্ট/হেল্থ ম্যানেজমেন্টে স্নাতকোত্তর হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
অভিজ্ঞতা:
১. পাবলিক হেল্থ/হসপিটাল অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে ২ বছরের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
২. কোয়ালিটি সিস্টেমে অভিজ্ঞতা থাকা প্রয়োজন।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

[আরও পড়ুন: মিলতে পারে মোটা বেতনের রাজ্য সরকারি চাকরির সুযোগ, জেনে নিন আবেদনের খুঁটিনাটি]

প্রোগ্রাম অ্যাসোসিয়েট
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনে ১ বছরের ডিপ্লোমা/সার্টিকেট কোর্স-সহ স্নাতক হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. এমএস ওয়ার্ড, এমএস এক্সেল, এমএস পাওয়ার পয়েন্ট, এমএস অ্যাকসেস এবং ইন্টারনেট সংক্রান্ত জ্ঞান থাকা আবশ্যক।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বীরভূমের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৩ হাজার ৫৬০ টাকা বেতন পাবেন।

সাইক্রিয়াট্রিক সোশ্যাল ওয়ার্কার
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
সোশ্যাল ওয়ার্কে স্নাতকোত্তর, সাইক্রিয়াটিক সোশ্যাল ওয়ার্কে এম ফিল করা থাকলে এই শূন্যপদে আবেদন করা যাবে।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বীরভূমের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৮ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
সাইকোলজি/ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিতে স্নাতকোত্তর হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
আবেদনকারীর অভিজ্ঞতা:
ন্যূনতম ১ বছরের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ৩০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

সাইকোলজিস্ট
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
সাইকোলজি স্নাতকোত্তর-সহ ৩ মাসের প্রশিক্ষণ অথবা অভিজ্ঞতা থাকলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৮ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

সাইকিয়াট্রিক নার্স
শূন্যপদ: ১টি
শিক্ষাগত যোগ্যতা:
সাইকিয়াট্রিক নার্সিংয়ে বিএসসি অথবা এমএসসি করা থাকলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ২৫ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

কমিউনিটি নার্স
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. নার্সিং কাউন্সিল অথবা পশ্চিমবঙ্গ নার্সিং কাউন্সিলে অন্তর্ভুক্ত যে কোনও জায়গা থেকে জিএনএম কোর্স করা থাকতে হবে।
২. সাইক্রিয়াট্রিক নার্সিংয়ের জ্ঞান থাকতে হবে।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৫ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

মেডিক্যাল রেকর্ড কিপার
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. যেকোনও শাখায় স্নাতক হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. ফিনান্সিয়াল অ্যাকাউন্টি অথবা কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনে কোর্স করা প্রার্থী অগ্রগণ্য।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

[আরও পড়ুন: দিতে হবে না ইন্টারভিউ! কেন্দ্রের পথে হেঁটে সরকারি চাকরির নিয়োগে আমূল বদল ২৩ রাজ্যে]

সোশ্যাল ওয়ার্কার
শূন্যপদ: ১টি
শিক্ষাগত যোগ্যতা:
১. স্নাতক হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশনে ১ বছরের ডিপ্লোমা থাকা বাঞ্ছনীয়।
আবেদনকারীকে অবশ্যই বীরভূমের বাসিন্দা হতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৩ হাজার ৮০০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

ল্যাবরেটরি টেকনিশিয়ান ফর ব্লাড ব্যাংক
শূন্যপদ: ২টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. ফিজিক্স, কেমিষ্ট্রি, অঙ্ক, বায়োলজিক্যাল সায়েন্স-সহ উচ্চমাধ্যমিক পাশ হলে এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারবেন।
২. মেডিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ডিগ্রি অথবা ডিপ্লোমা করা থাকলে অথবা মেডিক্যাল ল্যাবরেটরি টেকনোলজিতে স্নাতকোত্তর হলেও এই শূন্যপদে আবেদন করা যাবে।
৩. কম্পিউটারে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৭ হাজার ২২০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

সিনিয়র টিবি ল্যাবরেটরি সুপারভাইজার
শূন্যপদ: ২টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. আবেদনকারীকে স্নাতক হতেই হবে।
২. মেডিক্যাল ল্যাবরেটরিতে ডিপ্লোমা করা থাকলে এই শূন্যপদে আবেদন করা যাবে।
৩. কম্পিউটারে কাজের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
আবেদনকারীর ড্রাইভিং লাইসেন্স-সহ বাইক থাকা আবশ্যক।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ১৭ হাজার ৭২০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

মেডিক্যাল টেকনোলজিস্ট (ক্রিটিক্যাল কেয়ার)
শূন্যপদ: ৫টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. আবেদনকারীকে অবশ্যই উচ্চমাধ্যমিক পাশ হতে হবে।
২. ক্রিটিক্যাল কেয়ার টেকনোলজিতে ২ বছরের ডিপ্লোমা কোর্স করা থাকতে হবে।
বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের ভিত্তিতে ২১ থেকে সর্বোচ্চ ৩৯ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
এই শূন্যপদে নিযুক্ত প্রার্থী প্রতি মাসে ২০ হাজার টাকা বেতন পাবেন।

আবেদনের পদ্ধতি:
আবেদনপত্র আগামী ১০ নভেম্বর বিকেল ৪টের মধ্যে নির্দিষ্ট ঠিকানায় পাঠাতে হবে।

ঠিকানাটি হল:
অফিস অফ দ্য চিফ মেডিক্যাল অফিসার অফ হেল্থ (ডিপিএমইউ সেকশন), নিউ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ বিল্ডিং, ওল্ড আউটডোর ক্যাম্পাস, পোস্ট অফিস: সিউড়ি, জেলা বীরভূম, পিন: ৭৩১১০১।

আবেদনের ফি:
সাধারণ বা জেনারেল প্রার্থীদের আবেদনের ফি হিসাবে ১০০ টাকা জমা দিতে হবে। অন্যান্য সংরক্ষিত শ্রেণির প্রার্থীদের ফি ৫০ টাকা।

প্রার্থী নির্বাচনের পদ্ধতি:
লিখিত পরীক্ষার মাধ্যমে প্রার্থী নির্বাচন করা হবে।

আবেদন সংক্রান্ত যেকোনও তথ্যের জন্য http://www.birbhum.gov.in এই ওয়েবসাইটে নজর রাখতে হবে।

[আরও পড়ুন: অষ্টম শ্রেণি পাশেই ডাকবিভাগে মিলতে পারে চাকরি, সুযোগ হাতছাড়া করবেন না]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement