৮ মাঘ  ১৪২৮  শনিবার ২২ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘নেতাজিরও হয়তো আজ হাজারবার মৃত্যু হত’, বিতর্কিত টুইট সায়নী ঘোষের

Published by: Suparna Majumder |    Posted: January 23, 2021 9:37 pm|    Updated: January 23, 2021 9:37 pm

Here is what Actress Saayoni Ghosh twitted about Netaji Subhas Chandra Bose | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিস্ফোরক অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh)। এবার টুইটারে লিখলেন, “নেতাজিরও হয়তো আজ হাজারবার মৃত্যু হত… ধর্মনিরপেক্ষ দেশের ধর্মনিরপেক্ষ নায়ক!” নিজের এই টুইটে হ্যাশট্যাগ দিয়ে লজ্জিত (#Ashamed) লিখেছেন টলিপাড়ার নায়িকা।

কেন এমন টুইট করলেন অভিনেত্রী? মনে করা হচ্ছে, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Netaji Subhas Chandra Bose) ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে বিতর্কের জেরেই তাঁর এই টুইট। শনিবার বিকেলের এই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চে বক্তব্য রাখতে ওঠার সঙ্গে সঙ্গেই উপস্থিত দর্শকদের একাংশ ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিতে শুরু করেন। তাতেই ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী তাঁদের উদ্দেশে বার্তা দিয়ে মঞ্চ থেকে নেমে আসেন। নেতাজি সম্পর্কিত কোনও ভাষণই রাখেননি। এই ঘটনার জেরে আবার মুখ্যমন্ত্রীকে ব্যঙ্গ করে টুইট করেন বিজেপি নেতা তথাগত রায় (Tathagata Roy)।

[আরও পড়ুন: নিমন্ত্রিত নন গোবিন্দা ও বচ্চন পরিবার! বরুণ-নাতাশার বিয়ের অতিথি কারা?]

তথাগত রায় টুইটটি করেন শনিবার বিকেল ৫.১৫ মিনিটে। সায়নীর টুইটটি সন্ধ্যে ৭.৪২ মিনিটে করা। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই টুইটারে দু’জনের বিস্তর কথাযুদ্ধ হয়েছে। এরপর আবার সায়নীর নামে থানায় অভিযোগও করেছিলেন প্রবীণ বিজেপি নেতা।

প্রায় বছর পাঁচেক আগের অর্থাৎ ২০১৫ সালের সায়নী ঘোষের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে করা একটি টুইট আবার সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় হয়। সায়নীর টুইটে দেখা গিয়েছিল, শিবলিঙ্গের মাথায় কন্ডোম পরাচ্ছেন এইডস সচেতনতার বিজ্ঞাপনের ম্যাসকট ‘বুলাদি’। এই টুইটটি হিন্দু ধর্মের পবিত্রতা নষ্ট করেছে বলেই অভিযোগ করেন তথাগত রায়।

[আরও পড়ুন: ‘হ্যালো ৩’ ওয়েব সিরিজ রিভিউ: অকারণ গল্প টেনে দর্শকদের বিরক্তই করলেন পরিচালক]

সেই ঘটনার জেরে পুরুলিয়ার সভায় নাম না করেন বিজেপি নেতাকে একহাত নিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেছিলেন, ‘ক্ষমতা থাকে সায়নীর গায়ে হাত দিয়ে দেখাও। টলিউডের গায়ে হাত দিয়ে দেখাও, সংস্কৃতিপ্রেমী মানুষের গায়ে হাত দিয়ে দেখাও। বয়স হয়ে গিয়েছে ভীমরতি যায় না। নাতনির বয়সি মেয়ে, তাকে প্রতিদিন ধমকাচ্ছে। কীসের জন্য? তার কি স্বাধীনভাবে কথা বলবার অধিকার নেই?” এমন পরিস্থিতিতে, সায়নীর নতুন এই টুইটে ফের নতুন বিতর্কের সূত্রপাত হল বলেই মনে করছেন অনেকে। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে