BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভারতীয় সেনা নিয়ে ইচ্ছেমতো সিনেমা বানানো যাবে না, লাগবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের বিশেষ অনুমতি

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: August 1, 2020 4:00 pm|    Updated: August 1, 2020 4:12 pm

An Images

ইতিমধ্যেই একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশনের কাছে।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউড নায়কদের গায়ে ইন্ডিয়ান আর্মির উর্দি, চোখে জল আনা দেশপ্রেমের গল্প, আবেগ-ইমোশন দিয়ে পর্দায় বাজিমাত! তবে এবার থেকে ভারতীয় সেনাদের নিয়ে চাইলেই আর ছবি তৈরি করতে পারবেন না বলিউড প্রযোজকরা। তার আগে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের থেকে ছাড়পত্র আদায় করা আবশ্যক। ‘নো অবজেকশন’ সার্টিফেকট ছাড়া রিলিজ করা যাবে না সিনেমা। এবার এরকমই কড়া নির্দেশিকা জারি করা হল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে। ইতিমধ্যেই এই মর্মে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে সিবিএফসির কাছে। (Central Board of Film Certification)

বর্ডার, এলওসি, উড়ি থেকে শুরু করে এযাবৎকাল বহু বলিউড সিনেমাতেই ভারতীয় সেনা জওয়ানদের লড়াকু কাহিনি উঠে এসেছে। একাধিক ছবি বাণিজ্যিকভাবে সফলও হয়েছে। কখনও ছবির প্রেক্ষিত ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ, একাত্তরের ঘটনা কিংবা কারগিল, আবার কখনও বা উড়ির সার্জিক্যাল স্ট্রাইক, অশান্ত কাশ্মীরের ঘটনা উঠে এসেছে সিনেমার গল্পে। পর্দায় যা দেখে দেশপ্রেমের আবেগে ভেসে গিয়েছেন দর্শকরা। সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতীয় সেনার কাহিনি নেপথ্যে এযাবৎকাল বলিউডে প্রায় পঞ্চাশেক ছবি তৈরি হয়েছে। সম্প্রতি গালওয়ান সীমান্তে ইন্দো-চিন সংঘর্ষ নিয়ে ছবি তৈরির কথা ঘোষণা করেছেন অজয় দেবগনও। তবে এবার থেকে চাইলেই আর ভারতীয় সেনাকে উপজীব্য করে চিত্রনাট্য বাঁধতে পারবেন না পরিচালক-প্রযোজকরা।

[আরও পড়ুন: আকাশ ছোঁয়ার স্বপ্ন, ‘গুঞ্জন সাক্সেনা’ ছবির ট্রেলারে নজর কাড়লেন জাহ্নবী]

শুধু সিনেমাই নয়, তথ্যচিত্র এমনকী ওয়েব সিরিজের ক্ষেত্রেও এই নিয়ম মেনে চলতে হবে। শুক্রবার এই মর্মে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি হয়েছে। ছবির পর্দায় যাতে কোনওভাবে ভারতীয় সেনাকে বিকৃত করে কোনও তথ্য তুলে না ধরা হয়, তা নিশ্চিত করতেই প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্ত।

ছবির নির্মাতাদের উদ্দেশে বলা হয়েছে, ভবিষ্যতে ভারতীয় সেনাকে থিম করে সিনেমা, তথ্যচিত্র বা ওয়েবসিরিজ তৈরি হলে, বাণিজ্যিকভাবে রিলিজের আগে তা প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের কাছে জমা দিতে। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক যদি মনে করে, আপত্তিজনক কিছু নেই, তবেই মিলবে ‘নো অবজেকশন’ সার্টিফিকেট। যেটা ছাড়া বাণিজ্যিকভাবে আটকে যাবে সিনেমা, ওয়েব সিরিজের মুক্তি।

[আরও পড়ুন: সুশান্তের মৃত্যু তদন্তে মুম্বই পুলিশকে বিভ্রান্ত করছেন কঙ্গনা! গ্রেপ্তারের দাবিতে সরব ক্ষুব্ধ নেটজনতারা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement