৯ ফাল্গুন  ১৪২৬  শনিবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত সপ্তাহেই মুক্তি পেয়েছে আদিত্য রায় কাপুর এবং দিশা পাটানি অভিনীত ‘মালাঙ্গ’। বক্স অফিসে সেরকম আশা জাগাতে না পারলেও বলিউডের এই ফ্রেশ জুটি আদিত্য-দিশাকে কিন্তু বেশ মনে ধরেছে দর্শকদের। রগরগে রোম্যান্স আর ছবিজুড়ে অ্যাকশন সিকোয়েন্স সিনেপ্রেমীদের নজর কাড়লেও ‘মালাঙ্গ’ দেখে বেজায় চটেছেন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত। আপত্তি তুলেছেন ছবির কাহিনি নিয়ে।

গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্তের কথায়, ‘মালাঙ্গ’ ছবিতে গোয়াকে ভুলভাবে তুলে ধরা হয়েছে। এতে গোয়ার প্রতি  জনসাধারণের ভাবমূর্তি নষ্ট হতে পারে। ‘মালাঙ্গ’-এ গোয়ার নেতিবাচক চিত্র তুলে ধরার কারণেই অসন্তুষ্ট মুখ্যমন্ত্রী। গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎ‍কারে প্রমোদ জানিয়েছেন, পরিচালক মোহিত সুরি তাঁর এই ছবিতে গোয়াকে মাদক পাচার তথা নেশাজাত দ্রব্য ব্যবসার কেন্দ্রস্থল বলে চিহ্নিত করেছে, যা একেবারেই ঠিক নয়।

মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, গোয়ার আইন শৃঙ্খলা খুবই কড়া। তাই ছবিতে এরকম নেতিবাচক দিক চিহ্নিত করা একেবারেই ঠিক হয়নি মোহিত সুরির। পাশাপাশি তিনি এও জানান যে, ভবিষ্যতে গোয়ার প্রেক্ষাপটে কোনও ছবি তৈরি হলে অনুমতি দেওয়ার আগে এন্টারটেইনমেন্ট সোসাইটি অফ ইন্ডিয়া প্রথমে চিত্রনাট্য পড়ে দেখবে। খেয়াল রাখা হবে যাতে কোনওভাবেই রাজ্যের মান নষ্ট না হয়। এমনকী ছবির ক্রেডিট লাইনে যে গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্রমোদ সাওয়ান্তের নামোল্লেখ করে সহযোগিতার জন্য ধন্যবাদ জানানো হয়েছে, সে খবরও নাকি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ছিল না। তাঁর কথায়, গোয়ার পর্যটনে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে।

[আরও পড়ুন: ‘সব ছবিতে তোমার সঙ্গে রোম্যান্স করতে চাই’, করিনাকে খোলাখুলি প্রেম নিবেদন আমিরের!]

প্রসঙ্গত, রিভেঞ্জ থ্রিলার এই ছবিতে আদিত্য রায় কাপুরের প্রেমিকার ভূমিকায় অভিনয় করেছেন দিশা পাটানি। ছটফটে এক আধুনিক মেয়ের চরিত্রে দেখা গিয়েছে দিশাকে। যে জীবনে স্বাধীনতা চায়। এমন স্বাধীনতা যেখানে কেউ তাকে কোনও ব্যাপারে বারণ করবে না। বলা ভাল, তার জীবনে নাক গলাবে না কেউ। তার বয়ফ্রেন্ডও (আদিত্য) খুব একটা ভিন্ন মত পোষণ করে না। এই প্রেমকাহিনির পাশাপাশি চলে খুনের খেলা। এরই মাঝে প্রবেশ কুণাল খেমুর। তিনিও ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন। খুন করা তাঁর অভ্যাস। যে চারজনকে নিয়ে ‘মালাঙ্গ’-এর গল্প, তার মধ্যে কুণালের চরিত্রটি অন্যতম। এই ছবিতে নেতিবাচক চরিত্রে ধরা দিলেন অনিল কাপুর। তাঁর চরিত্রটি একটি পুলিশ অফিসারের। 

[আরও পড়ুন: টি-২০’র দুর্গাপুজোয় দেব-রুক্মিণীর নতুন ম্যাচ, আসছে ‘কিশমিশ’ ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং