Advertisement
Advertisement
Dabadu

‘দাবাড়ু’ এবার নিউজিল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়া সফরে, আপ্লুত শিবপ্রসাদ, গ্র্যান্ডমাস্টার সূর্যশেখররা

বাংলার গ্র্যান্ডমাস্টার সূর্যশেখরের কাহিনি এবার বিদেশের আঙিনায়।

Bengali film Dabaru's special screening in Australia, New Zealand
Published by: Sandipta Bhanja
  • Posted:May 15, 2024 7:01 pm
  • Updated:May 15, 2024 7:03 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইন্দোনেশিয়ায় ইতিহাস গড়েছিল উইন্ডোজ-এর ‘রক্তবীজ’। প্রথম কোনও বাংলা সিনেমার স্ক্রিনিং হয়েছিল সেখানে। এবার নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় প্রযোজিত ‘দাবাড়ু’ও কিস্তিমাত করল! ১০ মে বাংলার প্রেক্ষাগৃহে পা রাখার পর এবার এই সিনেমার স্পেশাল স্ক্রিনিং হবে সুদূর অস্ট্রেলিয়ায়। আগামী ২৬ মে সেখানকার ওয়েদারিল পার্কের হয়েটস-এ সন্ধে ৬টার সময়ে প্রদর্শিত হবে ‘দাবাড়ু’। নিউজিল্যান্ডেও সফর করবে বাংলার গ্র্যান্ডমাস্টার সূর্যশেখরের কাহিনি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল-এর কাছে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে প্রযোজক শিবপ্রসাদ জানালেন, “অস্ট্রেলিয়ায় তো দেখানো হবেই। তার পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডে স্পেশাল স্ক্রিনিং রয়েছে আগামী ৯ জুন। এছাড়াও মার্কিন মুলুক, কানাডা, জাকার্তায় দেখানো হবে ‘দাবাড়ু’। ইতিমধ্যেই কথাবার্তা হয়েছে। তবে তারিখটা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তাঁর সংযোজন, গোটা বিশ্বের বাঙালিরা এবার এই ছবিটা দেখবেন। বাঙালি হিসেবে আমরা গর্বিত। এই সাফল্য আগামী দিনে আরও সাহস জোগাবে।” ‘দাবাড়ু’ পরিচালক পথিকৃৎ বসুও আত্মবিশ্বাসী। তিনি বলছেন, “প্রবাসী বাঙালিদের মনেও জায়গা করে নেবে এই ছবি, আমি নিশ্চিত।” গ্র্যান্ডমাস্টার সূর্যশেখর গঙ্গোপাধ্যায়ের কথায়, “এবার বিদেশে এই সিনেমার স্ক্রিনিংয়ের হাত ধরে আমার মা-দাদু এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের যে অবদান, সেই কাহিনিও পৌঁছে যাবে।”

Advertisement

Rituparna Sengupta, Chiranjeet Chakraborty starrer Dabaru teaser out

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘জানি তুই আমার হবি না…’, গানের সুরেই প্রসেনজিৎকে বললেন ঋতুপর্ণা!]

বলতে দ্বিধা নেই, ভারতবর্ষের একভাগের কাছে আজও স্পোর্টস মানেই ক্রিকেট কিংবা নিদেনপক্ষে ফুটবল। খেলকুঁদের দুনিয়ায় আরও একগুচ্ছ নাম থাকলেও সেভাবে জনপ্রিয়তার মাপকাঠির শীর্ষ ছুঁতে পারেনি তারা। সাঁতার, তিরন্দাজী, বক্সিং থেকে সাঁতার, দাবা খেলা, ভারতের নবীন প্রজন্মের অনেকেই এদিকে ঝুঁকছেন। কিন্তু সিনেপর্দা অবধি পৌঁছতে পেরেছে ক্রিকেট-ফুটবল, কাবাডি কিংবা বক্সিং। চৌষট্টি খোপের খেলা নিয়ে ‘শতরঞ্জ কে খিলাড়ি’ তৈরি করেছিলেন সত্যজিৎ রায়ও। তবে এই প্রথমবার কোনও গ্র্যান্ডমাস্টারের সংগ্রামকাহিনী ভারতীয় সিনেপর্দায় ফুটে উঠেছে এই বাংলায়। নেপথ্যে টলিপাড়ার হিট মেশিন জুটি নন্দিতা-শিবপ্রসাদের উইন্ডোজ প্রযোজনা সংস্থা।

সিনেমা নয়, বরাবরই আস্ত মনস্তত্ত্বের পাঠ দেন নন্দিতা-শিবপ্রসাদ। আম দর্শকের নাড়ির স্পন্দন বুঝতে পরিচালক-প্রযোজকদ্বয় যে বেজায় সিদ্ধহস্ত, তা এযাবৎকাল তাঁদের কাজই বাতলে দিয়েছে। ফ্রেমে বাস্তব প্রেক্ষাপট ধরতে উইন্ডোজ জুটির কলম-ক্যামেরা বরাবরই সাবলীল। বক্সঅফিস নম্বরের প্রতিযোগিতার ধারও ধারেন না তাঁরা! শুধু পরিচালকের আসনে বসেই নন, প্রযোজনার ক্ষেত্রেও বাস্তবের গল্পেই বরাবর জোর দিয়েছেন শিবু-নন্দিতা (Nandita Roy) জুটি। তার উদাহরণ ‘ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি’,’লক্ষ্মীছেলে’, ‘দাবাড়ু’র মতো ছবিগুলো। আমজনতার ঘরের লোক হয়ে ওঠার শুরু সেই ‘জনতা এক্সপ্রেস’-এর হাত ধরে, আজও কনটেন্ট নির্বাচনের ক্ষেত্রে পরিচালকজুটির কাছে ‘জনতাই জনার্দন’।

[আরও পড়ুন: ‘পার্থ ভৌমিককে ভোট দিন’, রাজের সঙ্গে ভোটপ্রচারের গাড়িতে গলা ফাটালেন ‘মিঠাই’ সৌমিতৃষা!]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ