BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কোচি বিমানবন্দরে ধৃত হাসপাতাল থেকে পলাতক করোনা আক্রান্ত মার্কিন দম্পতি

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 14, 2020 3:35 pm|    Updated: March 14, 2020 3:35 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাস শরীরে নিয়ে কেরল হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ এক মার্কিন দম্পতি। তাঁদের দেহে করোনা ভাইরাসের নমুনা মেলায় হাসপাতালে তাদের কোয়ান্টাইনে রাখা হয়। তবে শুক্রবার হঠাৎ তাঁরা হাসপাতাল থেকে নিখোঁজ হয়ে যাওয়ার পর, তাঁদের বিমানবন্দর থেকে খুঁজে পাওয়া যায়। কেরলের আলাপ্পুঝা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন এই মার্কিন দম্পতি।

মার্কিন দম্পতির করোনা পরীক্ষা করা হলে তাদের শরীর থেকে করোনা ভাইরাস (COVID-19)-এর উপস্থিতি মেলে। শুক্রবার তাঁরা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে কিছু না জানিয়ে বেরিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাদের খোঁজ শুরু করে। এরপর শুক্রবার গভীর রাতে কোচি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে তাদের খোঁজ পায় পুলিশ। বর্তমানে তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তিরুবনন্তপুরমে একজন ইটালীয় ব্যক্তি-সহ তিনজনের শরীরে করোনার নমুনা মেলে। এপর্যন্ত ভারতের মধ্যে সবথেকে বেশি করোনা আক্রান্তের সংখ্যা কেরলে। কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন জানান, “ইটালির ব্যক্তির শরীরে করোনার নমুনা পাওয়ার পর তাঁকে ও বাকি ২ জনকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।” বিদেশ থেকে দেশে ফেরার পর সকল ভারতীয়দের একটি নথি তৈরি করা হয়েছে, যাতে তারা কখন কোন সময় দেশে ফিরছেন তা নথিভুক্ত থাকে। প্রয়োজনে তাঁদের মধ্যে কারওর করোনার উপসর্গ দেখা দিলে সরকারের তরফ থেকে তাদের খুঁজে বের করা সম্ভব হবে। ইতিমধ্যেই ইটালি থেকে ঘুরে আসার পর কোচি বিমানবন্দরে আটক করা হয়েছে একজন স্থানীয় বিধায়ককে।

[আরও পড়ুন: করোনার জের, ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধ সব ধরনের পরিবহণ]

কেরলের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে মোট ২৭০টি আইসোলেশন ওয়ার্ড খোলা হয়েছে। প্রায় চার হাজার মানুষকে এই কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এছাড়াও করোনা আতঙ্কে বেশকিছু মানুষ নিজেদের বাড়িতে গৃহহীন হয়ে রয়েছেন। করোনার পরীক্ষা করতে কেরলে ৩টি ধাপে পরীক্ষা করা হয়। এই ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে বাঁচতে কেরলে গত সপ্তাহেই  পেক্ষাগৃহগুলি বন্ধ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি করোনার জেরে স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্টানগুলি আপাতত স্থগিত রাখতেও বলা হয়।   এপর্যন্ত গোটা বিশ্বে প্রায় ১১৬টি দেশের মানুষ করোনার সংক্রমণে।

[আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্কে সোমবার থেকে বন্ধ রাজ্যের সমস্ত স্কুল-কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement