১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ 

Advertisement

বড়পর্দায় এবার অজিত দোভালের ভূমিকায় অক্ষয় কুমার

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 6, 2019 2:50 pm|    Updated: August 6, 2019 4:29 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদিভক্ত বা মোদিপন্থী হিসেবে একাধিকবার অক্ষয় কুমারের নাম উঠে এসেছে। এবার কেন্দ্রীয় সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের জুতোতে পা গলাতে চলেছেন তিনি। না, অজিতের আসনে বসছেন না অক্ষয়। বরং, বড়পর্দায় মোদি সরকারের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার ভূমিকায় দেখা যাবে তাঁকে। আরেকটু পরিষ্কার করে বললে, বড়পর্দায় অজিতের চরিত্রায়ন এবং তাঁর কর্মকাণ্ডকে তুলে ধরতে চলেছেন বলিউডের খিলাড়ি কুমার।

[আরও পড়ুন:  ‘স্বৈরতন্ত্র চালাচ্ছে মোদি সরকার’, কাশ্মীর ইস্যুতে সরব কমল হাসান]

বর্তমানে অক্ষয় কুমার যে বলিউডের ব্যস্ততম অভিনেতা। ‘সূর্যবংশী’, ‘লক্ষ্মীবম্ব’, ‘বচ্চন পাণ্ডে’ এবং ‘ইক্কা’র মতো চার চারটে ছবির কাজ চলছে। মুক্তির অপেক্ষায় ‘মিশন মঙ্গল’, ‘হাউসফুল ৪’ ও ‘গুড নিউজ’। শুটিং এবং প্রচারের জন্য তাঁর ব্যস্ততা এখন তুঙ্গে। এর মাঝেই শোনা গেল, নতুন ছবির চিত্রনাট্যে বেজায় মজেছেন অক্ষয়। নেপথ্যে নীরজ পাণ্ডে। এবারও ‘স্পেশ্যাল ২৬’, ‘বেবি’র মতো দেশপ্রেমের কাহিনি ঠাঁই পেয়েছে অক্ষয়ের নতুন ছবির চিত্রনাট্যে। সঙ্গে রয়েছে থ্রিলারের ছোঁয়াও। ২০১৩ সাল। প্রথমবার নীরজের সঙ্গে জুটি বেঁধে অক্ষয় অভিনীত ‘স্পেশ্যাল ২৬’ ঝড় তুলেছিল বক্স অফিসে। বছর দুয়েক বাদে এই জুটির ‘বেবি’ও বেশ সাড়া ফেলেছিল। এরপর ২০১৬ সালে অক্ষয় অভিনীত ‘রুস্তম’ এবং সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গিকে চুরমার করে দেওয়া ছবি ‘টয়লেট: এক প্রেম কথা’র প্রযোজনা করেন নীরজ পাণ্ডে। এবার ফের নতুন ছবির কাজে হাত দিলেন অক্ষয়-নীরজ জুটি।

কেন্দ্রীয় সরকারের পঞ্চম জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের কর্মজীবন রুপোলি পর্দায় নিয়ে আসতে চলেছেন নীরজ।

বিশ্বস্ত সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় সরকারের পঞ্চম জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের কর্মজীবন রুপোলি পর্দায় নিয়ে আসতে চলেছেন নীরজ। আর অজিতের চরিত্রের জন্য অক্ষয়কেই বেছে নিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি এও জানা গিয়েছে যে, এবারও নীরজের ছবির বিষয়বস্তু হয়ে উঠবে দেশপ্রেম। চিত্রনাট্যের খসড়া প্রস্তুত। যা ইতিমধ্যেই অক্ষয়ের কাছে পৌঁছে গিয়েছে। দোভালের কর্মজীবন নিয়ে রিসার্চের কাজে পরিচালক নীরজ আপাতত বেজায় ব্যস্ত। খুব শিগিগিরিই চিত্রনাট্যের চূড়ান্ত পর্যায়ের কাজ সারা হবে। তবে শুটিং এখনই শুরু হচ্ছে না। নীরজ প্রথমে অজয় দেবগণের সঙ্গে ‘চাণক্য’র কাজ শেষ করবেন। তারপর এই ছবির কাজে হাত দেবেন। ততদিনে অক্ষয়ের হাতে থাকা বেশ কিছু ছবির কাজও শেষ হয়ে যাবে। তবে অফিসিয়ালি ঘোষণার আগে পাকাপাকিভাবে চিত্রনাট্যের কাজ সারতে চান নীরজের টিম।

[আরও পড়ুন:  ‘মোদি-শাহকে মন থেকে ধন্যবাদ’, ৩৭০ ধারার বিলুপ্তিতে খুশি কাশ্মীরি পণ্ডিত ভরত কল]

প্রসঙ্গত, সোমবারই সংসদে ৩৭০ ধারা বাতিলের সমর্থনে মোদি সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছিলেন অক্ষয় কুমার। যার জন্যে নেটদুনিয়ায় ঘোর সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে তাঁকে। কেউ কেউ তো আবার অভিনেতাকে কটাক্ষ করে একফ্রেমে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে তাঁর ছবি শেয়ার করে মিমও বানিয়ে ফেলেছেন। “তুমি শুধু একের পর এক সিনেমা করে যাও, চিত্রনাট্যের জোগান আমি তোমাকে দেব”, মোদি এবং অক্ষয় প্রসঙ্গে এমন মন্তব্য করে ট্রোলও করেছেন অনেকে। প্রসঙ্গত, সরকারের কোনও সিদ্ধান্ত বা পদক্ষেপের সমর্থনে মুখ খোলার জন্য হোক কিংবা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে সাক্ষাৎকার প্রসঙ্গে, একাধিকবার সমালোচনার মুখে পড়েছেন বলিউডের খিলাড়ি কুমার। মোদি সরকার তোষণ করে কিংবা মোদিকে তৈলমর্দন করে শীর্ষে ওঠার চেষ্টা করছেন অক্ষয়, এমন কটূক্তিও শুনতে হয়ছে তাঁকে। এবার রুপোলি পর্দায় অজিত দোভালের চরিত্র চিত্রায়ন নিয়েও নেটিজেনদের একাংশের খোরাক হয়েছেন তিনি। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement