BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ২৬ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চুরি করা হয়েছে ‘গুলাবো সিতাবো’র গল্প? মুখ খুললেন চিত্রনাট্যকার জুহি চতুর্বেদী

Published by: Bishakha Pal |    Posted: June 8, 2020 12:08 pm|    Updated: June 8, 2020 12:08 pm

Gulabo Sitabo writer Juhi Chaturvedi opens up on plagiarism allegation

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডিস্ক: গল্প চুরির অভিযোগ বলিউডে নতুন নয়। এবার তার শিকার ‘গুলাবো সিতাবো’র লেখিকা জুহি চতুর্বেদী। প্রয়াত লেখক রাজীব আগারওয়ালের ছেলে আকিরা জুহির বিরুদ্ধে এ অভিযোগ তুলেছেন। তাঁর অভিযোগ, ‘গুলাবো’ সিতাবো’র গল্প বাবা রাজীবের লেখা। সেটি চুরি করে চিত্রনাট্য বানানো হয়েছে। যদিও জুহি এই অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়েছেন। তাঁর বক্তব্য, ‘গুলাবো সিতাবো’ তাঁর নিজস্ব কাজ। চুরির অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।

রাজীব আগারওয়ালের গল্পের নাম ছিল ‘১৬, মোহনদাস লেন’। আকিরার আইনজীবী রিজওয়ান সিদ্দিকির দাবি, রাজীব আগারওয়াল তাঁর গল্প সিনস্তান ইন্ডিয়াজ স্টোরিলেটার স্ক্রিপ্ট কনটেস্টে (Cinestaan India’s Storyteller Script Contest) জমা দিয়েছিলেন। এটি স্ক্রিনরাইটার্স অ্যাসোসিয়েশন (Screenwriters Association) প্রোমোট করে। এই সংস্থার একজন সক্রিয় সদস্য জুহি। সেই কারণে গল্পের ব্যাপারে তিনি জানতেন। সেখান থেকেই তিনি গল্পটি চুরি করেছেন বলে অভিযোগ।

[ আরও পড়ুন: সঞ্জয় রাউতের কটাক্ষের পরই উদ্ধবের সঙ্গে সাক্ষাৎ অভিনেতা সোনু সুদের ]

এদিকে জুহির বক্তব্য, ২০১৭ সালে ‘ক্রুকড ওল্ড ম্যান’ নিয়ে তাঁর পরিকল্পনার কথা জানান অমিতাভ বচ্চনকে। অমিতাভই তাঁকে পরিকল্পনাটি গল্পের আকারে লিখতে বলেন। যার ফলশ্রুতি ‘গুলাবো সিতাবো’। “এই বিষয়ে আমার বক্তব্য স্পষ্ট। ‘গুলাবো সিতাবো’ আমার নিজস্ব কাজ এবং এটি নিয়ে আমি গর্বিত। আমি এই ছবির পরিচালক এবং প্রধান অভিনেতার সাঙ্গে গল্পটি ২০১৭ সালের প্রথম দিকে শেয়ার নিয়েছিলাম। পরে আমি ধারণাটিকে গল্পের আকার দিই। ২০১৮ সালের মে মাসে এই গল্পটি ছবি তৈরির জন্য রেজিস্টার কর হয়।” এমনকী স্ক্রিনরাইটার্স অ্যাসোসিয়েশন থেকে গল্পের কথা জানতে পারার কথাও অস্বীকার করে জুহি। তিনি মিডিয়া ও সাধারণ মানুষের কাছে অনুরোধ করেন যাতে এই ধরণের মিথ্যা প্ররোচনায় কেউ পা না দেয়। এই ধরণের অভিযোগ হেনস্তা ছাড়া আর কিছু নয়।

তবে সিনেস্টান স্ক্রিপ্ট কনটেস্টের জুরি চেয়ারম্যান অঞ্জুম রাজাবলি জানিয়েছেন, জুহির কোনওভাবেই রাজীব আগারওয়ালে গল্পের কথা জানতেন না। প্রতিযোগিতাটি তিনটি পর্যায়ে বিভক্ত ছিল। সুপারস্টার আমির খান, চলচ্চিত্র নির্মাতা রাজকুমার হিরানি এবং চিত্রনাট্যকার জুহি চতুর্বেদি কেবলমাত্র চূড়ান্ত শীর্ষ আটটি স্ক্রিপ্ট পড়েছেন। ‘১৬ মোহনদাস লেন’ প্রথম ২০’র মধ্যে থাকলেও প্রথম আটে পৌঁছতে পারেনি। আর এই ৮টি চিত্রনাট্যের বাইরে কোনও চিত্রনাট্যই পড়েননি জুহি। সুতরাং, এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে জাবি করেছেন তিনিও।
ছবির প্রযোজক রনি লাহিড়ী বলেছেন, এই সময় অনলাইনে ছবি মুক্তির মতো সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। এমন ভিত্তিহীন অভিযোগ শুধু বিতর্ক তৈরির চেষ্টা ছাড়া আর কিছু নয় বলে দাবি করেছেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: অপেক্ষার অবসান, ধারাবাহিকের পাশাপাশি সিনেমার শুটিংও ১০ জুন থেকেই শুরু হচ্ছে ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে