৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্তের শ্রদ্ধাজ্ঞাপনে তৃণমূলের লোগো কেন? অভিষেককে তোপ বাবুলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 16, 2020 5:06 pm|    Updated: June 16, 2020 5:36 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিল্পী তো শিল্পীই। তাঁর সমস্ত পক্ষপাত, সমর্থন, কাজ তো কেবলই শিল্প নিয়ে। ডান-বাম, লাল-সবুজ-গেরুয়া – এসবের সঙ্গে তো তাঁর আলাদাভাবে বিশেষ যোগ থাকার কথা নয়। যোগ থাকেনি জীবনে। যোগ হয়ে গেল জীবনকাল পেরিয়ে। বিজেপি-তৃণমূল তরজায় জড়িয়ে পড়লেন সুশান্ত সিং রাজপুত। বা অন্যভাবে বললে অভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে নিজেদের অজান্তে রাজনীতির লড়াইয়ে নেমে পড়লেন দুই শিবিরের দুই নেতা – অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, বাবুল সুপ্রিয়। সুশান্তের প্রতি শোকজ্ঞাপনে তৃণমূলের লোগো ব্যবহার করেছেন অভিষেক। ফেসবুকে তাঁর এই পোস্ট নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে আসানসোলের মিউজিশিয়ানদের পাশে বাবুল, আর্থিক অনুদানের জন্য তৈরি হবে ফান্ড]

সুশান্ত সিং রাজপুতের আত্মঘাতী হওয়া এতটাই আকস্মিক যে তার রেশ কাটিয়ে উঠতে পারছেন না অনেকেই। অভিনয় জগতের বাইরে তিনি এতটাই জনপ্রিয় ছিলেন যে বিভিন্ন মহল থেকেই শ্রদ্ধা জানানো হয়েছে তাঁকে। তৃণমূলের যুব নেতা তথা সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের ফেসবুক পোস্টে সুশান্তের ছবি দিয়ে শোকজ্ঞাপন করেছেন। ছবির উপরে রয়েছে তৃণমূলের লোগো, নিচে অভিষেকের নিজের ছবি। আর বিতর্ক সেখানেই।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় তৃণমূল যুব সভাপতির এই পোস্ট নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। বাবুল নিজের ফেসবুক পোস্টে বাংলায় লিখেছেন, ”এটা কি করলে অভিষেক !!
সুশান্তকে শেষ শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালে, খুব ভালো কথা, কিন্তু তাতে তৃণমূলের লোগো কেন?? তোমার নিজের ছবিই বা কেন?” কোনও শিল্পীর সঙ্গে রাজনীতিকে এভাবে জুড়ে দেওয়া যে অপ্রত্যাশিত, সেই সংক্রান্ত বিস্তারিত লেখাও লিখেছেন বাবুল।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বাবুল সুপ্রিয়র মধ্যে রাজনৈতিক তরজা নতুন কিছু নয়। বিভিন্ন ইস্যুতেই একে অপরকে তোপ দেগে সোশ্যাল মিডিয়ায় আগেও আলোচনার শিরোনামে এসেছিলেন দুই শিবিরের দুই সেনাপতি। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু যেন না চাইতেই সেই লড়াই ফের উসকে দিল। 

[আরও পড়ুন: সংক্রমণের আতঙ্ক, করোনায় মৃতদের শেষবারের মতোও দেখতে যাচ্ছেন না প্রিয়জনেরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement