১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মাস্ক পরেই সাত পাক, বিয়েতে নিমন্ত্রিতদেরও হ্যান্ড স্যানিটাইজার উপহার

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 20, 2020 12:15 pm|    Updated: March 20, 2020 12:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা দেশ। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার হাত ধরাধরি করে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছে। মাস্ক ব্যবহারের হুজুগে বাজারে চলছে দেদার কালোবাজারি। এবার সেই মাস্ক পরেই সাত পাকে বাঁধা পরলেন মহারাষ্ট্রের এক দম্পতি। বিয়ের অনুষ্ঠানে হাজিন জনা পঞ্চাশেক অতিথিদের জন্যও মাস্কের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। ব্যবস্থা ছিল হ্যান্ড স্যানিটাইজারেরও। এমনকী অনুষ্ঠান বাড়িতে রান্না নয়, ব্যবস্থা করা হয়েছিল প্যাকেজড খাবারের। তবে মহামারির সময় কেন ৫০ জনের জমায়েত করা হল, কেন এমন পরিস্থিতিতে বিয়ের অনুষ্ঠান করা হল, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

ভারতে ক্রমশ বাড়ছে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিমধ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে এক বিদেশি পর্যটক-সহ মোট পাঁচজনের। একের পর এক সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মাস্ক, হ্যানড স্যানিটাইজার ব্যবহারের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বর হতে নিষেধ করছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। জমায়েত আটকাতে মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে নভি মুম্বইয়ে ভাশি এলাকায় বিয়ে সারলেন তরুণ-তরুণী।

[আরও পড়ুন : ‘রাত ১২.৩০টাতেও কেন নির্ভয়ার খোঁজ নেননি মা?’, ধর্ষকদের আইনজীবী এপি সিংয়ের মন্তব্যে নিন্দার ঝড়]

তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠানে হাজদির ছিলেন অনন্ত ৫০ জন নিমন্ত্রিত। প্রত্যেকের সুরক্ষার কথা ভেবেওই দম্পতি মাস্ক এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা করেছিলেন। নিজেরাও সমস্তরকম সর্তকতা নিয়েছিলেন। এমনকী বিয়ের সমস্ত আনুষ্ঠানিক কাজকর্ম মাস্ক পরেই সেরেছেন তাঁরা। তারপরেও এত লোকের জমায়েত ঘিরে উঠছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন : আস্থা ভোটের আগেই কি পদত্যাগ করছেন কমল নাথ? জল্পনা তুঙ্গে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement