২১ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৬ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

‘ভারতীয় বিনোদুনিয়ার জন্যে নতুন যুগের সূচনা’, ‘গুলাবো সিতাবো’র অনলাইন মুক্তি প্রসঙ্গে সুজিত

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 14, 2020 3:10 pm|    Updated: May 14, 2020 3:10 pm

An Images

বিদিশা চট্টোপাধ্যায়: সুজিত সরকার পরিচালিত বহু প্রতিক্ষিত ছবি ‘গুলাবো সিতাবো’ আগামী ১২ জুন মুক্তি পাচ্ছে আমাজন প্রাইম ভিডিওতে। অমিতাভ বচ্চন এবং আয়ুষ্মান খুরানা অভিনীত এই ভিন্নধারার কমেডি ছবি ২০০টি দেশজুড়ে প্রিমিয়ার হওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। COVID-19-এর জেরে দেশজুড়ে যখন লকডাউন, তখন ওটিটি প্ল্যাটফর্মের দিকেই ঝুঁকছেন পরিচালক এবং প্রযোজকরা। ‘গুলাবো সিতাবো’র পাশাপাশি শোনা যাচ্ছে, অক্ষয় কুমার অভিনীত ‘লক্ষ্মী বম্ব’, রাজকুমার রাও অভিনীত ছবি ‘লুডো’, জাহ্নবী কাপুর অভিনীত ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’-সহ আরও বেশ কিছু ছবি নাকি ওয়েব প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাবে।

ওয়েব প্ল্যাটফর্মে ছবিমুক্তি প্রসঙ্গে পরিচালক সুজিত সরকার জানালেন, ‘ভারতীয় বিনোদনের জন্য একটি নতুন যুগের সূচনা হল বলা যেতে পারে। আমি ভীষণ খুশি যে বিশ্বব্যাপী দর্শক আমাদের এই নাটকীয় কৌতুকপূর্ণ ছবি ‘গুলাবো সিতাবো’ দেখতে পাবেন এবং এই ছবিটা উপভোগ করতে পারবেন। ‘গুলাবো সিতাবো’ আদ্যোপান্ত ভিন্ন স্বাদের কমেডি সিনেমা, যা পরিবারের সবার সঙ্গে দেখতে পারবেন দর্শকরা। মিস্টার অমিতাভ বচ্চন এবং আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতা তো সব সময়েই দুর্দান্ত।

এবিষয়ে বিগ বি জানালেন, “‘গুলাবো সিতাবো’ হল এক টুকরো জীবন। সুজিত যখন প্রথমবার আমাকে এই ছবির কথা জানিয়েছিলেন তখন থেকেই আমি আমার চরিত্রটি নিয়ে বেশ আগ্রহী ছিলাম। ক্যারেক্টারের লুক আনতে প্রতিদিন তিন ঘণ্টা মেকআপ করে শটে যেতে হত। এই ছবিতে কাজ করার সময় আমার প্রতিভাবান সহশিল্পী আয়ুষ্মান খুরানার সঙ্গেও দুর্দান্ত সময় কাটিয়েছি। আমরা ছবিতে প্রতিনিয়ত খুনসুটি করেছি। এবং ওর সঙ্গে প্রথমবার কাজ করাও খুবই উপভোগ করেছি। এই পারিবারিক বিনোদনমূলক ছবিটির ভৌগলিক সীমানা ছাড়িয়ে যাওয়ার ক্ষমতা আছে এবং আমরা ‘গুলাবো সিতাবো’কে বিশ্বজুড়ে দর্শকের সামনে আনতে পেরে সন্তুষ্ট।”

[আরও পড়ুন: করোনা নিয়ে ছবি তৈরি করছেন বলিউড পরিচালক আনন্দ গান্ধী, মুখ্য চরিত্রে সুশান্ত!]

অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা, যার ডেবিউ হয়েছিল পরিচালক সুজিত সরকারের ‘ভিকি ডোনার’ ছবি দিয়ে, তিনি প্রায় আট বছর পর আবারও সুজিতের সঙ্গে জুটি বাঁধলেন ‘গুলাবো সিতাবো’র জন্যে। আয়ুষ্মানের মন্তব্য, ‘এই ছবি আমার জন্য খুব স্পেশাল। ভিকি ডোনারের পর আমার মেন্টর সুজিত সরকারের সঙ্গে এটি দ্বিতীয় ছবি। আমি আজ যে জায়গায় তা পরিচালক সুজিত সরকারের কারণেই। আমি খুব খুশি যে তিনি আমাকে তার দর্শন বা ফিলোসফির একটি অংশে স্থান দিয়েছেন এই চরিত্রটির মধ্যে দিয়ে। এছাড়াও ‘গুলাবো সিতাবো’ আমাকে প্রথমবারের জন্য মিস্টার বচ্চনের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার সুযোগ করে দিয়েছে। যা আমার কাছে একেবারে স্বপ্নপূরণের মতোই। অনেকদিন ধরেই ইচ্ছে ছিল অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কাজ করার। আর সুজিতদা সেটারই সুযোগ করে দিয়েছেন। যার জন্যে আমি চিরকাল ওঁর কাছে ঋণী হয়ে থাকব। একজন কিংবদন্তীর সঙ্গে কাজ করা আমার কাছে অত্যন্ত সম্মানের। এবং এই অভিজ্ঞতার পরে একজন অভিনেতা হিসেবে সমৃদ্ধ বোধ করছি। এই ছবির যে বিষয়টি আমার কাছে ভীষণ প্রিয়, তা হল এর সরলতা। একজন বাড়িওয়ালা ও তার ভাড়াটের মধ্যে সম্পর্কের বিভিন্ন মুহূর্ত ‘গুলাবো সিতাবো’কে এক অন্য মাত্রা দিয়েছে। আশা করি, ‘গুলাবো সিতাবো’তে আমার আর বচ্চনজির রসায়ন পছন্দ করবেন দর্শকরা।

[আরও পড়ুন: ‘৩৩ মিনিটের বক্তৃতায় পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে একটা শব্দও নেই’, মোদিকে কটাক্ষ জাভেদ আখতারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement