BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ২৫ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কসবার ক্যাম্পে ভুয়ো টিকা নেওয়ার পর অসুস্থ, কী হয়েছে মিমির? জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

Published by: Suparna Majumder |    Posted: June 28, 2021 5:05 pm|    Updated: June 28, 2021 8:01 pm

CM Mamata Banerjee speaks about MP Mimi Chakraborty's health condition | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডের পর কেমন আছেন অভিনেত্রী-সাংসদ মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)? সোমবারের সাংবাদিক বৈঠকের মাঝেই জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। পাশাপাশি মিমির শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যও দিলেন তিনি। শুক্রবার রাত থেকেই পেটের ব্যথায় কাবু যাদবপুরের সাংসদ। গলব্লাডারের সমস্যা রয়েছে তাঁর। সাংবাদিক বৈঠকে তা জানালেন মুখ্যমন্ত্রী।

গত মঙ্গলবার তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সঙ্গে কসবার ক্যাম্প থেকে করোনা টিকার (Corona Vaccine) প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন তারকা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। তারপরই জানা যায়, কসবার ওই ক্যাম্পের কোনও সরকারি অনুমোদন ছিল না। ভুয়ো IAS অফিসার দেবাঞ্জন দেবকে (Debanjan Deb) গ্রেপ্তারও করা হয়। ভুয়ো টিকার পর্দা ফাঁস হওয়ার পরই চিন্তিত হয়ে পড়েন অনেকে। এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার ইনস্টাগ্রাম ভিডিওতে মিমি জানিয়েছিলেন তাঁর শারীরিক অবস্থা ঠিক আছে। বাকিদেরও সতর্ক থাকার অনুরোধ করেছিলেন তারকা সাংসদ। কিন্তু শুক্রবার রাত থেকেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পেটে ব্যথার পাশাপাশি ডিহাইড্রেশনেরও সমস্যা ছিল মিমির।

[আরও পড়ুন: ঋতাভরীর সিনেমার প্রচার করলেন হৃতিক রোশন! ব্যাপারটা কী?]

এদিন দেবাঞ্জন দেবের প্রসঙ্গের জেরেই মিমির কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানান, মিমি চক্রবর্তীর সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। অভিনেত্রীর শারীরিক অবস্থা আগের থেকে কিছুটা ভাল আছে। মিমির আগে থেকেই গলব্লাডারের সমস্যা ছিল। সেই কারণেই তারকা সাংসদ অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন বলে জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

উল্লেখ্য, কসবার ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভুয়ো টিকাকরণ শিবিরের পর্দা ফাঁস করেছিলেন মিমি চক্রবর্তীই। গত মঙ্গলবার তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সঙ্গে কোভিড টিকা নিয়েছিলেন তৃণমূল সাংসদ (TMC MP)। জানিয়েছিলেন সাধারণ মানুষকে টিকা নিতে উৎসাহ দিতেই ক্যাম্পে গিয়ে সকলের সঙ্গে টিকা নিয়েছেন তিনি। কিন্তু টিকা নেওয়ার পর মোবাইলে মেসেজ না আসার পরই মিমির সন্দেহ শুরু হয়। ক্যাম্পে গিয়ে সার্টিফিকেট চাইলে বলা হয় তিন-চারদিন পর সার্টিফিকেট পাওয়া যাবে। তাতেই সন্দেহ আরও বাড়ে। এরপরই নাকি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে টিকাকরণ প্রক্রিয়া থামিয়ে দেন মিমি। এই ধরনের বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই পুলিশ ও পুরসভাকে এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: অসুস্থ সংগীতশিল্পী কবীর সুমন, শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভরতি এসএসকেএমে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে