Advertisement
Advertisement

Breaking News

Ayodhya

‘রামের নামে পাপ! ঈশ্বর আছে’, অযোধ্যায় বিজেপি ‘গো হারা’ হারতেই বিস্ফোরক স্বরা

'শ্রীরামের বিচার' নিয়ে পোস্ট করতেই আক্রমণের শিকার স্বরা ভাস্কর।

As BJP defeated in Ayodhya, actress Swara Bhasker slams
Published by: Sandipta Bhanja
  • Posted:June 5, 2024 7:34 pm
  • Updated:June 5, 2024 7:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যে রামজন্মভূমিকে হাতিয়ার করে লোকসভায় ভোটবাক্স ভরানোর রণকৌশলী সাজিয়েছিল বিজেপি, সেই ফৈজবাদেই মুখ থুবড়ে পড়েছে বিজেপি! পদ্মপ্রার্থী লালু সিং সাড়ে ৫৪ হাজার ভোটে পরাজিত হয়েছেন সমাজবাদী পার্টির অবধেশ কুমারের কাছে। রামজন্মভূমিতে পদ্ম ফোটাতে না পারায় বিজেপির ব্যর্থতা নিয়ে গোটা দেশে চর্চার অন্ত নেই। বিরোধী শিবির তো বটেই, এমনকী দেশের বুদ্ধিজীবীমহলও চর্চায় মশগুল। সেই প্রেক্ষিতেই এবার মুখ খুললেন স্বরা ভাস্কর (Swara Bhasker)।

স্বরা ভাস্কর বরাবরই স্পষ্টবাদী। যে কোনওরকম রাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে সোজাসাপটা কথা বলতে পিছপা হন না। অতীতে কখনও নিজের জন্মদিনে বন্ধু কানহাইয়া কুমারের হয়ে বামপন্থী মিছিলে হেঁটেছেন, আবার কখনও বা আম আদমি পার্টির প্রচারে গলা ফাটিয়েছেন। বরাবরই মোদি বিরোধী প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন স্বরা ভাস্কর। এবার অযোধ্যার ফৈজাবাদে বিজেপির হার নিয়ে গেরুয়া শিবিরকে খোঁচা দিলেন।

Advertisement

হিন্দুত্ববাদকে ঢাল করে গত দুই লোকসভা ভোটে বিজেপিকে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা দিয়েছিল রামরাজ্য। সেই উত্তরপ্রদেশেই এবার ধাক্কা খেল মোদি। সোমবার পর্যন্ত বুথ ফেরত সমীক্ষায় যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে মোদি ঝড় আছড়ে পড়ার কথা ছিল। কিন্তু মঙ্গলবার বেলা বাড়তেই বদলে গেল আবহাওয়া। উত্তরপ্রদেশে ৮০টি আসনের মধ্যে মোটে ৩৩টি বিজেপির দখলে এসেছে। এমনকী অযোধ্যাতেও ‘গো হারা’ হেরেছে বিজেপি। গোটা ভোটপর্বে হিন্দুত্বকেই নিজের পয়লা নম্বর এজেন্ডা বানিয়েছিলেন মোদি। এপ্রসঙ্গে স্বরা বলছেন, “শ্রীরামের নামে যারা বদনাম করেছে। ঈশ্বরের নাম নিয়ে যারা পাপ করেছে। তাদের জয় সিয়া রাম।” এক্ষেত্রে নারীশক্তির অবস্থান স্পষ্ট করার জন্য সীতার নাম জুড়েছেন তিনি রামের সঙ্গে। এর আগে কৃষি আন্দোলনের সময়ও বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী আওয়াজ তুলেছিলেন স্বরা। আরেকটি পোস্টে অভিনেত্রীর মন্তব্য, “ওরা বলেছিল, টাইটানিক ডুববে না। কিন্তু একদিন টাইটানিক ডুবেছিল। সরকার গড়াটাই শেষ কথা নয়। আজ ঘৃণা, হিংসা-লোভকে পরাজিত করেছে ভারতের আমজনতা।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: কঙ্গনার প্রেমে পাগল ছিলেন চিরাগ পাসওয়ান! ১১ বছর আগে ঠিক কী ঘটে?]

২০১৪ সালে ‘দুর্নীতিগ্রস্ত’ কংগ্রেস সরকারের প্রতি মানুষের ক্ষোভ, এবং আচ্ছেদিনের ‘স্বপ্ন’ পাথেয় করে ভোটবাক্সে ঝড় তুলেছিলেন মোদি। ২০১৯-এ ছিল পুলওয়ামা-বালাকোট ছিল বিজেপির অস্ত্র। এবারে ঝড় তোলার মতো হাতেগরম ইস্যু না থাকলেও নরেন্দ্র মোদি তড়িঘড়ি রামমন্দির (Ram Mandir) উদ্বোধন করে দিলেন। দেশের চার শীর্ষ শঙ্করাচার্যের আপত্তিকেও তোয়াক্কা করেননি তখন। শেষমেশ ভোটবাক্সে জনতা জনার্দনের রায় এল। অযোধ্যায় বিজেপির হার নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠেছে, অতি হিন্দুত্বের জেরেই গাজন নষ্ট বিজেপির?

[আরও পড়ুন: ‘জবাব দিয়েছে আমার ঘাটাল’, হ্যাটট্রিক করে প্রথম প্রতিক্রিয়া জয়ী দেবের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ