২৯ চৈত্র  ১৪২৭  সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সক্রিয় রাজনীতিতে নাম লেখাবেন? ব্রিগেড থেকে মুখ খুললেন শ্রীলেখা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: February 28, 2021 3:52 pm|    Updated: February 28, 2021 7:24 pm

An Images

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত: বরাবরই তিনি বাম সমর্থক। নিজের রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়ে কখনওই রাখঢাক করেননি। রবিবাসরীয় ব্রিগেডে তাই সকাল সকালই পৌঁছে গিয়েছিলেন শ্রীলেখা মিত্র। তাঁর সাজেও ছিল বিশেষ ‘রাজনৈতিক’ চমক। তবে কি সক্রিয় রাজনীতিতে আসতে চান তিনি? ব্রিগেডে দাঁড়িয়ে সে উত্তরও দিলেন টলিপাড়ার অভিনেত্রী।

দলবদলের আবহে বারবারই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হতে দেখা গিয়েছে শ্রীলেখাকে (Sreelekha Mitra)। কখনও তৃণমূলকে বাক্যবাণে বিদ্ধ করেছেন তো কখনও বিজেপিকে একহাত নিয়েছেন। রাজনীতির মঞ্চে তারকাদের সমাবেশকেও কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। আবার ব্রিগেডে যোগ দেওয়ার আগে বামেদের প্রচারের হাতিয়ার হিসেবে ‘টুম্পা’ গানের ব্যবহার নিয়েও যুক্তি দেওয়ার চেষ্টা করেছেন তিনি। সবমিলিয়ে একুশের ভোটের আগে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, তবে কি রুদ্রনীল ঘোষ কিংবা সায়নী ঘোষের মতো তিনিও কোনও রাজনৈতিক দলে নাম লেখাবেন? এদিন অবশ্য সেই জল্পনায় কার্যত জল ঢেলে দিলেন শ্রীলেখা। বলেন, “অনেকেই শিরদাঁড়া সোজা রাখতে পারছে না। কিন্তু আমাদের ক্ষমতার লোভ, টিকিটের লোভ কিংবা অর্থের লোভ নেই। আমি রাজনীতিতে যোগ দিতে এখানে আসিনি। একজন সাধারণ মানুষ হিসেবেই এসেছি। মনে হয়েছে, এই সময় এরকম একটা সমাবেশে আসাটা দরকার, তাই এসেছি।”

[আরও পড়ুন: ‘লুঠপাট-জাতপাতের নয়, বাংলায় চাই জনহিতের সরকার’, ব্রিগেড থেকে ‘বদলের’ ডাক ইয়েচুরির]

জোটের প্রার্থী তালিকায় শ্রীলেখার নাম থাকলে কি ভোটের লড়াইয়ে দেখা যাবে তাঁকে? অভিনেত্রীর সাফ উত্তর, “আমি ভোটে লড়তে আসিনি। তবে যাঁরা নির্বাচনী যুদ্ধে নামবেন, আমি অবশ্যই তাঁদের পাশে থাকব।”

এদিন ব্রিগেডে যাওয়ার আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছিলেন শ্রীলেখা। সেখানেই দেখা যায়, তাঁর নেল পলিশে সাদার উপর উজ্জ্বল লাল কাস্তে হাতুড়ি। তাঁর পরনে ছিল সাদা টি-শার্ট। ক্যাপশনে লেখেন, “আমরা তৈরি।”

We are red dddddyyyy

Posted by Sreelekha Mitra on Saturday, 27 February 2021

শ্রীলেখার মতোই স্বতস্ফূর্তভাবে ব্রিগেডের (Brigade Parade ground) মাঠে হাজির হয়েছিলেন পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ও। রাজনীতিতে তারকাদের ‘লাইন’ নিয়ে মুখ খুললেন তিনিও। বলেন, “কোনও মতাদর্শ না থাকলে ব্যক্তিগত উচ্চাকাঙ্ক্ষা তৈরি হয়। আর সেই জায়গা থেকেই লোভ আর ভয়ের জন্ম হয়। তাই হয়তো অনেকেই অনেক দলে যোগ দেন। যদিও এই বিষয়টি তাঁদের নিজেদের সিদ্ধান্ত, এখানে আমি কিছু বলতে পারি না। তবে আমার মতে, নির্দিষ্ট মতাদর্শ থাকলে হঠাৎ করে এক দল থেকে অন্য দলে নাম লেখাতে হয় না।”

ভিডিও: মণিশংকর চৌধুরী

[আরও পড়ুন: ‘মমতাকে জিরো করে দেব’, ব্রিগেড থেকে ‘স্বাধীনতা যুদ্ধ’ জয়ের হুঙ্কার আব্বাসের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement