১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তির অপেক্ষায় শাহিদ কাপুর অভিনীত ‘কবীর সিং’। চলছে জোরদার ছবির প্রচার। আর তার মাঝেই ছবির হিরো জড়ালেন বিতর্কে। শাহিদের এক ভিডিওকে ঘিরে ওয়েব দুনিয়ায় শুরু হয়েছে তুমুল উত্তেজনা। সম্প্রতি, ‘কবীর সিং’ অভিনেতা মুম্বই এয়ারপোর্টে গিয়েছিলেন। বিমানবন্দরে প্রবেশের আগে গাড়ি থেকে নেমে গাড়ির দরজা বন্ধ না করেই এয়ারপোর্টে ঢোকেন তিনি। ব্যস্ত বিমানবন্দরে গাড়ির খোলা দরজা, যে কারও অসুবিধে করতে পারে, সেদিকে নজরই নেই শাহিদের। আর অভিনেতার এই কাণ্ডকারখানাকে মোবাইল ক্যামেরাবন্দি করে জনৈক ব্যক্তি ছাড়লেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তারপর থেকেই শাহিদের এই ভিডিওকে ঘিরে শুরু হয়েছে শোরগোল। নেটিজেনদের ট্রোল হওয়ার কোপ থেকেও রেহাই পাননি শাহিদ।

[আরও পড়ুন:  প্রথম বিবাহবার্ষিকীতে কী পরিকল্পনা রাজ-শুভশ্রীর?]

এই ঘটনাকে অনেকে শাহিদের ঔদ্ধত্যের আখ্যা দিয়েছেন। গাড়ি থেকে নেমে দরজা বন্ধ না করলে যে কারও অসুবিধে হতে পারে সেটা কি অভিনেতার মাথায় ঢোকেনি? এমন প্রশ্নও তুলেছেন অনেকেই। বলেছেন, এটা বড় সেলেব হওয়ার অভ্যেস ছাড়া আর কিছুই নয়! দম্ভে মাটিতে যেন পা পড়ে না তাঁর.. গাড়ি থেকে নেমে দরজাটা বন্ধ করা প্রাথমিক ভদ্রতার মধ্যে পরে, যেটা উনি জানেন না। কর্মচারীদের সম্মান করতে শিখুন… এমন অজস্র কটূক্তি করা হয়েছে শাহিদের উদ্দেশে।

[আরও পড়ুন স্মৃতিভ্রষ্ট যুবক-যুবতীর প্রেমের গল্প নিয়ে আসছে ‘অতিথি’]

কেউ কেউ তো আবার বলছেন, ছবি মুক্তির আগে ওটাও বোধহয় একটা পাবলিসিটি স্টান্ট-ই ছিল। কবীর সিংয়ের দাম্ভিক চরিত্র থেকে তিনি বোধহয় বেরোতেই পারেননি, এমনটাই শোনা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত, সদ্য মুক্তি পেয়েছে ‘কবীর সিং‘-এর টিজার। ছবিটি পরিচালনা করেছেন সন্দীপ ভাঙ্গা। তেলুগু ছবি ‘অর্জুন রেড্ডি’র রিমেক এটি। তেলুগু ছবিটির পরিচালকও তিনিই। চিত্রনাট্যও সন্দীপ ভাঙ্গারই লেখা। ড্রাগের নেশায় বুদ হওয়া ডাক্তারি ছাত্রের কাহিনি নিয়ে লেখা হয়েছে ছবির প্লট। ২১ জুন মুক্তি পাবে ‘কবীর সিং’। শাহিদের প্রেমিকার চরিত্রে অভিনয় করেছেন কিয়ারা আডবানী।  দেখুন সেই ভিডিও।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

#shahidkapoor today at the airport

A post shared by Viral Bhayani (@viralbhayani) on

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং