BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরই বন্ধ রাজ্যের সিনেমা হলগুলি, শুটিং নিয়ে সিদ্ধান্ত মঙ্গলবার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 16, 2020 6:09 pm|    Updated: March 16, 2020 6:59 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা সংক্রমণ এড়াতে রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল ও অডিটোরিয়ামগুলি ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার। এ নিয়ে সোমবার বিভিন্ন বিভাগের আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠকের পরই রাজ্যের সমস্ত সিনেমা হল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় হল মালিকরা। তবে বলিউডের পর টলিউডেও শুটিং বাতিল করা হবে কি না, তা নিয়ে মঙ্গলবার বিকেল ৪টেয় নন্দনে হবে বৈঠক।

সংক্রমণের আশঙ্কায় ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত আইসিডিএস সেন্টার, সিনেমা হল, অডিটোরিয়াম বন্ধ রাখা অনুরোধ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি রিয়ালিটি শোয়ের শুটিংও বন্ধ রাখার কথা বলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পরই পুরসভায় জরুরি বৈঠকে বসেন ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ-সহ অন্য কর্মকর্তারা। বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় স্টার থিয়েটার, উত্তম মঞ্চ ও মোহিত মঞ্চ-সহ রাজ্যের সমস্ত থিয়েটারগুলি বন্ধ রাখা হবে। ৩১ মার্চ পর্যন্ত থিয়েটারগুলি বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছেন এই থিয়েটারগুলির মালিকরা। তাঁরা এও জানিয়েছেন, ৩১ মার্চ পর্যন্ত যাঁদের বুকিং রয়েছে, তাঁদের টাকা ফেরত দেওয়া হবে। যদিও শহরের অডিটোরিয়ামগুলি এনিয়ে কোনও সিদ্ধান্তের কথা এখনও জানানো হয়নি।

[ আরও পড়ুন: রাজ চক্রবর্তীর নামে প্রতারণা করে ধৃত যুবক, পুলিশকে ধন্যবাদ পরিচালকের ]

মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকের পর মঙ্গলবার বিকেল ৪টেয় নন্দনে টলিউডের প্রযোজক ও পরিচালকদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় ও মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। টলিপাড়ার সমস্ত শিল্পী ও কলাকুশলীদেরও বৈঠকে ডাকা হয়েছে। করোনা থেকে বাঁচতে শুটিং বাতিল করা হবে কিনা, হলেও কবে বা কখন শুটিং বন্ধ করার উপযুক্ত সময়, তা আলোচনা হবে বৈঠকে। কারণ মুখ্যমন্ত্রী রিয়ালিটি শোয়ের শুটিং বাতিল রাখার অনুরোধ জানিয়েছেন। বলিউডও ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সমস্ত শুটিং বন্ধ থাকার কথা জানিয়ে দিয়েছে। কিন্তু টলিউডে এখনই শুটিং বন্ধ করলে ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারে ইন্ডাস্ট্রি। টেলিভিশনে যে ধারাবাহিকগুলি টেলিকাস্ট করা হয় তার শুটিং চলতে থাকে। এক্ষেত্রে শুটিং বাতিল হলে মজুত থাকা এপিসোডের সংখ্যা কমে যাবে। কিন্তু নতুন করে কোনও এপিসোড টেলিকাস্ট হওয়ার জন্য হাতে থাকবে না। সেক্ষেত্রে বন্ধ হয়ে যেতে পারে ধারাবাহিকগুলি। এমনকী কলাকুশলীদের রোজগারের উপরও তার প্রভাব পড়বে। তাছাড়া শুটিং যদি বাতিল হয় তবে বর্তমানে যাঁরা আউটডোর শুটিয়ে রয়েছে, তাঁদের ক্ষেত্রে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তা এখনও পরিষ্কার নয়। এসব নিয়েই আলোচনা হবে মঙ্গলবার নন্দনের বৈঠকে।

[ আরও পড়ুন: করোনার জেরে টলিউডে বন্ধ হচ্ছে শুটিং! বৈঠক বাতিলে ঝুলে রইল সিদ্ধান্ত ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement