BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বলিউডের মাদক যোগে নাম জড়াল দীপিকারও! অভিনেত্রীকে তলব করতে পারে NCB

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 22, 2020 8:49 am|    Updated: September 22, 2020 11:20 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একেই বলে কেঁচো খুঁড়তে কেউটে বেরিয়ে আসা! এবার বলিউডের মাদক কাণ্ডে নাম জড়াল দীপিকা পাড়ুকোনের (Deepika Padukone)। সম্প্রতি প্রকাশ্যে আসা একটি চ্যাটে তাঁকে ‘k’ নামে একজনের কাছে মাদক (Drugs) চাইতে দেখা গিয়েছে। এরপরই অভিনেত্রীর ম্যানেজারকে সমন পাঠানো হচ্ছে বলে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো (NCB) সূত্রে খবর। তলব করা হতে পারে অভিনেত্রীকেও।

সুশান্ত সিং রাজপুতের তদন্তে নেমে বলিউডের (Bollywood) অন্দরে ছড়িয়ে থাকা মাদক চক্রের জাল গোটাচ্ছে এনসিবি। তদন্তে উঠে আসছে একের পর এক হর্তাকর্তার নাম। জেরা করা হচ্ছে তাঁদের। কখনও বা নিষিদ্ধ মাদকের নেশা করার অভিযোগ কিংবা সরবরাহের অভিযোগ বিদ্ধ করা হচ্ছে। দিন কয়েক আগেই এই তালিকায় নাম জুড়েছে সারা আলি খান, রকুল প্রীতদের। তালিকার সর্বশেষ সংযোজন বলিউডের প্রথম সারির গ্ল্যামার কন্যা দীপিকা পাড়ুকোনের। কীভাবে সামনে এল রণবীর পত্নীর নাম?

[আরও পড়ুন : প্রকাশ্যে রিয়া-মহেশের একান্ত মুহূর্তের নতুন ভিডিও, ফের কাঠগড়ায় দু’জনের সম্পর্ক]

এক বৈদ্যুতিন সংবাদমাধ্যমের দাবি, নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরোর তদন্তকারীরা মাদক যোগের বিষয়ে সুশান্ত সিং রাজপুতের বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীকে জেরা করছেন। সেই সূত্র ধরেই তাঁর ট্যালেন্ট ম্যানেজার জয়া সাহার সঙ্গে রিয়ার হোয়াটস অ্যাপ চ্যাট খতিয়ে দেখছিলেন তদন্তকারীরা। সেখান থেকেই D ও K-এর সঙ্গে জয়ার কথোপকথন সামনে আসে। অন্য আরেকটি চ্যাটে দেখা যায়, ডি, কে-এর কাছ থেকে ‘মাল’ চাইছেন। এরপর তদন্ত করতেই ডি-ফর দীপিকা ও K যে ম্যানেজার করিশ্মা স্পষ্ট হয়ে যায় বলে খবর। এরপরই  করিশ্মা প্রকাশকে NCB তলব করেছে বলে সূত্রের দাবি। প্রসঙ্গত, কেওয়ান ট্যালেন্ট ম্যানেজমেন্ট এজেন্সির হয়ে কাজ করেন করিশ্মা। এই এজেন্সিকেই সুশান্ত মামলায় ইডির প্রশ্নের মুখেও পড়তে হয়েছে।

[আরও পড়ুন : ‘সুশান্ত মৃত্যুর তদন্তের নামে সার্কাস চলছে’, সোনু সুদের মন্তব্যের নিশানায় কে? তুঙ্গে জল্পনা]

আরেকটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে ডি এবং কে-এর কথোপকথন সামনে এসেছে। যেখানে ২০১৭ সালে অক্টোবর মাসে ডি মাদক (হ্যাশ) চাইছেন। জবাবে কে জানাচ্ছেন, তাঁর বাড়িতে মাদক আছে, কিন্তু তিনি বাড়িতে নেই। সেই কথোপকথনে অমিত বলে আরও একজনের নাম উঠে আসে। কে জানায়, অমিত কোকো নামে রেস্তরাঁয় ‘ডি’-কে নেশার বস্তু পৌঁছে দিয়ে আসবে। এরপরই দীপিকাকে তলব করার বিষয়টি নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। চলতি সপ্তাহেই সারা আলি খান, রকুল প্রীতদের সমন পাঠাতে চলেছে এনসিবি, এবার সেই তালিকায় ‘ডিম্পল গার্লে’র নাম থাকে কিনা, সেটাই এখন দেখার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement