BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঠিক যেন স্বঘোষিত গডম্যান রাম রহিম! ‘আশ্রম’-এর ট্রেলারে ববি দেওলকে চেনাই দায়

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 17, 2020 3:46 pm|    Updated: August 17, 2020 6:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ডেরা সাচ্চা সওদার প্রাক্তন প্রধান গুরমিত রাম রহিমকে (Gurmeet Ram Rahim) মনে আছে? খুন, ধর্ষণ, নির্বীজকরণের একাধিক অভিযোগ উঠেছিল স্বঘোষিত ধর্মগুরুর বিরুদ্ধে। এখনও ধর্ষণের দায়ে জেলে দিন কাটছে তার। সেই ধর্ষক বাবাকেই ওয়েব সিরিজ ‘আশ্রম’-এর ট্রেলারে মনে করালেন ববি দেওল (Bobby Deol)।

[আরও পড়ুন: ‘আমার সময় ফুরিয়ে এল!’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের বোমা ফাটালেন কঙ্গনা]

সোমবার, প্রকাশ্যে এসেছে প্রকাশ ঝা (Prakash Jha) পরিচালিত ‘আশ্রম’-এর (Aashram) ট্রেলার। ওটিটি প্ল্যাটফর্ম এম এক্স প্লেয়ারের সিরিজে কাশীপুর নামের এক কাল্পনিক স্থানের কাহিনি দেখানো হয়েছে। যেখানে স্বঘোষিত ধর্মগুরু ওরফে গডম্যানের বাবা নিরালার চরিত্রে অভিনয় করছেন ববি দেওল। ট্রেলারে প্রথমে বাবার গুণমুগ্ধদের ঝলক দেখানো হয়। পরে জঙ্গলের মধ্যে থেকে উদ্ধার হওয়া কঙ্কালের মধ্যে রহস্যের গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে। ববি ছাড়াও সিরিজে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন দর্শন কুমার, চন্দন রায় সান্যাল, অদিতি পোহাঙ্কর, অনুপ্রিয়া গোয়েঙ্কা।

ট্রেলারের এই ঝলক মনে করিয়ে দেয় রাম রহিমের কাহিনি। নিজেকে গডম্যান বলতেই ভালবাসত রাম রহিম। ২০১৭ সালের ২৮ আগস্ট জোড়া ধর্ষণের মামলায় জেলে যেতে হয়েছিল তাকে। সেই ঘটনায় তোলপাড় হয়েছিল গোটা ভারত। রাম রহিমের ডেরায় নাকি প্রায় প্রত্যেক পুরুষ অনুগামীর নির্বীজকরণ করা হত। শোনা যায় এ বিষয়ে রাম রহিমের সাফাই ছিল, নির্বীজকরণের মাধ্যমেই নাকি ঈশ্বরকে পাওয়া যায়। এই বলেই পুরুষ শিষ্যদের এই কাজে বাধ্য করা হত। নেপথ্যের কারণ অবশ্য ছিল অন্য। ডেরার ভিতর যেভাবে যৌনাচার চলত তার একচ্ছত্র অধিপতি ছিল রাম রহিম। সাধ্বী থেকে শুরু করে অন্যান্য মহিলাদের ভোগের অধিকার ছিল একমাত্র তারই। আর তাই বাকি সমস্ত পুরুষদের পুরুষত্ব হরণ করে নেওয়া হত। এই অভিযোগ ওঠার পরই আদালতে রাম রহিমের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেয়। পরে নির্বীজকরণের অভিযোগে জামিন পেলেও ধর্ষণের অভিযোগে জেলেই রয়েছেন রাম রহিম। ২৮ আগস্ট থেকে এম এক্স প্লেয়ারে দেখা যাবে ‘আশ্রম’।

[আরও পড়ুন: অত্যন্ত সংকটজনক পরিচালক নিশিকান্ত কামাত, মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন হাসপাতালে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement