২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘ওঁর হাসিটা মনে থাকবে’, ইরফানের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ ‘আ মাইটি হার্ট’ সহ-অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 1, 2020 11:48 am|    Updated: May 1, 2020 11:49 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০০৭ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘আ মাইটি হার্ট’। এক পাকিস্তানী সাংবাদিকের অপহরন ও খুনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া এই হলিউড ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ইরফান খান। এই ছবির সুবাদেই ইরফানকে সহ-অভিনেতা হিসেবে পেয়েছিলেন হলিউডের খ্যাতনামা অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। ভারতীয় অভিনেতার প্রয়াণে সে ছবির প্রসঙ্গ তুলেই স্মৃতির সরণিতে হাঁটলেন অ্যাঞ্জেলিনা।

৫৪ বছর বয়সি এই অভিনেতা আর নেই, জেনে দূরদেশেই শোকস্তব্ধ অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। “ওঁর মহত্বই ওঁকে শিল্পী হিসেবে অন্যদের থেকে স্বতন্ত্র রেখেছে। ইরফানের কাজ করার আতিশয্য, একজন অভিনেতা হিসেবে কাজের প্রতি ওঁর প্রতিশ্রুতির জন্যই ওঁর সঙ্গে যে কোনও ছবিতে যে কোনও দৃশ্যে কাজ করতে ভাল লাগত। আর ওঁর মুখের ওই হাসিটা ভোলবার নয়! ইরফানের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। সারা বিশ্ব তথা ভারতের ছড়িয়ে থাকা ওঁর গুণমুগ্ধ ভক্তদের প্রতিও সহমর্মিতা জানাই”, মন্তব্য জোলির।    

মাইকেল উইন্টারবটম পরিচালিত ‘আ মাইটি হার্ট’ ছবিতেই শুধুমাত্র একসঙ্গে কাজ করেছিলেন ইরফান এবং জোলি। সেই একটা ছবিতে কাজ করেও ইরফানের মতো একজন মানুষ তথা অভিনেতাকে ভোলেননি খ্যাতনামা এই হলিউড অভিনেত্রী। ড্যানিয়েল পার্ল নামের একজন মার্কিন সাংবাদিককে অপহরণ করে পাক সীমান্তে খুন করার ঘটনার ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে এই ছবি। যেখানে ড্যানিয়েলের বিধবা স্ত্রী মারিয়ান পার্লের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা। এই ছবিতেই করাচি পুলিশ আধিকারিকের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ইরফান। যে চরিত্রের নাম ছিল জিশান কাজমি।

‘আ মাইটি হার্ট’ ছবির দৃশ্য

প্রসঙ্গত ইরফান ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’, ‘ইনফার্নো’, ‘লাইফ অফ পাই’ থেকে শুরু করে ‘দ্য অ্যামেজিং স্পাইডার ম্যান’-এর মতো একাধিক জনপ্রিয় হলিউডছবিতে অভিনয় করেছেন। ভারতীয় অভিনেতা হয়েও বিদেশের মাটিতে এভাবে খ্যাতি এবং গুণীশিল্পী হিসেবে সমাদৃত হয়েছেন, ইরফানের মতো উদাহরণ অতীতেও ছিল না। এখনও নেই।

অ্যাঞ্জলিনা জোলি ছাড়াও নাতালি পোর্টম্যান, ক্রিস প্যাট, কোলিন ট্র্যাভোর, ফ্রিডা পিন্টো-সহ পরিচালক ড্যানিয়েল বয়েলের মতো অনেক হলিউড তারকাই শোকপ্রকাশ করেছেন ইরফান খানের মৃত্যুতে। ‘ইনফার্নো’র প্রচারে ভারতে এসে একবার প্রখ্যাত হলিউড অভিনেতা টম হ্যাংকস মজাচ্ছলে জানিয়েছিলেন যে “ইরফানই আমার ‘ দ্য কুলেস্ট গাই’ তকমাটা ছিনিয়ে নিল!”

E

 

নাতালি পোর্টম্যানের সঙ্গে ইরফান

[আরও পড়ুন: ঋষি-নীতুর প্রেমকাহিনি সিনেমার মতোই! হাজার কলহ সত্ত্বেও সম্পর্কে মাধুর্য বাঁচিয়ে রেখেছিলেন]

নাতালি নিউ ইয়র্ক, আই লাভ ইউ ছবির দৃশ্য শেয়ার করে বলেছেন, “ইরফানের ভালবাসার সমস্ত মানুষকে ভালবাসা জানালাম।” ইরফানের ‘জুরাসিক ওয়ার্ল্ড’ সহ অভিনেতা ক্রিস প্যাটের কথায়, ইরফানের মতো একজন কিংবদন্তী অভিনেতার প্রয়াণে কষ্ট পেলাম। ভাল অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি ও খুব ভাল একজন মানুষও। এই ছবিতে ও মাসারানির চরিত্রে অভিনয় করেছিল। ড্যানিয়েল বয়েল ‘স্লামডগ মিলিয়নিয়র’-এর কথা স্মরণ করে বললেন, চিত্রনাট্যে ওত অংশ থাকলেও ইরফান নিজের উৎকর্ষ, গুণে চরিত্রটিকে সম্ভাবনাময় করে তুলেছিলেন।  

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

This one has hit me hard. A VOID that can NEVER be filled because there was simply no one like Irrfan Khan. His grace and dignity along with his monumental talent as an artist, actor – a portrayer of humanity in all it’s shapes and forms made me not only have deep admiration for him but I instinctively wanted to emulate that grace in my career as well. . . There is a picture from the SAG awards( Irrfan, Dev, me and Anil) that sits on my book shelf in Mumbai and everytime I look at it, I am taken down a memory lane of all things so beautiful and joyous about Slumdog Millionaire and the awards celebrations. And in all of it I have this one beautiful and powerful memory of Irrfan – Unfazed by the glitzy glamour, no matter which Hollywood icon walked past us. Quiet but not silent- his responses to every interviewer were so meaningful and never lacking humour. He was representing India with achingly high levels of grace and dignity. He stood grounded in reality on every world stage, every red carpet- Grateful and so collected! How lucky was I, a complete little mess of a newbie, to have him as a role model! . . For those who know of his talent, you know it cannot be replaced. For those who have not yet been introduced to his talent…Oh, do not deprive yourselves please! His repertoire has something for everyone. Warrior, Namesake, Piku, Maqbool, Life of Pi, The Lunchbox, Paan Singh Tomar and ofcourse Slumdog Millionaire. Start somewhere, anywhere! I promise you…Irrfan Khan will be FOREVER carved in your memories too!

A post shared by Freida Pinto (@freidapinto) on

 

[আরও পড়ুন: ঠিক যেন সিনেমা! ইরফান-ঋষির ‘ডি-ডে’ ছবির দৃশ্যই বর্তমানে ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement