BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নাম না করে সলমনকে কড়া ভাষায় বিঁধলেন দীপিকা, কেন জানেন?

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 6, 2019 9:13 pm|    Updated: August 6, 2019 9:13 pm

Deepika Padukone speaks on Salman Khan's depression comment

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউডে যে ক’জন ঠান্ডা মাথার মানুষ রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে দীপিকা পাড়ুকোন অন্যতম। সরাসরি সংঘাতে তিনি অন্যদের থেকে অনেক কম জড়িয়েছেন। প্রাক্তন প্রেমিক রণবীর কাপুরের সঙ্গে যাই হয়ে থাক, পেশাগত জীবনে তার কোনও প্রভাব পড়তে দেননি তিনি। বলিউডে মোটামুটি সবার সঙ্গেই তাঁর সম্পর্ক ভাল। এই ‘সবার’ মধ্যে রয়েছে সলমন খানের নামও। কখনও তাঁদের মধ্যে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি হয়নি। কিন্তু ঢিল খেলে যে সময় বুঝে পাটকেলটি মারতে হয়, তা খুব ভালভাবেই জানেন দীপিকা। তাই নাম না করে এবার সুযোগ পেয়েই বছর দশেক আগের রোষ উগরে দিলেন তিনি। ডিপ্রেশন ইস্যুতে একহাত নিলেন দাবাং খানকে।

[ আরও পড়ুন: বড়পর্দায় এবার অজিত দোভালের ভূমিকায় অক্ষয় কুমার ]

২০১৫ সালে অবসাদে ভুগছিলেন দীপিকা। সবাই তা জানে। অভিনেত্রী কখনও সেকথা অস্বীকার করেননি। বরং তাঁর অসবাদ থেকে বেরিয়ে আসার লড়াই সবাইকে মুগ্ধ করেছিল। তারপর থেকে মানুষকে অবসাদ থেকে বেরিয়ে আসার জন্য পরামর্শ দেন দীপিকা। এও বলেন, এই সময় কাছের মানুষের পাশে থাকা দরকার। কিন্তু তিনি উপকার করতে চাইলে কী হবে, বলিউডের অনেকেই তো তাঁর এমন কাণ্ডকারখানা নিতে পারেন না। সেই তালিকায় যে সলমন খানও পড়েন, তার প্রমাণ অভিনেত্রী পেয়েছিলেন বছর তিনেক বাদে।

একটি সাক্ষাৎকারে সলমন বলেন, “আমি অনেককে দেখেছি তাঁরা অবসাদগ্রস্ত বা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছেন। কিন্তু অবসাদ, দুঃখ বা অবেগপ্রবণ হওয়ার মতো বিলাসিতা করার সামর্থ আমার নেই।” সেই সময় এই কথার পালটা কোনও বক্তব্য দেননি দীপিকা। কিন্তু এবার মুখ খুললেন তিনি। তবে সলমন খানের নামে আর কিছু বলেননি। কিন্তু এবার সুযোগ পেয়ে ছেড়ে কথা বললেন না তিনি। তিনি বলেন, “মানুষ মনে করে যাদের প্রচুর সময় আর প্রচুর টাকা তারাই অবসাদে ভোগে। আমার মনে হয় এই ধারণাটা ভাঙা খুব দরকার।”

[ আরও পড়ুন: ‘স্বৈরতন্ত্র চালাচ্ছে মোদি সরকার’, কাশ্মীর ইস্যুতে সরব কমল হাসান ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে