BREAKING NEWS

১৩ ফাল্গুন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘নিজের ধর্মকে আঘাত করতে চাইনি’, বিতর্কিত টুইট ডিলিট করে সাফাই অভিনেত্রী সায়নীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 17, 2021 9:27 pm|    Updated: January 17, 2021 10:02 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: তথাগত রায় এবং সায়নী ঘোষের টুইট যুদ্ধ ইতিমধ্যেই আইনি মোড় নিয়েছে। অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে রবীন্দ্র সরোবর (Rabindra Sarobar) থানায় দায়ের করা হয়েছে এফআইআর। আর তারই মাঝে বিতর্কিত ওই টুইটের দায় এড়ালেন সায়নী। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করতে চাননি বলেই দাবি তাঁর।

সম্প্রতি একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানে অংশ নেন সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)। বাঙালিয়ানা নিয়ে মন্তব্য করেন। ওই অনুষ্ঠানে তাঁর মন্তব্য নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। তারই মাঝে আজ থেকে প্রায় বছর পাঁচেক আগের অর্থাৎ ২০১৫ সালের সায়নী ঘোষের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে করা একটি টুইট আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় বড় প্রাসঙ্গিক হয়ে পড়ে। সায়নীর টুইটে দেখা গিয়েছে, শিবলিঙ্গের মাথায় কন্ডোম পরাচ্ছেন এইডস সচেতনতার বিজ্ঞাপনের ম্যাসকট ‘বুলাদি’। ওই ছবিতে লেখা ‘বুলাদির শিবরাত্রি’। আর পোস্টের ক্যাপশনে লেখা, “এর থেকে বেশি কার্যকরী হতে পারেন না ঈশ্বর।”

Shivratri

[আরও পড়ুন: ফের তাল কাটল ভারতীয় ধ্রুপদী সংগীত জগতের, প্রয়াত উস্তাদ গুলাম মুস্তাফা খান]

এই টুইটটি হিন্দু ধর্মের পবিত্রতা নষ্ট করেছে বলেই অভিযোগ করেন বিজেপি নেতা তথাগত রায় (Tathagata Roy)। টুইট যুদ্ধের পরই শুরু হয় আইনি যুদ্ধ। সায়নী ঘোষের বিরুদ্ধে রবীন্দ্র সরোবর (Rabindra Sarobar) থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মেঘালয়ের প্রাক্তন রাজ্যপাল। অভিযোগপত্রের ছবি টুইটও করেন তিনি।

তবে আসরে নামেন স্বয়ং অভিনেত্রী। নিজের ধর্মকে কোনওভাবে আঘাত করতে চাননি বলেই দাবি করেন সায়নী। তিনি দাবি করেন, ২০১৫ সালে টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছিল। সেই সময় এই ছবিটি পোস্ট করা হয়েছে। পরে যখন নজরে আসে তখন তিনি টুইটটি ডিলিট করেন। তীব্র নিন্দাও করেন বলেই দাবি সায়নীর। তবে এই টুইটটির জন্য তাঁকে যেভাবে অপমান করা হয়েছে, সে কারণে দুঃখপ্রকাশও করেন অভিনেত্রী।

[আরও পড়ুন: হিন্দু ধর্মকে অপমান! এবার ওয়েব সিরিজ ‘তাণ্ডব’-এর বিরুদ্ধে অভিযােগ দায়ের BJP বিধায়কের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement