৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আক্রান্ত বিধায়কের সংস্পর্শে আসার জের, কোয়ারেন্টাইনে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: April 15, 2020 3:45 pm|    Updated: April 15, 2020 3:51 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সংক্রমণের আশঙ্কা ছিল আগেই। তাই কোনওরকম ঝুঁকি না নিয়ে নিজেই আইসোলেশনে চলে গেলেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি (Vijay Rupani)। এক সপ্তাহ আগে একটি বৈঠকে যোগ দেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী। সেই বৈঠকে হাজির ছিলেন করোনায় আক্রান্ত কংগ্রেসের বিধায়ক ও কংগ্রেসের কাউন্সিলর। মঙ্গলবার তাদের শরীরে করোনার উপসর্গ ধরা পড়ায় আজ আইসোলেশনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী।

দেশজোড়া লকডাউনেও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। আতঙ্কে ঘরবন্দি থাকলেও কমছে না সংক্রমণের শঙ্কা। এক সপ্তাহ আগে বৈঠকে থাকা কংগ্রেস বিধায়ক ও কংগ্রেস কাউন্সিলরের শরীরে করোনার নমুনা পাওয়ায় আতঙ্কিত হয়ে পড়েন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি। তাঁর শরীরে সংক্রমণের কোনও চিহ্ন না থাকলেও বুধবার করোনা পরীক্ষা করান তিনি। আগামী এক সপ্তাহের সমস্ত বৈঠক বাতিল করে তিনি আইসোলেশনে চলে যান। আইসোলেশন থেকেই ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যাবতীয় কাজ করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। মঙ্গলবার বিকেলে জানা যায় কংগ্রেস বিধায়ক ইমরান খান্ডেলওয়াল করোনায় পজিটিভ। তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। খান্ডেলওয়াল-সহ সেদিনের বৈঠকে বাকি যে কংগ্রেস বিধায়করা ছিলেন তাঁদের শরীরেও করোনার নমুনা রয়েছে কিনা তা জানতে পরীক্ষা করা হবে। এমনকি তিনি যে কজনের সঙ্গে দেকাকরেছেন তাদের সকলকেই আইসোলেশনে নিয়ে আসার কথা ভাবা হয়েছে।

[আরও পড়ুন:লকডাউনে বন্ধ সড়ক পরিবহণ, পণ্য বোঝাই ট্রাক নিয়ে যাবে মালগাড়ি]

অন্যদিকে গুজরাটের আহমেদাবাদকে হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। এখানের সংক্রমিত এলাকাগুলিকে চিহ্নিত করে তা সিল করে দেওয়া হয়েছে। শুরু হয়েছে র‍্যাপিড ও র‍্যান্ডাম টেস্ট। ইতিমধ্যেই আহমেদাবাদের শাহপুর, কালুপুর, জামালপুর-খাদিয়া, গাইকওয়ার হাবেলি, দারিয়াপুরকে সিল করে দেওয়া হয়েছে। এমনকি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কারফিউ জারি করা হয়েছে। লকডাউনের বাজারেও ক্রমে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রশাসনের তরফ থেকে সতর্ক করা হয়েছে। কিছু এলাকা নির্দিষ্ট করে সেখানকার লোকেদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার পরামর্শ দিচ্ছেন।

[আরও পড়ুন:ফের নিশানায় স্বাস্থ্যকর্মীরা, অ্যাম্বুল্যান্স লক্ষ্য করে ছোঁড়া হল পাথর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement