৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৯ আষাঢ়  ১৪২৬  সোমবার ২৪ জুন ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেদারনাথের পবিত্র গুহায় গেরুয়া বসনে ধ্যানরত মোদি। শ্বেতশুভ্র চাদর, পিঠে গোঁজা বালিশ, বন্ধ চোখে চশমা নিয়ে ধ্যানে মগ্ন মোদিজি.. এমনভাবেই দেখা গিয়েছিল প্রধানমন্ত্রীকে সপ্তম দফা লোকসভা ভোটগ্রহণের ঠিক আগের দিন। অত্যাধুনিক সুবিধাযুক্ত ওই গুহায় মোদির ধ্যান নিয়ে ট্রোল, মিমেরও অন্ত নেই। দুর্গম তীর্থক্ষেত্রে এরকম ধরনের একটি গুহা যে থাকতে পারে, তা কেউ বোধহয় জানতেনই না। অ্যাটাচ শৌচালয়, ওয়াই-ফাই, জানলা, একটি টেলিফোন ও সিসিটিভি ক্যামেরা-সমৃদ্ধ ওই গুহায় মোদির ধ্যান নিয়ে দিন ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গিয়েছে অগনিত মিম। এবার তাঁর মধ্যে নয়া সংযোজন টুইঙ্কল খান্নার পোস্ট। আরেকটু পরিষ্কার করে বললে, সোশ্যাল মিডিয়ায় ধ্যানমগ্ন ছবি দিয়ে ট্রোল করেছেন মোদিকে। 

[আরও পড়ুন:  কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় ফের আইনি নোটিস সোনালি-সইফ-টাবুকে]

রবিবার অন্তিম দফা ভোটের পাশাপাশি ধ্যানমগ্ন মোদির ছবি ছিল আলোচ্য বিষয়। এদিন সন্ধ্যায় সবাই যখন এক্সিট পোল আলোচনায় ব্যস্ত, টুইঙ্কল খান্না ঘোষণা করলেন, তিনি এক অভিনব ভাবনার ওয়ার্কশপ শুরু করছেন। কীসের ওয়ার্কশপ? ‘মেডিটেশন ফটোগ্রাফি’-র। তিনি নাকি শেখাবেন মেডিটেশন ফটোগ্রাফিতে কীভাবে পোজ দিতে হয়। কমলা রঙের একটি জন্তুর স্ট্যাচুর সামনে চোখে কালো রঙের রোদচশমা পড়ে ঘাসের উপর ধ্যানরত পোজে বসে রয়েছেন টুইঙ্কল। ছবিতে এমনভাবেই দেখা গিয়েছে অক্ষয়-ঘরনিকে।

ধ্যানরত পোজের ওই ছবি টুইটারে শেয়ার করেছেন খাসা এক ক্যাপশন দিয়ে। লিখেছেন, “সুধীগণ, বিগত কয়েক দিনে এত স্পিরিচুয়াল ছবি দেখে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি সিরিজ ধরে আমি একটা ওয়ার্কশপ শুরু করাব। ‘মেডিটেশন ফটোগ্রাফিতে কোন দিক থেকে, কীভাবে পোজ দিতে হয়।’ আমার মনে হয় ওয়েডিং ফটোগ্রাফির পর এটা বেশ হিট হবে। দয়া করে আপনারাও যোগ দিন।” আসলে, তিনি মজাচ্ছলে কেদারনাথের গুহায় মোদির ধ্যানরত ছবিকেই ঠুকেছেন বলে মনে করছেন নেটিজেনদের একাংশ।

[আরও পড়ুন:  হলুদ শাড়ি, হাতে ইভিএম, ‘বিগ বস’ প্রতিযোগী হতে চলেছেন হার্টথ্রব রিনা?]

প্রসঙ্গত, শনিবার অন্তিম দফা ভোটের আগের দিন কেদারনাথ সফরে গিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। পাঁচ বছরের প্রধানমন্ত্রিত্বে এর আগেও বার কয়েক গিয়েছিলেন কেদারনাথের মতো দুর্গম তীর্থক্ষেত্রে। আর এবার ভোট পরীক্ষায় ভাগ্য নির্ধারণের আগে ফের কেদারনাথের শরণাপন্ন হয়েছিলেন মোদি। রবিবার শেষ দফার ভোটের দিন বদ্রীনাথ যাত্রাও সেরেছেন। তবে, অন্তিম দফা ভোটের আগের দিন মোদির এহেন কাণ্ডকারখানা যে নেটিজেনদের ব্যঙ্গাত্মক মিমের বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছে, তা বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং