২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

৭ মাস আগে গোপনে তৃতীয় বিয়ে সেরেছেন গায়ক নোবেল, তিনবেলা মারধর করেন স্ত্রীকে!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 26, 2020 7:45 pm|    Updated: May 26, 2020 7:45 pm

An Images

সুকুমার সরকার, ঢাকা: দু’দিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করে তীব্র নিন্দার মুখে পড়েছিলেন বাংলাদেশের সংগীত শিল্পী নোবেল। সেই রেশ কাটতে না কাটতে প্রকাশ্যে এল নতুন এক খবর। ৭ মাস আগে নাকি গোপনে বিয়ে করেছেন তিনি। যা নিয়ে নতুন করে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

জি বাংলার সারেগামাপা রিয়েলিটি শো’র মঞ্চ তাঁকে পরিচিতি দিয়েছিল। তাই শুধু নিজের দেশ নয়, পশ্চিমবঙ্গেও তিনি সমান জনপ্রিয়। অসংখ্য অনুরাগী নোবেলের। কিন্তু নিজের অভব্য আচরণ, অশালীন মন্তব্যের জেরে ভক্তদের বিরাগভাজন হন বারবার। আলোচনায় থেকে তাঁকে নিয়ে বিতর্কই বেশি হয়। মঈনুল আহসান নোবেলের অহংকার আর ঔদ্ধত্য প্রতিবারই তাঁকে রোষানলে ফেলে। আর এবার যা সামনে এল, তাতে হাজারো যুবতীর মন তো ভেঙেইছে, সেই সঙ্গে শুরু হয়েছে তুমুল সমালোচনা। জানা গিয়েছে, ৭ মাস আগে গোপনে বিয়ে করেছেন গায়ক। অথচ বিয়েটা সবসময়ই একটা আনন্দের বিষয়। তাহলে লুকনোর কী হল? আসলে নোবেলের ক্ষেত্রে ব্যাপারটা একটু আলাদা। কারণ এটি তাঁর তৃতীয় বিয়ে। সেই বিয়ের সার্টিফিকেটও সামনে এসেছে। যেখানে লেখা রয়েছে, ৫ লক্ষ টাকা পণ নিয়ে ২০১৯-এর ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিল নামের এক যুবতীকে বিয়ে করেন নোবেল। বর্তমানে নাকি তাঁদের রোজ মারধরও করেন।

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদিকে নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট, নোবেলকে তলব RAB-এর]

বিয়ের ব্যাপারে আরও জানতে নোবেলের জন্মস্থান গোপালগঞ্জে যোগাযোগ করা হয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নোবেলের এক বন্ধু জানান, ছোটবেলা থেকে বেশ দুরন্ত নোবেল। প্রথমে এসএম মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু করলেও একটা ঝামেলায় জড়িয়ে পরে স্বর্ণকলি উচ্চ বিদ্যালয় স্কুলে ভরতি হয়। তবে নবম শ্রেণিতে পড়াকালীন এক নারীকেন্দ্রিক ঘটনায় তাঁকে স্কুল থেকে বের করে দেওয়া হয়। এরপর আর গোপালগঞ্জে সেভাবে দেখা যায়নি।

nobel

চিরকালই নারীকেন্দ্রিক ঘটনায় জড়িয়েছেন। এবার তাঁর নামের পাশে জুড়ল আরও এক মহিলার নাম। গত নভেম্বরে তৃতীয়বাবের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেন নোবেল। কনে মেহরুবা সালসাবিল। স্ত্রীকে নিয়ে বর্তমানে তিনি থাকেন ঢাকার নিকেতনের একটি ফ্ল্যাটে। এ কথা নিশ্চিত করেছেন সেই ফ্ল্যাটে যাতায়াত করা নোবেলের এক বন্ধুও। তাঁর বিয়ের সার্টিফিকেট সংবাদমাধ্যমের কাছে আসতেই খবর প্রকাশ্যে আসে। আর তারপরই শুরু হয়ে যায় তুমুল বিতর্ক। নিন্দার ঝড় ওঠে।

এর আগে রিমির সঙ্গে সংসার শুরু করেছিলেন বাংলাদেশি গায়ক। সেই সংসার বেশিদিন টেকেনি। রিমিই ডিভোর্স দিয়েছিলেন নোবেলকে। এরপর এক আত্নীয়কে বিয়ে করেন। ভেঙে যায় সেই সম্পর্কও। সমাজকর্মী অমি রহমান পিয়ালের একটি পোস্ট থেকে জানা যায়, নোবেল তাঁর স্ত্রীকে মারধর করতেন। জানা গিয়েছে, তৃতীয় স্ত্রীকেও তিনবেলা মারধর করেন খ্যাতনামা এই গায়ক। পিয়াল লিখেছেন, “দুই সপ্তাহ আগেই নিজের মা-বোনকে গভীর রাতে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিলেন নোবেল। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। আর স্ত্রী? তার কী অবস্থা? জি বাংলার সেলিব্রিটির প্রেমে পড়ে পরিবারের কাছে সম্পর্ক চুকিয়ে দিয়ে এল ওই যুবতী। তাকে নিয়ম করে তিনবেলা মারধর করে আমাদের সুপারস্টার সিঙ্গার। মানুষ যেমন তিনবেলা খাবার খায়, আমাদের গায়ক তিনবেলা স্ত্রীকে মারে।” যদিও এ নিয়ে এখনও কোনও উচ্চবাচ্য করেননি নোবেল।

[আরও পড়ুন: আমফানের পর ছন্দে ফিরছে কলকাতা, পরিষেবা দিতে আসা কর্মীদের খাবার দিয়ে সাহায্য মিমির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement