BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মিউজিক ভিডিওয় অশ্লীলভাবে বঙ্গনারীদের দেখানোর অভিযোগ, FIR বাদশার বিরুদ্ধে

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 5, 2020 11:14 am|    Updated: April 5, 2020 11:14 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিতর্কে ব়্যাপার বাদশার ‘গেন্দাফুল’। মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই এই গান যতটা হিট হয়েছে, বিতর্কও কম হয়নি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং হলেও মুক্তির পর থেকেই ‘গেন্দাফুল’ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন বাদশা। কখনও গানে ব্যবহার করা বাংলা লোকগীতির স্রষ্টা রতন কাহারকে স্বীকৃতি না দেওয়ায় তো কখনও বা আবার গানের লিরিকস নিয়ে। বঙ্গসৃংস্কৃতিকে বিকৃতি করার জন্য এবার আইনি গেরোয় পড়লেন গায়ক বাদশা। ব়্যাপার বাদশা-সহ গানের প্রযোজক, পরিচালক এবং সোনি মিউজিক কোম্পানির বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করল বাংলার স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘আত্মদীপ’।

মূল অভিযোগ, ‘গেন্দাফুল’-এ বঙ্গসংস্কৃতি তদুপরি বঙ্গনারীদের অসম্মান করা হয়েছে। গানের মিউজিক ভিডিওয় যেরকম অশ্লীলভাবে বঙ্গনারীকে তুলে ধরা হয়েছে, তা মোটেই কাম্য নয়। এছাড়া গানের লিরিকসেও কিছু অশ্লীল শব্দ তুলে ধরা হয়েছে। এই অভিযোগ তুলেই শনিবার উত্তর ২৪ পরগণার বীজপুর থানায় বাদশা এবং সংশ্লিষ্ট মিউজিক কোম্পানির বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘আত্মদীপ’-এর তরফে।

[আরও পড়ুন: ‘আমার বাড়িতে লাইট বন্ধ থাকবে না’, মোদির ‘মোমবাতি’ নিদানকে বয়কট অপর্ণার]

সংশ্লিষ্ট ওই স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, গেন্দাফুল নাম দিয়ে যে মিউজিক ভিডিও করা হয়েছে, তাতে ধুনুচি নাচ ও বাঙালি মহিলাদের খুব অশ্লীলভাবে তুলে ধরা হয়েছে। এই বিষয়ে সংস্থার তরফে প্রথমে বাদশাকে টুইটারে সতর্ক করা হয়েছিল। তাঁকে অনুরোধ করে বলা হয়েছিল যে, “আপনাকে ক্ষমা চাইতে হবে, নতুবা আপনার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।” কিন্তু বাদশা শিল্পী রতন কাহারকে স্বীকৃতি দেওয়ার কথা বললেও এখনও পর্যন্ত ক্ষমা চাননি। তাই ‘আত্মদীপ’-এর পক্ষ থেকে শনিবার থানায় এফআইআর করা হয়েছে। এর জন্য আইনি পদক্ষেপ যা নেওয়ার নেবে বলে জানিয়েছে ওই সংস্থা। কারণ, গানের ভাষায় যে শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে তা অত্যন্ত কুরুচিকর এবং অশ্লীল।

এছাড়া মিউজিক ভিডিওতে দুর্গা প্রতিমার সামনে ধুনুচি নাচ, আরতিকেও ভীষণই আপত্তিকরভাবে দেখানো হয়েছে, যাতে বাংলা সংস্কৃতি সম্পর্কে বিকৃত ধারণার সৃষ্টি হতে পারে কিংবা ভুল বার্তা পৌঁছতে পারে। আর তাই শনিবারই ‘গেন্দাফুল’ গানের স্রষ্টা ব়্যাপার বাদশা, প্রযোজক, পরিচালক তথা জনপ্রিয় ওই মিউজিক কোম্পানির বিরুদ্ধেও এফআইআর দায়ের করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘আত্মদীপ’-এর তরফে।

[আরও পড়ুন: ‘ভাই হয়ে আপনার কাজে হাত বাড়ানো আমার কর্তব্য’, মমতাকে বাংলায় টুইট শাহরুখের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement