BREAKING NEWS

১৯ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ৫ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘এত মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল যে গুনে শেষ করা যাবে না’, ফের বিস্ফোরক মন্তব্য নোবেলের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 28, 2020 9:23 pm|    Updated: May 28, 2020 9:23 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “এত মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল যে গুনে শেষ করা যাবে না। এই বয়সে একটু-আধটু তো এরকম হয়েই থাকে”, মন্তব্য নোবেলের। তৃতীয়বার বিয়ে নিয়ে শোরগোল হতেই সেই বিষয়ে মুখ খুললেন গায়ক। 

৫ লক্ষ টাকা পণ নিয়ে ২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর মেহরুবা সালসাবিল নামের এক যুবতীকে বিয়ে করেন নোবেল। রোজ তাঁর উপর শারীরিক নির্যাতনও চালান। বর্তমানে তিনি থাকেন ঢাকার নিকেতনের একটি ফ্ল্যাটে। একথা নিশ্চিত করেছেন সেই ফ্ল্যাটে যাতায়াত করা নোবেলের এক বন্ধুও। তাঁর বিয়ের সার্টিফিকেট সংবাদমাধ্যমের কাছে আসতেই খবর প্রকাশ্যে আসে। আর তারপরই শুরু হয় তুমুল বিতর্ক। নিন্দার ঝড় ওঠে। তবে এযাবৎকাল নানা কটাক্ষের শিকার হলেও তা নিয়ে মুখ খোলেননি নোবেল। তবে এবার তৃতীয়বার বিয়ের পিঁড়িতে বসা ব্যাপার খোলসা করলেন তিনি।

কী বললেন? প্রথমত, তৃতীয় বিয়েকে গুজব ও বিভ্রান্তিকর বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। নোবেলের জানান, এর আগে তাঁর সঙ্গে কারও বিয়ে হয়নি। তবে অনেক সম্পর্ক ছিল। “এত মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল যে গুনে শেষ করা যাবে না। আর এই বয়সে একটু-আধটু এরকম হয়ই। বিয়ের আগে তো সবার জীবনেই এমন প্রেম থাকেই। কারও কম, কারও বেশি। আমার একটু বেশিই ছিল। এ অবস্থায় এখন যদি বলা হয় যে এটি আমার তৃতীয় বিয়ে, তা মোটেই ঠিক নয়। গুজব এবং বিভ্রান্তিকর।”

Nobel
স্ত্রী মেহেরুবার সঙ্গে নোবেল

[আরও পড়ুন: অসুস্থ বাবাকে নিয়ে সাইকেলে ১২০০ কিমি পাড়ি, জ্যোতির গল্প এবার বড় পর্দায়]

তা বিয়ে করে প্রকাশ্যে না এনে এতদিন চুপ করে বসেছিলেন কেন? সেকথাও জানিয়েছেন নিজেই। পালিয়ে বিয়ে করেছিলেন আসলে। পাত্রীর বাড়িতে কিছুই জানত না। মেহরুবা বিয়ের দিন নোবেলের ডেমরার বাড়িতে চলে আসেন। যেখানে তাঁর পরিবারের সদস্যরা ছিলেন। সেদিনই বিয়ে হয়। নোবেলের মা-বাবা উপস্থিতিতে। এছাড়াও তাঁর মামা ও কাকা সাক্ষী ছিলেন বিয়ের। প্রথমটায় শ্বশুরবাড়ির লোকজন না জানলেও বর্তমানে সব সমস্যা ঠিক হয়ে গিয়েছে বলেই জানান নোবেল।

দিন কয়েক আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে নিয়ে কুরুচিকর মন্তব্য করে তীব্র রোষের মুখে পড়েছিলেন বাংলাদেশের সংগীতশিল্পী নোবেল। অবস্থা এমন পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছয় যে, ত্রিপুরা পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে ভারতে এলেই গ্রেপ্তার করা হবে তাঁকে। এর মাঝেই নতুন বিতর্ক শুরু হয় ‘সারেগামাপা’ খ্যাত নোবেলকে ঘিরে। ৭ মাস আগে গোপনেই তৃতীয়বারের জন্য বিয়ে সেরেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, স্ত্রীকে তিনবেলা মারধর করেন বলেও জানা গিয়েছে। যার জেরে বাংলাদেশের সমাজকর্মীরা গার্হস্থ্য হিংসা নিয়ে নোবেলের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। এককথায়, মইনুল হাসান নোবেল বর্তমানে বিতর্কের শিরোনামে।

[আরও পড়ুন: বিজ্ঞাপনে শ্রেণিবৈষম্যকে উসকে বিতর্কে বিজেপি সাংসদ হেমা মালিনী, চাইলেন ক্ষমা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement