২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভাল বেতনের সরকারি চাকরি চান? আপনার জন্য রইল আবেদনের যাবতীয় খুঁটিনাটি

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 14, 2020 7:35 pm|    Updated: June 14, 2020 7:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপনি কি চাকরি খুঁজছেন? লকডাউনের মাঝে আপনার জন্য রয়েছে সুখবর। কারণ, কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করল ঝাড়গ্রাম জেলা স্বাস্থ্য এবং পরিবার কল্যাণ সমিতি। মেডিক্যাল অফিসার, সিনিয়র ট্রিটমেন্ট সুপারভাইজার, স্টাফ নার্স, ডিস্ট্রিক্ট কনসালট্যান্ট কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স, অ্যাকাউন্ট্যান্ট, লোয়ার ডিভিশন ক্লার্ক এবং গ্রুপ ডি পদে কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছে। আপাতত চুক্তি ভিত্তিতে কর্মী নিয়োগ করা হবে। আগ্রহী প্রার্থীদের আগামী ২১ জুনের মধ্যে আবেদন করতে হবে।

জেনারেল ডিউটি মেডিক্যাল অফিসার
শূন্যপদ: ১০টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. এমবিবিএস ডিগ্রি এবং ন্যূনতম এক বছরের ইন্টার্নশিপ করা থাকলে এই শূন্যপদে আবেদন করা যেতে পারে।
২. ওয়েস্ট বেঙ্গল মেডিক্যাল কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন থাকতে হবে।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৬২ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

সিনিয়র ট্রিটমেন্ট সুপারভাইজার
শূন্যপদ: ৩টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. আবেদনকারীকে অবশ্যই স্নাতক/স্যানিটার ইনস্পেকশন কোর্সের ডিগ্রি থাকতেই হবে।
২. বাইক চালানো জানতে হবে এবং তাঁর ড্রাইভিং লাইসেন্স থাকাও বাধ্যতামূলক।
৩. কম্পিউটারের ২ মাসের সার্টিফিকেট কোর্স করা থাকতেই হবে।
৪. ঝাড়গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা হলেই ভাল হয়।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে ন্যূনতম ২২ থেকে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ১৭ হাজার ৭২০ টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

[আরও পড়ুন: তথ্যপ্রযুক্তি কর্মীদের জন্য সুখবর, তাঁদের কথা ভেবে বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

স্টাফ নার্স (এনইউএইচএম)
শূন্যপদ: ২টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. ইন্ডিয়ান নার্সিং কাউন্সিলের জিএনএম কোর্স করা বাধ্যতামূলক।
২. স্থানীয় ভাষা সম্পর্কে দক্ষ হতে হবে।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ১৭ হাজার ২২০ টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

ডিস্ট্রিক্ট কনসালট্যান্ট কোয়ালিটি অ্যাসিওরেন্স
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
এমবিবিএস/ডেন্টাল/আয়ুশ/হসপিটাল ম্যানেজমেন্টে স্নাতকোত্তর ও নার্সিং স্নাতক/হেলথ ম্যানেজমেন্ট করা প্রার্থীরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
অভিজ্ঞতা:
হসপিটার অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে ২ বছরের অভিজ্ঞতা থাকা বাঞ্ছনীয়।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৪০ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ৪০ হাজার টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

অ্যাকাউন্ট্যান্ট (আয়ুশ)
শূন্যপদ: ১টি
আবেদনকারীর যোগ্যতা:
১. অবসরপ্রাপ্ত রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. কম্পিউটারে জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়।
৩. শারীরিক এবং মানসিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়া প্রয়োজন।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৬২ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ১২ হাজার টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

লোয়ার ডিভিশন ক্লার্ক (আয়ুশ)
শূন্যপদ: ১টি
১. অবসরপ্রাপ্ত রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. কম্পিউটারে জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়।
৩. শারীরিক এবং মানসিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়া প্রয়োজন।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৬২ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ১০ হাজার টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

[আরও পড়ুন: লকডাউনের বাজারেও ১০০ শতাংশ বোনাস ও কর্মী নিয়োগ, অভূতপূর্ব সিদ্ধান্ত কলকাতার এই সংস্থার]

গ্রুপ ডি (আয়ুশ)
শূন্যপদ: ২টি
১. অবসরপ্রাপ্ত রাজ্য সরকারি কর্মীরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
২. কম্পিউটারে জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়।
৩. শারীরিক এবং মানসিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়া প্রয়োজন।
আবেদনকারীর বয়সসীমা:
১ জানুয়ারি, ২০২০ তারিখের নিরিখে সর্বোচ্চ ৬২ বছর বয়সিরা এই শূন্যপদে আবেদন করতে পারেন।
বেতন:
প্রতি মাসে ৮ হাজার টাকা করে পাবেন নিযুক্ত প্রার্থীরা।

প্রার্থী নির্বাচনের পদ্ধতি:
শিক্ষাগত যোগ্যতা, লিখিত, কম্পিউটারভিত্তিক পরীক্ষা এবং ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে কর্মী নিয়োগ করা হবে।

আবেদনের পদ্ধতি:
https://www.wbhealth.gov.in এই ওয়েবসাইটে আবেদন সংক্রান্ত যাবতীয় খুঁটিনাটি তথ্য পাওয়া যাবে। আগামী ২১ জুনের মধ্যে আবেদন করতে ভুলবেন না। আবেদনের ফি ১০০ টাকা। তবে সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীদের আবেদনের ফি মাত্র ৫০ টাকা।

[আরও পড়ুন: লকডাউন পরবর্তী পরিস্থিতিতে কর্মক্ষেত্রে টিকে থাকতে চান? বদলে ফেলুন নিজেকে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement