৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজনীতির ময়দানে বাজিমাতের পর নয়া ইনিংস, জুনেই বিয়ে নুসরতের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 26, 2019 11:08 am|    Updated: May 26, 2019 11:23 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনীতিতে নতুন কেরিয়ার শুরু করেই অভাবনীয় সাফল্য৷ বসিরহাট লোকসভা কেন্দ্র থেকে বিপুল ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বীকে হারিয়েছেন। ভোটের ব্যবধান ৩ লক্ষ ৫০ হাজার ৩৬৯। এহেন ফলফলে যারপরনাই উচ্ছ্বসিত নুসরত জাহান। টলিউড থেকে এবার যাচ্ছেন দিল্লিতে, একেবারে সংসদের অন্দরে৷ তবে এর পাশাপাশি আরও এক সুখবর রয়েছে নুসরতের জীবনে৷ আপাতত তিনি সপ্তম স্বর্গে। কারণ? খুব শিগগিরিই সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন নায়িকা তথা ভাবী তারকা সাংসদ। হাতে সময় নেই। মাত্র আর ক’টা দিন। এরমধ্যেই মেহেন্দি-সংগীতের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে, বলে জানা যাচ্ছে নুসরতের ঘনিষ্ঠ সূত্রে।

[আরও পড়ুন: দেব-পাওলির ‘সাঁঝবাতি’র শুটিং শুরু হচ্ছে খুব শীঘ্রই ]

আগামী মাসে, অর্থাৎ জুনের মাঝামাঝি নুসরতের বিয়ে। জানতে ইচ্ছে করছে তো পাত্রটি কে? নুসরত ঘনিষ্ঠ থেকে ইন্ডাস্ট্রির অন্দরের লোকেরা অনেকেই জানেন নিখিল জৈনের কথা। কলকাতার অন্যতম খ্যাতনামা শিল্পপতিদের মধ্যে একজন নিখিল। কলকাতার ছেলে। এমপি বিড়লা ফাউন্ডেশনে পড়াশোনার পর বিদেশে ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয়ে ম্যানেজমেন্টের কোর্স করেন৷ আপাতত কলকাতাতেই প্রতিষ্ঠিত৷ এই হল ‘পাত্র পরিচয়’। নুসরতের সঙ্গে তাঁর আলাপ কর্মসূত্রেই।

তবে কলকাতায় বিয়ে করছেন না নুসরত। ডেস্টিনেশন ওয়েডিং। দেশের বাইরেই নুসরত এবং নিখিলের চার হাত এক হবে। কোথায়? ঘনিষ্ঠ সূত্র বলছে, ইস্তানবুল৷ যার জন্য হবু দম্পতি ইতিমধ্যেই ইস্তানবুলের এক পাঁচতারা হোটেল বুক করে নিয়েছেন দিন তিনেকের জন্য। বুকিংয়ের তারিখ- জুনের ১৯ থেকে ২১। অর্থাৎ জুনের ১৯ তারিখেই নিকাহ সারছেন নুসরত।

Nusrat

অন্যদিকে, গত দু’মাস ধরে ভোটের প্রস্তুতি, প্রচার, দলের সঙ্গে মিটিং নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন কনে নুসরত। তাই এদিকটা সেভাবে আর খেয়াল করা হয়নি৷ অভিনেত্রীর পার্ক সার্কাসের ব্রড স্ট্রিটের বাড়িতেও এখন ব্যস্ততা তুঙ্গে। হাতে মাত্র আর গোনা কটা দিন। তাই ইতিমধ্যেই পাত্র-পাত্রীর ঘনিষ্ঠ বন্ধু-বান্ধবদের কাছে হোয়াটস্ অ্যাপের মাধ্যম পৌঁছে গিয়েছে নিকাহ-র নিমন্ত্রণপত্র, ফাঁস করেছেন এক নুসরত ঘনিষ্ঠই। ভাবী সাংসদ বেজায় ব্যস্ত। ফোনে ধরতেই, উত্তর আসে- “আমি খুব ব্যস্ত এখন। তাই এসব নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাই না।”

[আরও পড়ুন: ভোট শেষ হতেই ছবির কাজে ফিরলেন দেব]

জল্পনা শুরু হয় নিখিলের এক ফেসবুক পোস্ট ঘিরে। নুসরত জেতার পরই নিখিল নিজের ফেসবুকে এক পোস্ট করেন। যেখানে ভাবী সাংসদের ভোটের ব্যবধান উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলায় তৃণমূল প্রার্থীদের মধ্যে নিঃসন্দেহে নজরকাড়া ব্যবধানে জিতেছে নুসরত। শনিবারই আবার সেই পোস্ট সরিয়ে দেন নিজের পাতা থেকে। আর সন্দেহটা চাগাড় দেয় এখানেই৷ ঘনিষ্ঠসূত্রে খবর, নুসরত-নিখিল অতি শীঘ্রই নতুন জীবন শুরু করতে চলেছেন। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement