০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘ক্লান্ত হলেও বিয়েতে যেতে হবে’, ছোটবেলার বান্ধবীকে শেষ কথা শ্রীদেবীর

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: February 28, 2018 2:42 pm|    Updated: September 16, 2019 12:38 pm

Childhood friend reveals last conversation with Sridevi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুর্ঘটনাবশত বাথটবের জলে ডুবে মৃত্যু। জাগতিক মায়া কাটিয়ে চলে গিয়েছেন বলিউডের চাঁদনি। থেকে গিয়েছে অজস্র স্মৃতির মণিমুক্তো। আর সেসবের দিকে ফিরে তাকিয়েই চোখে জল পরিচিত, আত্মীয়দের। ছোটবেলার বান্ধবীর মুখেও আজ তাই ফিরে ফিরে শুধু শ্রী-র কথা।

 ‘শৈশব ছিল না, আজীবন পারফরম্যান্সের চাপ বয়ে বেড়াতে হয়েছে শ্রীদেবীকে’ ]

শ্রীদেবীর খুব ছোটবেলার বন্ধু পিঙ্কি রেড্ডি। ঘটনার আকস্মিকতায় তিনি শোকে মূহ্যমান প্রায়। কানে শুধু ভাসছে শ্রীদেবীর বলে যাওয়া শেষ কথাগুলো। মোহিত মাড়ওয়ার বিয়েয় যাওয়ার দিনকয়েক আগে ফোনে তাঁদের কথা হয়। সে সময় জ্বরে কাবু ছিলেন শ্রীদেবী। অ্যান্টিবায়োটিক চলছিল। ফলত বেশ দুর্বলই ছিলেন। সে কথা প্রিয় বান্ধবীকে জানাতে ভোলেননি শ্রীদেবী। জানিয়েছিলেন, বেশ অসুস্থ, ক্লান্ত। তবু ননদের ছেলের বিয়ে বলে কথা। তাই যেতেই হবে। সেই শেষ কথা। তারপর একদিন আকস্মিক রাতে পিঙ্কি খবর পেলেন, বহুদূর দুবাইয়ের এক হোটেলে বাথটবের মধ্যে চিরঘুমে তলিয়ে গিয়েছেন তাঁর প্রিয় বান্ধবী।

sridevi-4_web

স্মৃতিচারণায় অনেকেই বলেছেন ক্যামের সামনের মানুষটার সঙ্গে আসল মানুষটার যেন কোনও মিল নেই। একই কথা তাঁর বান্ধবীরও। জানাচ্ছেন, বহু ছোটবেলার বন্ধু তাঁরা। পিঙ্কির বাবা ছিলেন চাঁদনি ছবির সহ-প্রযোজক। নায়িকা হিসেবে শ্রীদেবীর উত্থান তাই তাঁর চোখে দেখা। কিন্তু কখনও স্টারসুলভ কোনওকিছু তাঁর চোখে পড়েনি। গত বছর ছিল পিঙ্কির মেয়ের সাধের অনুষ্ঠান। তুমুল ব্যস্ততার মধ্যেও সেখানে ছুটে গিয়েছিলেন শ্রীদেবী। কাটিয়ে এসেছিলেন বেশ খানিকটা সময়। সে কথা আজ মনে পড়ছে পিঙ্কির। বলছেন, কোথায় স্টারসুলভ কাজকর্ম? বন্ধুপ্রীতি কতখানি গভীর হলে যে এরকম নিমন্ত্রণ রক্ষা করা যায়, তা জানা উচিত সকলের।

[  চোখে আলো নেই, তবু শ্রীদেবীর জন্য ঠায় দাঁড়িয়ে এই ব্যক্তি ]

বর্তমানে শ্রীদেবীর মৃত্যু নিয়ে যে নানা জল্পনা, কাটাছেঁড়া তাতে স্পষ্টতই আহত পিঙ্কি। জানিয়েছেন, কেউ কেউ বলছেন সৌন্দর্য সচেতনতার কারণে অতিমাত্রায় সার্জারির দিকে ঝুঁকেছিলেন শ্রীদেবী। শরীর থেকে অতিরিক্ত ফ্যাট বের করার জন্য বিশেষ পদ্ধতির দ্বারস্থ হয়েছিলেন। পিঙ্কির বক্তব্য, শ্রীদেবী চলে যাওয়ার পর এত হীনমানের আলোচনা কী করে করতে পারে মানুষ? কেনই বা শ্রীদেবীর অন্যান্য ঝলমলে দিকগুলি নিয়ে খুশি থাকতে পারে না!

[  শ্রীদেবীর মৃত্যুর ব্যাখ্যা দিতে সোজা বাথটবে! নেটদুনিয়ায় খোরাক সাংবাদিক ]

বনি কাপুরের সঙ্গে শ্রীদেবীর সম্পর্ক নিয়েও নানা মুনির নানা মত। যদিও পিঙ্কি সাফ জানাচ্ছেন, এরকম মিষ্টি দাম্পত্য তিনি আগে দেখেননি। এমনকী দুজনের মধ্যে ঝগড়া হত বলেও মনে করেন না তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে