BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কথা বলছেন সৌমিত্র, করোনাজয়ী শিল্পীকে শোনানো হচ্ছে পছন্দের রবীন্দ্রসংগীত

Published by: Suparna Majumder |    Posted: October 17, 2020 9:13 pm|    Updated: October 17, 2020 9:13 pm

An Images

গৌতম ব্রহ্ম ও অভিরূপ দাস: বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের (Soumitra Chatterjee) শারীরিক পরিস্থিতির আরও উন্নতি। বিগত কয়েক দিন ধরে আচ্ছন্ন থাকার পর, শনিবার সামান্য হলেও কথা বললেন কিংবদন্তি শিল্পী। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে করোনাজয়ী (CoronaVirus) ৮৫ বছরের অভিনেতাকে দেওয়া হচ্ছে ইন্ট্রাভেনাস ইমিউনো গ্লোবিউলিং এবং থাইমোসিন আলফা ওষুধ। এনসেফ্যালোপ্যাথির রেশ কাটানোর জন্য পালস মিথাইল প্রেডনিসোল ওষুধের মাত্রা বাড়ানো হয়েছে।

ফিজিও থেরাপির পাশাপাশি চেতনা সম্পূর্ণরূপে ফিরিয়ে আনতে চলছে মিউজিক থেরাপি। হাসপাতাল সূত্রে খবর, বর্ষীয়ান অভিনেতাকে মূলত রবীন্দ্রসংগীত ও তাঁর পছন্দের সিনেমার গান শোনানো হচ্ছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, পছন্দের সিনেমার গান সোজা গিয়ে হানা দিচ্ছে অভিনেতার মস্তিষ্কের হাইপোথ্যালামাস অংশে, যা কিনা সব আবেগের কেন্দ্র৷ পছন্দের গানে তারা উদ্দীপিত হচ্ছে৷ এনআইবিপি মনিটরে ধরা পড়ছে সেই উদ্দীপনা।

[আরও পড়ুন: ‘নিজেকে অন্য কারও জন্য পালটাতে পারব না’, লন্ডন থেকে একান্ত সাক্ষাৎকারে অকপট নুসরত]

তাতেই ইতিবাচক সাড়া দিচ্ছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। শনিবার দুপুরে ঘুম হয়েছে তাঁর। যদিও এখনও তাঁকে ITU-তে রাখা হয়েছে। শরীরে জ্বর আপাতত নেই। করোনামুক্ত (COVID-19) হওয়ার পর ক্রমশ চিকিৎসায় ভাল সাড়া দিচ্ছেন প্রবীণ অভিনেতা।

 [আরও পড়ুন: স্কুল জীবনের স্মৃতি ফেরাল রাজকুমার-নুসরত জুটির ‘ছলাং’, প্রকাশ্যে ট্রেলার]

করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসার পর গত ১২ দিন ধরে দক্ষিণ কলকাতার বেলভিউ হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন প্রবাদপ্রতীম শিল্পী। গত ৯ অক্টোবর থেকে তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হতে শুরু করে। দু’বার হয় প্লাজমা থেরাপি। আপাতত ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন সৌমিত্র। মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্য চিকিৎসক ডা. অরিন্দম কর এদিন জানিয়েছেন, “সৌমিত্রবাবু চিকিৎসায় ভাল সাড়া দিচ্ছেন। অন্যদের কথাবার্তা শুনছেন। বুঝতে পারছেন। তিনি কথা বলারও চেষ্টা করছেন। শরীরিক জটিলতার কারণে নতুন করে কোনও সমস্যা হয়নি। পছন্দের গান শুনছেন। আশা করা হচ্ছে আগামী দু’তিন দিনে শারীরিক পরিস্থিতির আরও উন্নতি হবে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement