BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

যোগীর রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগী, বাসের বন্দোবস্ত করলেন অমিতাভ

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 27, 2020 11:27 am|    Updated: May 27, 2020 11:27 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোনু সুদের পর এবার ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর জন্য উদ্যোগ নিলেন অমিতাভ বচ্চন। যোগী আদিত্যনাথ শাসিত উত্তরপ্রদেশের পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে মোট দশটি বাসের ব্যবস্থা করেছেন বিগ বি। আগামীকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার মুম্বইয়ের হাজি আলি থেকে শ্রমিকদের নিয়ে উত্তরপ্রদেশের উদ্দেশে রওনা হবে বাসগুলি।

অমিতাভ বচ্চন অবশ্য এই প্রথম পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন, এমনটা নয়। মে মাসের গোড়ার দিক থেকেই ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের জন্য কাজ করছে বিগ বি’র সংস্থা অমিতাভ বচ্চন কর্পোরেশন লিমিটেড। মুম্বই ছেড়ে যাঁরা নিজেদের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হচ্ছেন, তাদের হাতে এই সংস্থার পক্ষ থেকে তুলে দেওয়া হচ্ছে জলের বোতল এবং শুকনো খাবারের প্যাকেট। একেবারে নিঃশব্দেই পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য কাজ করে চলেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহেই হাজি আলি দরগা, মহিম দরগা, আন্তোপ হিল, ধারাভি, বাবুলনাথ মন্দির-সহ মুম্বইয়ের বেশকিছু এলাকায় দুস্থদের মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার আয়োজন করেছিল অমিতাভ বচ্চন কর্পোরেশন লিমিটেড। এক মাসের জন্য ১০ হাজার পরিবারে রেশন বিলিও করা হয়েছে এই সংস্থার তরফে। কিন্তু অমিতাভ যে পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়েছেন, সেটা এতদিন সবার অলক্ষ্যেই রয়েই গিয়েছিল। তবে সোনু সুদের পর এবার পরিযায়ী শ্রমিকদের সাহায্যের জন্য অমিতাভেরও নাম উঠে এল।  

[আরও পড়ুন: ৭ মাস আগে গোপনে তৃতীয় বিয়ে সেরেছেন গায়ক নোবেল, তিনবেলা মারধর করেন স্ত্রীকে!]

এখানেই শেষ নয়! অমিতাভ বচ্চন কর্পোরেশন লিমিটেডের তরফে হাসপাতাল, পুলিশ স্টেশন, বৃহন্মুম্বই পৌরসভার মতো জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত একাধিক অফিসে ২০ হাজার পিপিই কিট পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি অগণিত মাস্ক এবং হ্যান্ডসানিটাইজারও বিলি করা হয়েছে একাধিক জায়গায়।

উল্লেখ্য, করোনা মোকাবিলায় একেবারে প্রায় গোড়ার দিক থেকেই সমাজের দরিদ্র মানুষের পাশে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। স্ত্রী জয়া বচ্চনের জন্মদিন উপলক্ষে সেদিন থেকেই মুম্বইয়ের বিভিন্ন জায়গায় ২ হাজারটি করে খাবারের প্যাকেট পৌঁছে দিয়েছেন। প্রতিদিন দুবেলার জন্য। প্রথমটায় মোট ১২ হাজার মানুষের মুখে খাবার তুলে দিতে শাহেনশা এই উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু লকডাউন বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অমিতাভের সাহায্যের পরিসংখ্যানও বেড়েছে।

[আরও পড়ুন: কন্যাশ্রীর টাকা দুস্থদের দান, ছাত্রীর পাশে দাঁড়িয়ে আর্থিক সাহায্য পরমব্রতর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement